আফগানিস্তান থেকে বিপুল অঙ্কের আর্থিক সাহায্য উধাও | বিশ্ব | DW | 11.08.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

আফগানিস্তান থেকে বিপুল অঙ্কের আর্থিক সাহায্য উধাও

আফগানিস্তানে যুদ্ধের পর দেশটিতে হাজার হাজার কোটি টাকার বৈদেশিক সাহায্য পাঠানো হয়েছে৷ কিন্তু সে টাকার অধিকাংশেরই কোন হিসেব নেই৷ টাকা সে দেশে পৌঁছেছিল ঠিকই, কিন্তু, সেই টাকা আবার আফগানিস্তান থেকে বের করেও নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷

default

সাহায্যের অনেকাংশই পায়নি আফগান জনগন

সবার মনে একটাই প্রশ্ন৷ তা হল, এত টাকা এসেছে বিভিন্ন দেশ থেকে সাহায্য হিসেবে কিন্তু সেই বিপুল অর্থ গেল কোথায়? বিভিন্ন প্রচারমাধ্যম জানিয়েছে কয়েক শ' কোটি মার্কিন ডলার শুধুমাত্র রাজধানী কাবুল থেকেই উধাও হয়ে গিয়েছে৷ গত তিন বছরে আর্থিক যত সাহায্য পাওয়া গিয়েছিল সে টাকার কোন হিসেবই পাওয়া যাচ্ছে না৷ টাকা কোথায়, কীভাবে খরচ করা হয়েছে তা কেউই জানেনা৷ আফগান অর্থমন্ত্রী ওমর জাখিলওয়াল পুরো বিষয়টির অনুসন্ধানের দাবি জানিয়েছেন৷ বলছেন,‘প্রায় ৪০০ কোটি টাকার হিসেব মিলছে না৷ গত তিন বছরে আমাদের কাছে খবর, কাবুল বিমানবন্দর থেকেই এই বিপুল অর্থ যেন বাতাসে মিলিয়ে গেছে৷'

Erdbeben in Afghanistan

অথচ কাগজে কলমে এই বিশাল পরিমাণ অর্থ আফগানিস্তানে পৌঁছেছে যে, তা কিন্তু নিশ্চিত৷ তার প্রমাণও রয়েছে৷ কিন্তু কোথায় সেই অর্থ? বলা হচ্ছে, সাহায্যের জন্য যত অর্থ আফগানিস্তান পেয়েছে তার চেয়ে অনেক বেশি অর্থ দেশ থেকে বের হয়ে গেছে৷ কীভাবে ? ওমর জাখিলওয়াল আরো জানান, ‘এর বেশিরভাগই হচ্ছে দেশ পুর্নগঠনের জন্য বৈদেশিক সাহায্য৷ বিদেশি বড় বড় কোম্পানিগুলো আফগানিস্তান পুর্নগঠনের মোটা মোটা অঙ্কের চুক্তি পেয়েছে৷ কয়েকশ' মিলিয়ন ডলারের চুক্তি সই করেছে একেকটি কোম্পানি৷ তারাই এসব অর্থ বের করে নিয়ে গেছে৷ অথচ সে অনুযায়ী কাজ করা হয়নি৷ '

এসব ঘটনা প্রকাশ হওয়ার পর পশ্চিমা বিশ্বও বেশ ক্ষুব্ধ৷ কারণ, আফগানিস্তানের আর্থিক সাহায্য বের হয়ে দুবাইতে এসে আটকে যাবে তাও তারা কখনো ভাবেননি৷ প্রশ্ন করা হয়েছে, যাদের হাতে এই টাকা পৌঁছেছে তাদের কি এই অর্থের বেশি প্রয়োজন নাকি সেই আফগানের – যার ঘর-বাড়ি যুদ্ধে ধ্বংস হয়ে গেছে, যার যাওয়ার জায়গা নেই, নেই এতটুকু মাথা গোঁজার ঠাই৷

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল জানিয়েছে এই অর্থ আত্মসাতের সঙ্গে আফগান সরকারের যোগসূত্র আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা প্রয়োজন৷ ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনালের জরিপ অনুযায়ী দুর্নীতিগ্রস্ত দেশগুলোর মধ্যে আফগানিস্তানের অবস্থান দ্বিতীয়৷

আফগান অর্থমন্ত্রী ওমর জাখিলওয়াল এ জন্যই দাবি জানিয়েছেন তদন্তের৷ কারণ, কাবুলের বাইরে এই সাহায্যের একটি কড়িও এসে পৌঁছায়নি৷

প্রতিবেদন: মারিনা জোয়ারদার

সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

ইন্টারনেট লিংক