1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
আদিবাসীদের উৎসব
ছবি: bdnews24.com

আদিবাসী, নাকি উপজাতি?

১৪ ডিসেম্বর ২০১৬

প্রশ্নটা যে আমিই প্রথম তুললাম, তা নয়৷ বাংলাদেশের পার্বত‍্য অঞ্চলে বসবাসরত ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীগুলোকে আদিবাসী বলা উচিত? নাকি তারা উপজাতি? এ প্রশ্ন বহুদিনের, অথচ জনমত আর সংবিধান এক্ষেত্রে কার্যত বিপরীতমুখী অবস্থানে রয়েছে৷

https://www.dw.com/bn/%E0%A6%86%E0%A6%A6%E0%A6%BF%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%B8%E0%A7%80-%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A6%95%E0%A6%BF-%E0%A6%89%E0%A6%AA%E0%A6%9C%E0%A6%BE%E0%A6%A4%E0%A6%BF/a-36759941

আজকাল যে কোনো বিষয় নিয়ে আলোচনার এক ভালো মাধ‍্যম ফেসবুক৷ সেখানে প্রশ্ন করেছিলাম, ‘‘বাংলাদেশে উপজাতিরা সরকারের কাছ থেকে কি বিশেষ কোনো সুযোগ সুবিধা পান? পেলে সেগুলো কী কী?'' আমার কয়েকজন ফেসবুক বন্ধু প্রশ্নটি ঠিক পছন্দ করেননি৷ তাঁদের আপত্তি উপজাতি শব্দটি নিয়ে৷ তাঁদের কথা হচ্ছে, উপজাতি নয়, কথাটা হবে আদিবাসী৷''

আমার সুযোগ-সুবিধার হিসেব ছেড়ে আলোচনাটা তাই চলে গেল আদিবাসী নাকি উপজাতি – সেই দিকে৷ উপায়ান্তর না দেখে আমি যোগাযোগ করি একজন ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী বিশেষজ্ঞের সঙ্গে৷ তিনি আমাকে বোঝালেন এই বিতর্কের উৎস নিয়ে৷ ২০০৯ সালেও আওয়ামী লীগ সরকার আন্তর্জাতিক আদিবাসী দিবস পালন করেছে৷ কিন্তু তারপরই বদলে গেছে বিষয়টি৷ কেন? এমন প্রশ্নের জবাবে সেই বিশেষজ্ঞ জানান, অনেকে মনে করেন আদিবাসী মানে আদি বাসিন্দা৷ আর বাংলাদেশের আদি বাসিন্দা হতে হবে বাঙালিদের৷ তাই তারা আদিবাসী নন, উপজাতি৷

বাংলাদেশের সংবিধানের একটি ধারাও ইন্টারনেটে পেলাম যেখানে লেখা হয়েছে, ‘২৩ক. রাষ্ট্র বিভিন্ন উপজাতি, ক্ষুদ্র জাতিসত্তা, নৃ-গোষ্ঠী ও সম্প্রদায়ের অনন্য বৈশিষ্ট্যপূর্ণ আঞ্চলিক সংস্কৃতি এবং ঐতিহ্য সংরক্ষণ, উন্নয়ন ও বিকাশের ব্যবস্থা গ্রহণ করিবেন৷' খেয়াল করলে দেখবেন এখানে পরিষ্কারভাবে আদিবাসী শব্দটি ব‍্যবহার করা হয়নি৷

ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীগুলোকে আদিবাসী হিসেবে স্বীকৃতি দিলে তারা আরো অনেক অধিকার পাবেন৷ ২০০৭ সালে পাস হওয়া ‘ইউনাইটেড নেশনস ডিক্লারেশন অফ দ‍্য ইন্ডিজিনিয়াস পিপলস' বা ইউএনডিআরআইপি অনুযায়ী, আদিবাসীদের নিজেদের উন্নয়নের ধারা নিজেদের নির্ধারণ, এবং আত্মনিয়ন্ত্রণসহ বিভিন্ন অধিকার তাদের প্রাপ‍্য হয়ে উঠবে৷ বাংলাদেশ সরকার সেটা দিতে রাজি নয়, পার্বত‍্য অঞ্চলও বেসামরিকীকরণের কোনো পরিকল্পনা তাদের নেই৷ তাই ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীগুলোকে উপজাতি হিসেবে বিবেচনাই নিরাপদ৷ ফলে সেই ডিক্লারেশনে স্বাক্ষরও করেনি বাংলাদেশ৷

দেখা যাচ্ছে, আদিবাসী শব্দটির গুরুত্ব অনেক৷ আর ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীগুলো চান তাদের সে নামেই অবিহিত করা হোক৷ ফেসবুক ঘেঁটে যেটা বুঝলাম, সাধারণ মানুষেরও তাতে বিশেষ আপত্তি নেই৷ যদিও মার্কিন নির্বাচনের পর ফেসবুক আর বাস্তব দুনিয়ার ফাঁরাক যে কতটা, তা বোঝা গেছে৷ সামাজিক যোগাযোগের মাধ‍্যমে যাকে দিনের পর দিন নাস্তানাবুদ করা হয়েছে, সেই ডোনাল্ড ট্রাম্পই এখন মার্কিন প্রেসিডেন্ট৷ বোঝাই যায়, ফেসবুকে যতটা উদারতা অনেকে দেখান, বাস্তবে আসলে তাঁরা ততটা উদার নন৷

আরাফাতুল ইসলাম
আরাফাতুল ইসলাম, ডয়চে ভেলেছবি: DW/Matthias Müller

যাহোক, আদিবাসী, উপজাতি বা ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী – যেটাই বলা হোক না কেন, এ সব গোষ্ঠীকে বাংলাদেশ রাষ্ট্র একটি অধিকার সুনির্দিষ্টভাবেই দিচ্ছে৷ এঁরা সরকারি বিশ্ববিদ‍্যালয়ে এবং সরকারি চাকুরির ক্ষেত্রে কোটা সুবিধা পান৷ এই সুবিধা তাঁদের উন্নতির পথে সহায়তা করছে৷ তবে তা পর্যাপ্ত নয়৷ বরং শান্তি চুক্তি অনুযায়ী পার্বত‍্য চট্টগ্রামে বসবাসরত ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীগুলোর অন‍্যান‍্য অধিকার নিশ্চিত করা গেলে তাঁদের জীবন আরো শান্তিপূর্ণ হবে বলে আমি মনে করি৷

আপনার কি এ বিষয়ে কিছু বলার আছে? লিখুন নীচের মন্তব‍্যের ঘরে৷

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

Bangladesch Demonstration auf Campus der Universität von Dhaka angegriffen

বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না ছাত্রলীগের

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

প্রথম পাতায় যান