1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
ইমরান খান
ইমরান খান
রাজনীতিপাকিস্তান

আদালতের রায়ে ইমরানের শরিক দলের হাতে পাঞ্জাব প্রদেশ

২৭ জুলাই ২০২২

সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের শরিক দলের প্রার্থী পারভেজ এলাহিকেই পাঞ্জাব প্রদেশের দায়িত্ব নেয়ার রায় দিয়েছে পাকিস্তানের আদালত৷

https://p.dw.com/p/4Ei7q

মাঝরাতেই ‘কাহানি মে টুইস্ট’৷পাকিস্তানের সবচেয়ে জনবহুল এলাকা পাঞ্জাব প্রদেশেরমুখ্যমন্ত্রী হয়ে গেছেন ইমরান খান সমর্থিত প্রার্থী৷ মঙ্গলবার মাঝরাতের রায়ে ফের পাকিস্তানের রাজনীতিতে নতুন মোড়৷ পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী পদে প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের ছেলে হামজা শাহবাজের নিয়োগকে বেআইনি ঘোষণা করেছে আদালত৷

পাকিস্তানের শীর্ষ আদালতের এই রায় হামজার বাবা, অর্থাৎ পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফের জন্য বড় এক ধাক্কা৷ পাঞ্জাবের নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখতে মরিয়া ছিল সরকার৷ ক্ষমতায় থাকা পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন-এর) নেতৃত্বাধীন জোট সরকারকে এই রায় যথেষ্ট উদ্বেগে ফেলেছে৷

মাস কয়েক আগেই দেশের ধসে পড়া অর্থনীতিএবং ভুল পররাষ্ট্রনীতির অভিযোগে ইমরানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনে বিরোধী দলগুলো৷ দেশের অর্থনীতির সংস্কারের কথা বলা হয়েছিল তখন৷ পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদের অধিবেশনে অনাস্থা ভোটে এপ্রিলে ক্ষমতাচ্যুত হন ইমরান খান৷ এবার পাকিস্তান সরকারের উপর ফের চাপ বাড়াল ইমরান খানের পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)৷

নাটকীয় মোড়

পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্টএকটি সংক্ষিপ্ত আদেশে ইমরান খান সমর্থিত প্রার্থীর পক্ষে রায় দেয়৷ মঙ্গলবার মধ্যরাতের আগে ইমরান সমর্থিত পারভেজ এলাহিকে পাঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী পদে বসানোর নির্দেশ দেয় আদালত৷ ইসলামাবাদের আইওয়ান-ই-সদরে এলাহিকে শপথবাক্য পাঠ করান পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ড. আরিফ আলভি৷ পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী পদে প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের ছেলে হামজা শাহবাজের নিয়োগ বেআইনি বলে জানায় আদালত৷

এর আগে পাঞ্জাব বিধানসভার স্পিকার এলাহিকে জয়ী মানতে অস্বীকার করেছিলেন৷ কিন্তু শীর্ষ আদালত স্পিকারের সেই সিদ্ধান্ত বাতিল করে৷

মঙ্গলবার মধ্যরাতে রায়ের পর সাংবাদিকদের তথ্য বিষয়ক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মরিয়ম আওরঙ্গজেব বলেন, ‘‘এই সিদ্ধান্ত জনগণ মেনে নেয়নি৷ জোটের শরিকদের সঙ্গে কথা বলে ভবিষ্যতের কর্মসূচি ঠিক করব৷''

বিশ্ববাজারে জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধি, রাজনৈতিক অস্থিরতা, মুদ্রার অবমূল্যায়নে বিপর্যস্ত পাকিস্তানের অর্থনীতি৷ গত ১৩ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বেশি মূল্যস্ফীতিতে জীবনযাত্রার ব্যয় মেটাতে নাজেহাল সাধারণ নাগরিক৷ এবার ইমরান ও তার বিরোধীদের মধ্যে ক্ষমতার দড়ি টানাটানির প্রভাবও পড়ছে ২০ কোটি জনসংখ্যার দেশটির অর্থনীতিতে৷

আরকেসি/এসিবি (রয়টার্স)

স্কিপ নেক্সট সেকশন সম্পর্কিত বিষয়

সম্পর্কিত বিষয়

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

মুসিয়ালার পাস থেকেই সমতা ফেরান বদলি হেসেবে নামা নিকলাস ফ্যুলক্রুগ

স্পেনের সঙ্গে ড্র করে আশা জিইয়ে রাখলো জার্মানি

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

প্রথম পাতায় যান