আগে নিজের স্ত্রী, তারপর আরো ৫ জনকে হত্যা | বিশ্ব | DW | 16.11.2017
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

যুক্তরাষ্ট্র

আগে নিজের স্ত্রী, তারপর আরো ৫ জনকে হত্যা

যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর ক্যালিফোর্নিয়ায় একটি স্কুলে বন্দুক চালিয়ে পাঁচজনকে খুন করার এক দিন পর সেই বন্দুকধারীর স্ত্রীকে নিহত অবস্থায় পাওয়া গেছে৷ ধারণা করা হচ্ছে, স্কুলে হামলা চালানোর আগের রাতেই তাকে খুন করা হয়৷

বন্দুকধারীর ঘরের মেঝের নিচ থেকে তার স্ত্রীর মৃতদেহ পাওয়া যায়৷ পুলিশের ধারণা, কেভিন জনসন নীল সোমবার রাতে তাঁকে গুলি করে হত্যা করে এবং পরের দিন সকালে এলাকায় হামলা চালায়৷ ‘‘আমাদের ধারণা, এভাবেই পুরো ঘটনাটা শুরু হয়েছিল'' বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন স্থানীয় পুলিশের সহকারী শেরিফ ফিল জনস্টন৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

১৪ নভেম্বর রাঞ্চো তেহমা রিজার্ভের এলিমেন্টারি স্কুলে হামলা চালান কেভিন নীল৷ তার আগে তিনি শহরের বিভিন্ন জায়গায় হামলা চালান৷ এতে মারা যায় ৪ জন, আহত হয় অন্তত ১০ জন৷ পরে স্কুলে হামলা চালানো হলে নিহত হয় আরো ১ জন৷  প্রায় ২৫ মিনিট ধরে এ তান্ডব চলে৷ নিহতদের মধ্যে দু'জন কেভিনের প্রতিবেশী৷ পুলিশের ধারণা, এদের হত্যা করার পরই এলোপাথাড়ি গুলি চালানো শুরু করেন কেভিন৷

এ ঘটনায় কোনো শিশু নিহত হয়নি৷ স্কুল কর্তৃপক্ষের তড়িৎ সিদ্ধান্তের ফলে হতাহতের সংখ্যা অনেক কম৷ যদিও এ হামলার উদ্দেশ্য সম্পর্কে এখনো নিশ্চিত হওয়া যায় নি, তবে ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক অশান্তি ও প্রতিবেশীদের সাথে ঝামেলার জেরে এমন ঘটনা ঘটেছে৷

হামলাকারীর বোন শেরিডান ওর বলেন, ‘‘কেভিনের মানসিক সমস্যা ছিল এবং প্রায়ই সে উগ্র আচরণ করতো৷'' তিনি জানান,  কয়েক সপ্তাহ আগে কেভিন তার উদ্ভট ব্যবহারের জন্য চাকরিচ্যুত হন৷ এর আগে ফেব্রুয়ারি মাসে এক প্রতিবেশীকে ছুরিকাঘাতের অভিযোগও রয়েছে তার বিরুদ্ধে৷ আদালত সূত্রে জানা যায়, ওই ঘটনার পর বন্দুক রাখার দায়ে তাকে জেলও খাটতে হয়৷

ক্যালিফোর্নিয়ার এ হামলার মাত্র দু'সপ্তাহ আগেটেক্সাসের এক গির্জায় বন্দুকধারীর হামলায় ২৬ জন মারা যায়৷ গত মাসে লাস ভেগাসে আরেক বন্দুকধারীর হামলায় নিহত হয় ৫৮ জন৷

আরএন/এসিবি ( এএফপি, ডিপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন