‘আওয়ামী প্রজাতন্ত্রের বাংলাদেশ হতে দিতে পারি না’ | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 01.01.2021
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ

‘আওয়ামী প্রজাতন্ত্রের বাংলাদেশ হতে দিতে পারি না’

বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহীম বীর প্রতীক মনে করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ আওয়ামী প্রজাতন্ত্রের বাংলাদেশে পরিণত হচ্ছে৷ আমলাগণও এখন সরকারের পক্ষে মাঠে নামছেন বলে অভিযোগ তার৷

ডয়চে ভেলের ইউটিউব টকশো ‘খালেদ মুহিউদ্দীন জানতে চায়’-এ তিনি বলেন, ‘‘১৯৯৬ সালে বাংলাদেশের সচিবালয়ের আমলাগণ রাস্তায় নেমেছিলেন সরকারের বিরোধিতা করার জন্য আর এখন থেকে এক দেড় মাস আগে চট্টগ্রাম মহানগরীতে সরকারি আমলাগণ নেমেছেন সরকারের পক্ষে৷’’ সরকার দেশকে কোথায় নিয়ে যাচ্ছে সেই প্রশ্ন তোলেন তিনি৷ বলেন, ‘‘গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ, প্রজাতন্ত্রের বাংলা বা জনগণের বাংলা হচ্ছে আওয়াম বা আওয়ামী , আমরা কি নাম বদলানোর দিকে যাচ্ছি? বাংলাদেশের মানুষকে সজাগ হতে বলবো৷ আমরা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশকে আওয়ামী প্রজাতন্ত্রের বাংলাদেশ হতে দিতে পারি না৷’’

আলোচনার মূল বিষয় ছিল ‘গণতন্ত্র থাকা না থাকা’৷ মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমও অংশ নেন অনুষ্ঠানে৷ তিনি  সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহীমের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আওয়ামী লীগের পক্ষে সরকারি কর্মচারিরা মাঠে নেমেছেন এমন তথ্য ভুল৷ ধর্মীয় সংগঠনগুলোর দাবির প্রতিবাদ জানিয়েছেন তারা৷ তিনি বলেন, ‘‘বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভেঙে ফেলা... বঙ্গবন্ধু হচ্ছেন আমাদের চেতনার বিমূর্ত প্রতীক, আর ধর্মনিরপেক্ষতার সংবিধান ফেলে দিতে চেয়েছে, যেটা বাংলাদেশের অস্তিত্বের সঙ্গে সম্পৃক্ত৷ সেজন্যই সরকারি কর্মচারিরা একটি প্রতিবাদ করেছে৷'' আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বাংলাদেশ আমলাদের দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে না, বরং পরিচালিত হচ্ছে রাজনৈতিকভাবে ম্যান্ডেটপ্রাপ্ত রাজনৈতিক দলের নেতৃত্বের মাধ্যমে৷’’ প্রধানমন্ত্রী দেশ পরিচালনায় এককভাবে কোনো সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন না বলেও উল্লেখ করেন তিনি৷

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাতের অন্ধকারে ভোট দেয়া হয়েছে এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে আওয়ামী লীগ নেতা শ ম রেজাউল করিম দাবি করেন, এমন কোনো প্রমাণ কোথাও নেই৷ বলেন, ‘‘রাতে ভোট হয়েছে এ ধরনের কোনো তথ্য-প্রমাণ দেশে ও বিদেশের কোনো গণমাধ্যমে আসেনি৷’’

২০ দলীয় জোটের সরকারবিরোধী আন্দোলন নিয়ে সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহীম বলেন, জোট আবারো আন্দোলন শুরু করবে৷  কল্যাণ পার্টি ২০ দলীয় জোটের সঙ্গে থাকবে এবং এজন্য দলটিকে পুনর্জাগরণ করা হচ্ছে৷ খালেদা জিয়া আন্দোলনে নেতৃত্ব দিতে না পারলে অন্যদের দায়িত্ব নিতে হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন৷

এফএস/এসিবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন