1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
শপিং মলে বন্দুকধারীর গুলির পর দ্রুত সেখানে পৌঁছয় পুলিশ।
শপিং মলে বন্দুকধারীর গুলির পর দ্রুত সেখানে পৌঁছয় পুলিশ। ছবি: Kelly Wilkinson/The Indianapolis Star via AP/dpa/picture alliance
সমাজযুক্তরাষ্ট্র

অ্যামেরিকায় শপিং মলে গুলি, মৃত তিন

১৮ জুলাই ২০২২

অ্যামেরিকায় আবার শপিং মলে গুলি। ইন্ডিয়ানার গ্রিনউডে শপিং মলে ঢুকে বন্দুকধারী গুলি চালায়। তিনজন মারা যান। আহত বহু।

https://www.dw.com/bn/%E0%A6%85%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A7%87%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A7%9F-%E0%A6%B6%E0%A6%AA%E0%A6%BF%E0%A6%82-%E0%A6%AE%E0%A6%B2%E0%A7%87-%E0%A6%97%E0%A7%81%E0%A6%B2%E0%A6%BF-%E0%A6%AE%E0%A7%83%E0%A6%A4-%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%A8/a-62505089

ইন্ডিয়ানা পুলিশের তরফ থেকে উপ পুলিশ প্রধান ক্রিস বেইলি জানিয়েছেন, ''আবার বন্দুকধারীর তাণ্ডব ও মানুষ মারা যাওয়ায় আমরা ব্যথিত। গ্রিনউড হলো ইন্ডায়ানাপোলিসের শহরতলির এলাকা। এখানে ৬০ হাজার মানুষের বাস।''

ইন্ডিয়ানার গভর্নর এরিক হলকম্ব বলেছেন, তিনি পরিস্থিতির উপর নজর রাখছেন।

যা জানা যাচ্ছে

গ্রিনউড পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, মৃতদের মধ্যে বন্দুকধারীও আছে। মলে একজন সশস্ত্র মানুষ ছিলেন। তিনিই গুলি করে বন্দুকধারীকে মেরেছেন।

গ্রিনউডের পুলিশপ্রধান জিম আইসন জানিয়েছেন, বন্দুকধারী একটি রাইফেল হাতে নিয়ে গ্রিনউড পার্ক মলের প্রধান প্রবেশদ্বার দিয়ে ঢোকে এবং তারপর ফুড কোর্টে গিয়ে গুলি চালাতে থাকে। ঘটনাটি ঘটেছে স্থানীয় সময় ছয়টার সময়। আইসন জানিয়েছেন, তারা আরো এক বন্দুকধারীার খোঁজ করছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী কেউ থাকলে তারা যেন পুলিশের কাছে এসে বয়ান দেন।

২২ বছর বয়সি বন্দুকধারী

আইসন বলেছেন, বন্দুকধারীর বয়স ২২ বছর। সে বেআইনি অস্ত্র নিয়ে মলে ঢুকেছিল। তার দাবি, আসল হিরো হলেন সেই মানুষটি, যিনি আইনসঙ্গতভাবে অস্ত্র নিয়ে ফুডকোর্টে খেতে গিয়েছিলেন এবং বন্দুকধারী গুলি চালানো শুরু করতেই তিনিও গুলি চালান। সেই গুলিতে বন্দুকধারী মারা যায়। 

মে থেকে শুরু

গত মে থেকে অ্যামেরিকায় একের পর এক গুলিচালনার ঘটনা ঘটছে। বাফালোর দোকানে এক তরুণ বন্দুকধারী গুলি চালিয়ে ১০ জনকে হত্যা করে। টেক্সাসে বন্দুকধারী স্কুলে গুলি চালিয়ে ১৯ জন বাচ্চা-সহ ২১ জনকে হত্যা করেছিল। জুলাইতে হাইল্যান্ড পার্কে সমবেত জনতার উপর গুলি চালায় বন্দুকধারী।

একের পর এক গুলিচালনার ঘটনার পর অ্যামেরিকায় অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইন কড়া করার দাবি উঠেছে। কিন্তু এর উল্টোদিকেও প্রচুর মানুষ আছেন, যারা চান, অস্ত্র আইন যেন কড়া না হয়। অভিযোগ, রিপাবলিকান পার্লামেন্ট সদস্যদের উপর বন্দুক-লবির বিপুল প্রভাব আছে। তাই মার্কিন কংগ্রেসে অস্ত্র আইন কড়া করার প্রয়াস বারবার বানচাল হয়ে যায়।

জিএইচ/এসজি (এপি, ডিপিএ)

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

Bangladesch Aktivistinnen Protest Frauen Vergewaltigung

বিচার নেই বলে বাড়ছে শিশু ধর্ষণের ঘটনা

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ

প্রথম পাতায় যান