অ্যামেরিকায় প্রথম ওমিক্রন রোগী | বিশ্ব | DW | 02.12.2021

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

অ্যামেরিকা

অ্যামেরিকায় প্রথম ওমিক্রন রোগী

ক্যালিফোর্নিয়ায় এক ব্যক্তির শরীরে করোনার ওমিক্রন প্রজাতির নমুনা মিলেছে। তিনি সদ্য দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ফিরেছেন।

গত ২২ নভেম্বর সাউথ আফ্রিকা থেকে অ্যামেরিকায় ফিরেছেন এক ব্যক্তি। প্রাথমিক পরীক্ষায় তার করোনা ধরা পড়েনি। গত ২৯ নভেম্বর দ্বিতীয় টেস্টে তার করোনা ধরা পড়ে। এরপর জিনোম পরীক্ষায় দেখা যায় তার শরীরে ওমিক্রন প্রজাতি আছে। ওই ব্যক্তিকে সরকারি আইসোলেশন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। এই প্রথম অ্যামেরিকায় কারো শরীরে ওমিক্রন ভাইরাসের নমুনা মিলল।

মার্কিন প্রশাসন জানিয়েছে, ওই ব্যক্তির দুইটি টিকা নেওয়া আছে। তবে বুস্টার ডোজ নেওয়া নেই। জো বাইডেনের প্রধান স্বাস্থ্যবিষয়ক পরমার্শদাতা অ্যান্টনি ফাউচি জানিয়েছেন, বুস্টার ডোজ যাদের নেওয়া নেই, ওমিক্রনের সামান্য প্রভাব ঘটছে তাদের শরীরে। অল্প অল্প উপসর্গ দেখা যাচ্ছে। তবে রোগীরা সুস্থও হয়ে উঠছেন।

ফাউচি জানিয়েছেন, ‘‘আমরা জানতাম অ্যামেরিকায় ওমিক্রন ঢোকা কেবল সময়ের অপেক্ষা। ক্যালিফোর্নিয়ায় তা প্রথম পাওয়া গেল।’’ তবে স্বাস্থ্য দপ্তর জানিয়েছে, ওই ব্যক্তি যাদের সঙ্গে মিশেছেন তাদের শরীরে করোনা মেলেনি।

ওমিক্রন নিয়ে এখনো পরীক্ষা চলছে। এই ভাইরাস কতটা ভয়ংকর তা এখনো স্পষ্ট নয়। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, এই ভাইরাস শরীরে খুব বেশি প্রভাব ফেলছে না। তবে তা দ্রুত ছড়াচ্ছে বলেই মনে করছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

অ্যামেরিকায় ওমিক্রনের জন্য আবার দেশের বাইরে যাতায়াতে কড়াকড়ি শুরু হয়েছে। বিদেশ থেকে যারা আসছেন, তাদের সকলকে করোনা নেগেটিভ সংশাপত্র দেখা হচ্ছে। কেবল টিকার সার্টিফিকেট দেখালে হচ্ছে না। এছাড়াও বিদেশি যাত্রীদের অ্যামেরিকার বিমানবন্দরে নেমে করোনা পরীক্ষা করাতে হচ্ছে।

এসজি/জিএইচ (এপি, রয়টার্স)