অ্যামেরিকায় এবার কারখানায় গুলি, মৃত তিন | বিশ্ব | DW | 10.06.2022

ডয়চে ভেলের নতুন ওয়েবসাইট ভিজিট করুন

dw.com এর বেটা সংস্করণ ভিজিট করুন৷ আমাদের কাজ এখনো শেষ হয়নি! আপনার মতামত সাইটটিকে আরো সমৃদ্ধ করতে পারে৷

  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

অ্যামেরিকায় এবার কারখানায় গুলি, মৃত তিন

অ্যামেরিকায় আবার গুলিচালনার ঘটনা ঘটলো। এবার মেরিল্যান্ডের কারখানায়। এক বন্দুকধারী সহকর্মীদের গুলি করে। মৃত তিন।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

বন্দুকধারীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। তবে তার আগে পুলিশের গুলিতে সে আহত হয়েছিল। ওয়াশিংটনের শেরিফ জানিয়েছেন, ২৩ বছর বয়সি ওই বন্দুকধারী গুলি চালাবার পর গাড়িতে করে পালাবার চেষ্টা করছিল। তাকে ধরার পর হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছে পুলিশ।

কোন পরিস্থিতিতে বন্দুকধারী গুলি চালিয়েছে, কেন গুলি চালিয়েছে, সে বিষয়ে শেরিফ কিছু জানাতে চাননি। তিনি শুধু জানিয়েছেন, যাদের গুলি করে মারা হয়েছে, তারা কলম্বিয়া মেশিনের কর্মী ছিলেন। আর ২৩ বছর বয়সি বন্দুকধারীর হাতে সেমি-অটোমেটিক পিস্তল ছিল।

সম্প্রতি অ্যামেরিকায় একের পর এক গুলিচালনার ঘটনা ঘটেছে। স্কুল, মেডিক্যাল সেন্টার, শপিং মলে গুলি চলেছে। এরপর অস্ত্র আইন কড়া করার দাবি উঠেছে। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বারবার বলেছেন, এভাবে একের পর এক ঘটনায় মানুষের মৃত্যু তিনি আর সহ্য করতে পারছেন না।

মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভসে দিনকয়েক আগে অস্ত্র আইন কড়া করতে চেয়ে বিল পাস হয়েছে। এখন সেনেট সেই বিল পাস করলে তবে অস্ত্র আইনে পরিবর্তন আসবে। কিন্তু সেনেটে রিপাবলিকান সদস্যরা এই বিলে সায় দেবেন কিনা, তানিয়ে সংশয় আছে।

এই পরিস্থিতিতে আবার গুলি চললো, আবার মানুষ মারা গেলেন।

কলম্বিয়া মেশিনের মুখপাত্র জানিয়েছেন, তারা তদন্তের কাজে সবরকম সাহায্য করছেন। কোম্পানির ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে, তারা একশটি দেশে কংক্রিট তৈরির যন্ত্রপাতি সরবরাহ করে।

জিএইচ/এসজি (রয়টার্স)