1. কন্টেন্টে যান
  2. মূল মেন্যুতে যান
  3. আরো ডয়চে ভেলে সাইটে যান
প্রতীকী ছবি।
প্রতীকী ছবি। ছবি: Gaelen Morse/REUTERS
সমাজযুক্তরাষ্ট্র

অ্যামেরিকায় এবার কারখানায় গুলি, মৃত তিন

১০ জুন ২০২২

অ্যামেরিকায় আবার গুলিচালনার ঘটনা ঘটলো। এবার মেরিল্যান্ডের কারখানায়। এক বন্দুকধারী সহকর্মীদের গুলি করে। মৃত তিন।

https://www.dw.com/bn/%E0%A6%85%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A7%87%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A7%9F-%E0%A6%8F%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%B0%E0%A6%96%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A7%9F-%E0%A6%97%E0%A7%81%E0%A6%B2%E0%A6%BF-%E0%A6%AE%E0%A7%83%E0%A6%A4-%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%A8/a-62085745

বন্দুকধারীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। তবে তার আগে পুলিশের গুলিতে সে আহত হয়েছিল। ওয়াশিংটনের শেরিফ জানিয়েছেন, ২৩ বছর বয়সি ওই বন্দুকধারী গুলি চালাবার পর গাড়িতে করে পালাবার চেষ্টা করছিল। তাকে ধরার পর হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছে পুলিশ।

কোন পরিস্থিতিতে বন্দুকধারী গুলি চালিয়েছে, কেন গুলি চালিয়েছে, সে বিষয়ে শেরিফ কিছু জানাতে চাননি। তিনি শুধু জানিয়েছেন, যাদের গুলি করে মারা হয়েছে, তারা কলম্বিয়া মেশিনের কর্মী ছিলেন। আর ২৩ বছর বয়সি বন্দুকধারীর হাতে সেমি-অটোমেটিক পিস্তল ছিল।

সম্প্রতি অ্যামেরিকায় একের পর এক গুলিচালনার ঘটনা ঘটেছে। স্কুল, মেডিক্যাল সেন্টার, শপিং মলে গুলি চলেছে। এরপর অস্ত্র আইন কড়া করার দাবি উঠেছে। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বারবার বলেছেন, এভাবে একের পর এক ঘটনায় মানুষের মৃত্যু তিনি আর সহ্য করতে পারছেন না।

মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভসে দিনকয়েক আগে অস্ত্র আইন কড়া করতে চেয়ে বিল পাস হয়েছে। এখন সেনেট সেই বিল পাস করলে তবে অস্ত্র আইনে পরিবর্তন আসবে। কিন্তু সেনেটে রিপাবলিকান সদস্যরা এই বিলে সায় দেবেন কিনা, তানিয়ে সংশয় আছে।

এই পরিস্থিতিতে আবার গুলি চললো, আবার মানুষ মারা গেলেন।

কলম্বিয়া মেশিনের মুখপাত্র জানিয়েছেন, তারা তদন্তের কাজে সবরকম সাহায্য করছেন। কোম্পানির ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে, তারা একশটি দেশে কংক্রিট তৈরির যন্ত্রপাতি সরবরাহ করে।

জিএইচ/এসজি (রয়টার্স)

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

ডয়চে ভেলের শীর্ষ সংবাদ

Dhaka Universität Demonstration Lehrer und Eltern

মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি, ছাত্রলীগের কেন্দ্রেই গলদ

স্কিপ নেক্সট সেকশন ডয়চে ভেলে থেকে আরো সংবাদ
প্রথম পাতায় যান