অস্ট্রীয় ও পোলিশের হাতে সাহিত্যে নোবেল | বিশ্ব | DW | 10.10.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

নোবেল

অস্ট্রীয় ও পোলিশের হাতে সাহিত্যে নোবেল

অস্ট্রিয়ার পেটার হান্ডকে চলতি বছর সাহিত্যে নোবেল পেলেন৷ আর পোল্যান্ডের অলগা তকারচোক ২০১৮ সালের নোবেলজয়ী হয়েছেন৷ যৌন কেলেংকারি বিতর্কে গতবছর সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার ঘোষণা করা হয়নি৷

সুইডিশ অ্যাকাডেমি বৃহস্পতিবার একসঙ্গে দুই বছরের নোবেল বিজয়ীর নাম ঘোষণা করেছে৷ এক বিবৃতিতে সংস্থাটি বলেছে, হান্ডকে নোবেল পাচ্ছেন ‘একটি শক্তিশালী লেখনির জন্য, যা ভাষাগত দক্ষতার সঙ্গে মানুষের অভিজ্ঞতার পরিধি ও বৈশিষ্ট্য অনুসন্ধান করেছে৷'

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ইউরোপের অন্যতম শক্তিশালী লেখক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করেন ৭৬ বছর বয়সি হান্ডকে৷ ১৯৮৭ সালে মুক্তি পাওয়া আলোচিত ‘উইংস অফ ডিজায়ার' মুভির একজন লেখক ছিলেন তিনি৷

এদিকে ‘সীমানা অতিক্রমকে জীবনের রূপে তুলে ধরার মতো কাল্পনিক বর্ণনা'র জন্য তকারচোককে ২০১৮ সালের নোবেল দেয়া হয়েছে৷

তিনি তাঁর লেখায় অতীতে যে পোল্যান্ডে সব গোত্রের মানুষ একসঙ্গে বাস করতো, সেই পোল্যান্ডের গল্প তুলে ধরেছেন৷ সে কারণে দেশটিতে এখন ক্ষমতায় থাকা জাতীয়তাবাদীদের কাছে তিনি প্রিয় নন৷ পোল্যান্ডের সংস্কৃতিমন্ত্রী সম্প্রতি বলেছেন, তিনি তকারচোকের লেখা পড়ার চেষ্টা করেছেন, কিন্তু একটিও শেষ করতে পারেননি৷

৫৭ বছর বয়সি তকারচোক মনোবিজ্ঞানে পড়ালেখা করেছেন৷ ১৯৯৩ সালে তাঁর প্রথম উপন্যাস প্রকাশিত হয়৷ ‘ফ্লাইট' নামে একটি উপন্যাসের জন্য গতবছর প্রথম পোলিশ হিসেবে ‘ম্যান বুকার ইন্টারন্যাশনাল প্রাইজ' জিতেছিলেন৷

২০১৭ সালের মি-টু আন্দোলনের সময় অন্তত ১৮ জন নারী ফরাসি-সুইডিশ আর্টিস্টিক ডাইরেক্টর জ্য-ক্লঁদ আর্নোর বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ এনেছিলেন৷ এরমধ্যে অন্তত দুটি ঘটনার জন্য আড়াই বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়৷

জ্য-ক্লঁদ আর্নোর স্ত্রী কাটারিনা ফ্রস্টেনসন সাহিত্যে নোবেল ঘোষণাকারী প্রতিষ্ঠান সুইডিশ অ্যাকাডেমির একজন সদস্য৷ এই দম্পতি অন্তত সাতবার বন্ধুবান্ধবদের কাছে নোবেলজয়ীর নাম আগেই প্রকাশ করেছেন বলে অভিযোগ সুইডিশ অ্যাকাডেমির৷ বন্ধুদের বাজিতে জেতাতে ঐ দম্পতি নাম প্রকাশ করেন বলে এই অভিযোগ৷ তাই ২০১৮ সালে সাহিত্যে নোবেলজয়ীর নাম ঘোষণা করা হয়নি৷ এরপর চলতি বছর অ্যাকাডেমিতে পরিবর্তন এনে একসঙ্গে দুই বছরের নোবেলজয়ীর নাম ঘোষণা করা হলো৷

জেডএইচ/কেএম (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন