অভ্যন্তরীণ কোন্দল ঠেকাতে কঠোর আওয়ামী লীগ | বিশ্ব | DW | 10.11.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বাংলাদেশ

অভ্যন্তরীণ কোন্দল ঠেকাতে কঠোর আওয়ামী লীগ

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শুধু প্রতিপক্ষ নয়, অভ্যন্তরীণ কোন্দল আর সহিংসতা এড়ানোও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ৷ বিশ্লেষকরা বলছেন, যারা দলের সিদ্ধান্ত মানবেন না, বুঝতে হবে তারা সুবিধাবাদী৷

নির্বাচনের সময় অভ্যন্তরীণ কোন্দল মোকাবিলায় আওয়ামী লীগ শক্ত অবস্থানে থাকবে বলে জানা গেছে৷ দলটির নীতিনির্ধারণী ফোরামের সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক এই বিষয়ে ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘আওয়ামী লীগ একটা বড় দল৷ এখানে অনেকেই মনোনয়ন চাইবেন৷ সবাইকেতো আর মনোনয়ন দেয়া যাবে না৷ তবে যারা দলের সিদ্ধান্ত মানবেন না, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর দলীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে৷ পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছেও বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ জানানো হবে৷ এই ধরনের কোন্দলে যিনিই জড়িত হোন না, তিনি যত বড় নেতাই হোন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে৷'' 

অডিও শুনুন 01:19
এখন লাইভ
01:19 মিনিট

‘সবাইকেতো আর মনোনয়ন দেয়া যাবে না’

সর্বশেষ শনিবার রাজধানীর মোম্মদপুর-আদাবর এলাকায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী দুই নেতার সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে৷ সেখানে গাড়ি চাপা পড়ে দুই কিশোর নিহত হয়েছেন৷ তাদের পরিচয় নিয়ে বিভ্রান্তি রয়েছে৷ ওই এলাকার বর্তমান সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবির নানক৷ এবার এখানে মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন ঢাকা মহানগর (উত্তর) আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান৷ এই দুই নেতার সমর্থকদের মধ্যে বেশ কিছুদিন ধরেই মোহাম্মদপুর-আদাবর এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছিল৷

আদাবর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাওসার আহমেদ জানান, শনিবার আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধেছিল৷ তারা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছেন৷ এখনও এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে৷ পুলিশ নজরদারি অব্যহত রেখেছে৷ নতুন করে সংঘাত এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে৷ 

অডিও শুনুন 03:21
এখন লাইভ
03:21 মিনিট

‘নির্বাচনের আগে এমনটাই আমরা দেখে আসছি’

নির্বাচনের সময় আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দল প্রসঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘নির্বাচনের আগে এমনটাই আমরা দেখে আসছি৷ আর আওয়ামী লীগের মত একটা বড় দলেরতো এই ধরনের সমস্যা হতেই পারে৷ তবে আমি মনে করি সবাইকে দলের সিদ্ধান্ত মেনে নিতে হবে৷ যারা মানবেন না, বুঝতে হবে তারা সুবিধাবাদী৷ এদের ব্যাপারে নীতি নির্ধারকদের সতর্ক থাকতে হবে৷''

তিনি বলেন, ‘‘ইতিমধ্যে দলে এই ধরনের অনেক সুবিধাবাদী ঢুকে গেছে৷ এদের নিয়ন্ত্রণে রাখা তো আওয়ামী লীগের জন্য একটা চ্যালেঞ্জ বটেই৷ নীতি নির্ধাধারকরা নিশ্চত এ বিষয়ে সতর্ক আছেন৷''

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার প্রধান নির্বাচন কমিশনার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিয়ে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই আওয়ামী লীগের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে নির্বাচনী উত্তাপ শুরু হয়েছে৷ ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর কার্যালয় থেকে মনোনয়নপত্র বিতরণ করা হচ্ছে৷ আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ বেশ কয়েকজন সিনিয়র নেতার পক্ষে ইতোমধ্যে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করা হয়েছে৷

শনিবার ছিল মনোনয়নপত্র বিক্রির দ্বিতীয় দিন৷ এ দিন আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া সাংবাদিকদের জানালেন, রবিবার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম তুলবেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের (ওয়ানডে) অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা এবং টি-টোয়েন্টি ও টেস্ট দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান৷ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে তাদের এ ব্যাপারে কথা হয়েছে বলেও জানালেন বিপ্লব৷ মাশরাফির নড়াইল থেকে আর সাকিবের মাগুরা থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার কথা আগেই প্রচার হয়েছে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন