অভিবাসন প্রত্যাশীদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে ব্রিটেন | বিশ্ব | DW | 27.08.2015
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

অভিবাসন প্রত্যাশীদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে ব্রিটেন

অভিবাসন প্রত্যাশীদের বিরুদ্ধে খুব কঠোর অবস্থান নেবে ব্রিটেন৷ সে দেশের অভিবাসন মন্ত্রী জানিয়েছেন, কেউ অবৈধভাবে প্রবেশ করলে তাঁকে জেলে পাঠানো হবে, অবৈধভাবে কাজ করলে তাঁর বেতনের টাকাও জব্দ করা হবে৷

এ বছরই সংসদে অভিবাসন বিল উত্থাপন করবেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন৷ তবে বিল পাশ হয়ে আইন হওয়ার আগেই তা নিয়ে শুরু হয়ে গেছে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা৷ ক্যামেরন সরকার অভিবাসনপ্রত্যাশীদের বিরুদ্ধে যেসব ব্যবস্থার পরিকল্পনা করছে সেগুলোর সমালোচনা করছেন অনেকেই৷ ব্যাপক হারে অভিবাসী গ্রহণের বিরোধীতা করা ইউকিপ পার্টিও মনে করে সরকার যা করতে যাচ্ছে তা সম্পূর্ণই রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত, শুধু ভোট বাড়ানোর লক্ষ্য থেকেই এত কঠোর অবস্থান নিতে যাচ্ছে সরকার৷

ব্রিটেনের অভিবাসন মন্ত্রী জেমস ব্রোকেনশায়ার বলেছেন, ‘‘কেউ যদি অবৈধভাবে এখানে আসেন, আমরা তাঁর কাজ বন্ধ করে দেবো, বাড়ি ভাড়া নেয়া, ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট খোলা এবং গাড়ির লাইসেন্স নিতেও বাধা দেবো৷'' তিনি আরো জানিয়েছেন, অবৈধভাবে কেউ ব্রিটেনে গিয়ে চাকরি নিলে তাকে ছয়মাসের জন্য জেলে পোরা হবে, তার নিয়োগদাতারও লাইসেন্স বাতিল করা হবে৷

ব্রিটেনে অভিবাসন আইন কঠোর করার দাবিতে অনেক দিন ধরেই সোচ্চার মাইগ্রেশন ওয়াচ৷ এই সংগঠনের এক কর্মকর্তা সরকারের বর্তমান অভিবাসননীতিকে সমর্থন জানিয়েছেন৷ তবে অভিবাসীদের প্রতি সহানুভূতিশীল সংগঠনগুলো সরকারের সমালোচনা করছে৷ এমনকি ইউকিপ পার্টিও মনে করে, সরকার শুধু ভোটের জন্যই এত কঠোর পদক্ষেপ নিতে চলেছে৷ ইউকিপ-এর মুখপাত্র বলেছেন, সরকার যে হারে অবৈধ অভিবাসনপ্রত্যাশীদের জেলে পাঠানোর কথা ভাবছে, তেমন হলে অভিবাসনপ্রত্যাশীদের ভিড় কমবে না, বরং ভিড়ে কারাগার উপচে পড়বে৷

এসিবি/ডিজি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়