অভিবাসনবিরোধী উসকানি দিয়ে অবৈধ অস্ত্র বিক্রি | বিশ্ব | DW | 19.12.2018
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

জার্মানি

অভিবাসনবিরোধী উসকানি দিয়ে অবৈধ অস্ত্র বিক্রি

অভিবাসীদের বিরুদ্ধে লড়তে জার্মানদের অস্ত্র রাখার আহ্বান জানিয়েছিলেন কট্টর ডানপন্থি কর্মী মারিও আর৷ বর্ণবাদী মনোভাবকে উসকে দিয়ে অবৈধ অস্ত্র বিক্রির অভিযোগে তাকে কারাদণ্ড দিয়েছে জার্মানির একটি আদালত৷

অভিবাসনবিরোধী একটি ওয়েবসাইটে ১৬৭ টি অস্ত্র অবৈধভাবে বিক্রির অভিযোগে মারিও আর-কে দুই বছর ১০ মাস কারাদণ্ড দিয়েছে জার্মানির ঐ আদালত৷ পাশাপাশি অবৈধ অস্ত্র বিক্রির ৯৯ হাজার ১০০ ইউরো অর্থ বাজেয়াপ্তের নির্দেশ দেয়া হয়েছে৷ জার্মানির ব্যক্তিগত তথ্য সংরক্ষণ আইনের কারণে মারিও আর-এর পারিবারিক উপাধি প্রকাশ করা হয়নি৷

৩৫ বছর বয়সি এই জার্মান ‘মিগ্রান্টেনশ্রেক' নামে একটি ওয়েবসাইট চালান৷ ওয়েবসাইটে অভিবাসীদের বিরুদ্ধে জার্মানদের উসকানোর পাশাপাশি শরণার্থীদের থেকে নিজেদের সুরক্ষার জন্য অস্ত্র কিনতে উৎসাহিত করা হয়৷

ওয়েবসাইটে বেশ কয়েকটি টিউটোরিয়াল ভিডিও আছে, যেখানে কার্ডবোর্ড দিয়ে বিভিন্ন শরণার্থী এবং জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলের প্রতিকৃতি বানিয়ে বিভিন্ন অস্ত্র দিয়ে সেগুলোতে আঘাত করা হয়৷ সেখানে বলা হয়েছে ‘‘নিজেকে এবং নিজের পরিবারকে রক্ষা করুন৷''

অভিযোগে বলা হয়েছে, ২০১৬ সালের মে মাস থেকে নভেম্বর পর্যন্ত মারিও হাঙ্গেরি থেকে অস্ত্র কিনে জার্মানিতে বিক্রি করেছেন৷ তবে শুনানিতে মারিও বলেছেন, তিনি জার্মানির আইন সম্পর্কে অবহিত ছিলেন না৷ তার এখনো আপিলের সুযোগ রয়েছে৷ ২০১৬ সালে বুদাপেস্ট থেকে ইউরোপীয় গ্রেপ্তারি পরোয়ানার জেরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল৷

এপিবি/এসিবি (এপি, এএফপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন