অবশেষে অভিজিৎ হত্যা মামলায় অভিযোগপত্র চূড়ান্ত | বিশ্ব | DW | 18.02.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বাংলাদেশ

অবশেষে অভিজিৎ হত্যা মামলায় অভিযোগপত্র চূড়ান্ত

২০১৫ সালে লেখক-ব্লগার অভিজিৎ রায় হত্যা মামলায় ছয়জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র চূড়ান্ত করেছে পুলিশ৷ অনুমোদনের জন্য এটি আজ সোমবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের এক মুখপাত্র৷

২০১৫ সালে বইমেলা চত্বরে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিক অভিজিৎ রায়কে কুপিয়ে হত্যা করা হয়৷ এই হামলায় অভিজিৎ রায়ের স্ত্রী রাফিদা আহমেদ বন্যাও আহত হন৷

অভিযোগপত্রে নাম থাকা ছয়জনের মধ্যে দুইজন এখনও পলাতক বলে জানান ঢাকা পুলিশের মুখপাত্র মাসুদুর রহমান৷ এদের মধ্যে সেনাবাহিনী থেকে চাকরিচ্যুত হওয়া মেজর সৈয়দ জিয়াউল হকের নামও রয়েছে৷

উল্লেখ্য, দুই দশক ধরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বাসিন্দা অভিজিৎ রায় তাঁর ‘মুক্তমনা' ব্লগের কারণে চরমপন্থিদের রোষের মুখে পড়েন৷ এই ব্লগটি মূলত প্রাতিষ্ঠানিক ধর্মের নানা দিকের সমালোচনা করে৷ উল্লেখ্য, অভিজিতের লেখা একটি বই, ‘বিশ্বাসের ভাইরাস', বাংলাদেশে বিতর্কিত হয়েও জনপ্রিয় হয়ে ওঠে৷

২০১৩-১৪ সাল থেকে ধর্মনিরপেক্ষ ও নাস্তিক ব্লগারদের পাশাপাশি সমকামী অ্যাক্টিভিস্টদের ওপর একাধিক হামলায় জড়িত রয়েছে আনসার আল ইসলাম৷ এর প্রেক্ষিতে দেশ ছাড়তে শুরু করেন অনেকেই৷

 ২০১৬ সালে হোলি আর্টিজান হামলার পর বাংলাদেশ সরকার আনসার আল ইসলামসহ অন্যান্য চরমপন্থি সংগঠনের ওপর নজরদারি শুরু করে৷

এখন পর্যন্ত প্রায় একশ'র কাছাকাছি জঙ্গি পুলিশের হাতে মারা গেছেন ও জেলবন্দি আছেন প্রায় শতাধিক৷

এসএস/জেডএইচ (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়

বিজ্ঞাপন