অন্তর্বর্তীকালীন সরকার প্রধানের পদত্যাগ: সুদানে বিক্ষোভ চলছে | বিশ্ব | DW | 13.04.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

অন্তর্বর্তীকালীন সরকার প্রধানের পদত্যাগ: সুদানে বিক্ষোভ চলছে

গণতান্ত্রিক নির্বাচন আয়োজনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় আসার একদিন পরই পদত্যাগ করেছেন সুদানের সামরিক কাউন্সিলের প্রধান আওয়াদ ইবন আউফ৷ লেফটেন্যান্ট জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহানকে তার উত্তরসূরি ঘোষণা করা হয়েছে৷

শুক্রবার দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে দেওয়া এক ঘোষণায় আউফ নিজেই পদত্যাগের কথা জানান৷ এ সময় তিনি দেশটির সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহানকে তাঁর উত্তরসূরি হিসেবে ঘোষণা দেন৷

সামরিক কাউন্সিলের এই প্রধান ক্ষমতাচ্যুতসাবেক শাসক ওমর আল-বশিরের ঘনিষ্ঠ - এমন দাবিতে বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছিলেন আন্দেলনকারীরা৷ বিক্ষোভকারীদের দাবি, বশিরের ঘনিষ্ঠ আওয়াদ ইবন আউফ সামরিক কাউন্সিলের প্রধান হিসেবে আন্দোলনের মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারেন৷ ফলে ক্ষমতা গ্রহণের একদিন পরই আন্দোলনকারীদের দাবির মুখে পদত্যাগ করতে হয়েছে তাঁকে৷

এদিকে, গত দু'দিনের বিক্ষোভে অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যমগুলো৷ একজন পুলিশ কর্মকর্তার উদ্ধৃতি দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, গত বৃহস্পতিবার ও শুক্রবারের বিক্ষোভে পুলিশের গুলিতে অন্তত ২০ ব্যক্তি নিহত হয়েছেন৷ এ সময় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন বলেও জানা গেছে৷ পুলিশের দাবি, বিক্ষোভকারিরা বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি স্থাপনা ভাঙচুর করছিল৷ 

টানা কয়েক মাসের বিক্ষোভে দেশটিতে ৩০ বছর ধরে ক্ষমতায় থাকা শাসক ওমর আল-বশির ক্ষমতাচ্যুত হলেও  বিক্ষোভ চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে আন্দোলনকারীরা৷ একটি গণতান্ত্রিক সরকার ক্ষমতায় না আসা পর্যন্ত এ আন্দোলন চলবে বলে জানিয়েছেন বিক্ষোভে নেতৃত্বদানকারী সংগঠন সুদানিজ প্রোফেশনাল এসোসিয়েশন৷

আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচনা

নতুন করে ক্ষমতায় আসা লেফটেন্যান্ট জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ বুরহান আজ রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে ভাষণ দেওয়ার কথা রয়েছে৷ তিনি আন্দোলনকারীদের সাথে আলোচনায় বসবেন বলেও জানা গেছে৷ মিলিটারি কাউন্সিলের রাজনৈতিক শাখার প্রধান ওমর যায়িন আল-আবেদীন জানান, চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতির বিষয়ে তারা দেশের রাজনৈতিক দলগুলোর সাথে আলোচনায় বসবে৷ তার আগে, সামরিক কাউন্সিল ঘোষণা দেয় যে, আগামী দুই বছরের মধ্যে তারা একটি অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের আয়োজন করবে৷ দেশটির সেনাবাহিনী দাবি করেছে, তারা ক্ষমতায় থাকতে চাননা আর সুদানের রাজনৈতিক ভবিষ্যত নির্ধারণ করবে দেশটির জনগণ৷

নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বেড়ে যাওয়ায় গত ডিসেম্বর থেকে শুরু হওয়া আন্দোলনের কয়েক মাসের মাথায় ওমর আল-বশিরকে সরে যেতে হয়েছে৷ এ সময়ে বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে৷

আরআর/এআই (রয়টার্স, ডিপিএ, এপি, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন