অনর্থক কথা বলবেন না: নরসুন্দরদের বললেন পোপ | বিশ্ব | DW | 30.04.2019
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

বিশ্ব

অনর্থক কথা বলবেন না: নরসুন্দরদের বললেন পোপ

নাপিত বা নরসুন্দরদের প্রতি পোপ ফ্রান্সিসের আহ্বান, ‘‘অনর্থক কথা বলার উত্তেজনা প্রশমন করুন৷'' ষোড়শ শতকের এক সেইন্টের উদাহরণ টেনে তিনি তাঁকে অনুসরণ করার পরামর্শ দেন৷

সোমবার হেয়ারড্রেসার, হেয়ার স্টাইলিস্ট ও বিউটিশিয়ানদের সামনে বক্তব্য রাখছিলেন পোপ ফ্রান্সিস৷ এ সময় তিনি তাঁদের কাজের সময় অপ্রয়োজনীয় কথা বলা বন্ধ করার পরামর্শ দেন৷

‘‘খ্রিস্টীয় পদ্ধতি অনুসরণ করুন৷ গ্রাহকদের দয়া ও সৌজন্য প্রদর্শন করুন৷ সু্ন্দর ও উৎসাহব্যঞ্জক বাক্য ব্যবহার করুন,'' বলেন তিনি৷ 

‘‘আর খোশগল্পের উত্তেজনা প্রশমন করুন, যা আপনাদের পেশায় প্রায়ই দেখা যায়,'' যোগ করেন তিনি৷

ভ্যাটিকানে এই সভায় তিনি উপস্থিত ২৩০ জনের এই দলটিকে সেইন্ট মার্টিনো দ্য পোরেস (১৫৭৯-১৬৩৯)-কে অনুসরণ করার আহ্বান জানান৷

তিনি চুল কাটতেন এবং শল্য চিকিৎসকও ছিলেন৷ বলা হয়, তিনি শূন্যে ভাসতে পারতেন, একসঙ্গে দুই জায়গায় থাকতে পারতেন, তড়িৎ রোগ সারাতে পারতেন এবং পশুপাখির ভাষা বুঝতেন৷ তিনি মিশ্রজাতির মানুষকে সহযোগিতা করতেন৷

সেই সেইন্টের জীবন থেকে শিক্ষা নেবার আহ্বান জানিয়ে পোপ বলেন, ‘‘আপনারা প্রত্যেকে পেশাগত জীবনে ন্যায়পরায়ণতা বজায় রাখতে পারেন৷ এতে সমাজের সবার ভালো হবে৷''

২০১৫ সালে পোপ ভ্যাটিকানে গৃহহীনদের জন্য একটি চুল কাটার সেলুন খোলেন৷ সোমবার অন্য সব সেলুন বন্ধ থাকলেও এটি খোলা থাকে৷ স্বেচ্ছাসেবীরা সেখানে কাজ করেন৷

জেডএ/এসিবি (এএফপি, কেএনএ, ইপিডি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

বিজ্ঞাপন