‘অটোপাস’ সিদ্ধান্ত নিয়ে পাঠকদের প্রতিক্রিয়া | পাঠক ভাবনা | DW | 09.10.2020
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages
বিজ্ঞাপন

পাঠক ভাবনা

‘অটোপাস’ সিদ্ধান্ত নিয়ে পাঠকদের প্রতিক্রিয়া

করোনার কারণে এইচএসসিতে সবাই পাস৷ সরকারের এই ‘অটোপাস' সিদ্ধান্তকে অনেকে স্বাগত জানালেও কেউ কেউ অযৌক্তিকও বলেছেন৷

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

‘‘সবকিছুই স্বাভাবিক ভাবে চলছে, শুধু পরীক্ষার জন্য এই সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণ ভুল৷ হাট, ঘাট, মসজিদ, মন্দিরসহ সব কিছু খোলা ও মানুষের অবাধ চলাচল-মেলামেশা, সেখানে করোনার অজুহাতে পরীক্ষা না নেওয়া স্রেফ হাস্যকর৷ এতে প্রায় ১৪ লাখ শিক্ষার্থীর প্রত্যেকেই চাকুরি জীবনে যেমন সাফার করবে, তেমনি তাদের এই সার্টিফিকেট তাদেরকে সব সময় অসন্তুষ্ট রাখবে৷’’ ডয়চে ভেলের ফেসবুক পাতায় এভাবেই নিজের মতামত তুলে ধরেছেন মনসুর পারভেজ৷

‘‘করোনার দোহাই দিয়ে শিক্ষাজীবনে এইচএসসি-র মতো এত গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা বন্ধ করা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনেক বড় ভুল সিদ্ধান্ত৷ এর মাধ্যমে বাংলাদেশে ক্রমান্বয়ে নিম্ন মানের দিকে যাওয়া শিক্ষা ব্যবস্থা পুরো পুরি ভেঙে পড়বে৷’’ মন্তব্য পাঠক সোহেল রানার৷

‘অটোপাস’ সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে পাঠক ইলিয়াস আহমেদ লিখেছেন, ‘‘যেখানে মানুষ মাস্ক ছাড়াই বাজার, গাড়ি, রাস্তাঘাটে স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করছে, সেখানে এরকম সিদ্ধান্ত নেওয়া যুক্তিসঙ্গত নয়৷ কেউ আর নির্দিষ্টভাবে করোনাকে গুরুত্ব দিচ্ছেন না৷ এতে মেধাবী শিক্ষার্থীরা একটু পিছিয়ে যেতে পারে৷ অনেক খারাপ ছাত্র আছে, যারা এসএসসিতে ভালো রেজাল্ট করতে পারেনি, এইচএসসিতে ভালো রেজাল্ট করবে বলে আশা করেছিল৷ সার্বিক দিক বিবেচনা করলে বোঝা যায় যে, অটোপাস সিদ্ধান্ত অযৌক্তিক৷’’

পাঠক আহমেদ মনে করেন, এতে মেধাবী ছাত্রদের মূল্যায়ণ কমে যাবে৷ সব কিছু খোলা, শুধু স্কুল কলেজে এ সমস্যা? প্রশ্ন মোহাম্মদ ওমর ফারুকের৷ পাঠক জীবন বর্মন, হায়দার খান ও আবদুল্লাহ মামুনের মতে, এই সিদ্ধান্ত অযৌক্তিক ও ভুল৷

এদিকে পুরো উল্টো মত পাঠক রুবেল হাসান, মৃদুল রহমানের৷ তারা বলছেন, সিদ্ধান্তটি খুবই সময়োপযোগী ও ইতিবাচক৷

তবে ফজলে মনির চৌধুরীর বিশ্বাস এই সময়ে পরীক্ষা নিলে সরকারের অনেক সমালোচনা হতো৷ তিনি বলেন, বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নিয়েই তো সরকার পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷

আর বর্তমান পরিস্থিতিকে মেনে নেওয়াই পাঠক মোহাম্মদ রানার যুক্তিযুক্ত বলে মনে করেন আর সেকথা তিনি জানিয়েছেন এভাবে, ‘‘সেরা সিদ্ধান্ত৷ দেখুন এটা নিয়ে যারা সমালোচনা করছে, যদি পরিক্ষা নিয়ে করোনা আক্রান্ত হয়ে কোনো শিক্ষার্থী মারা যায় সেটা নিয়েও তারা আরো বেশি সমালোচনা করতো৷ রেজাল্ট নিয়ে কিছু শিক্ষার্থীর হয়ত কিছুটা ক্ষতি হতে পারে, তবে বর্তমান প্রেক্ষাপটে জাতীয় স্বার্থে এটা মেনে নিতে হবে৷’’

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: আশীষ চক্রবর্ত্তী