1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

৯২’র বিশ্বকাপের প্রতিশোধ নিলো পাকিস্তান

দশ উইকেটের বড় ব্যবধানে কোয়ার্টার ফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারালো পাকিস্তান৷ জায়গা করে নিলো সেমিফাইনালে৷

default

ঢাকার শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিং এ নেমে ৪৩ ওভার ৩ বলে ১১২ রানে গুটিয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ৷ তারপর খুব সহজেই ২০ ওভার ৫ বলেই জয়ের লক্ষ্য ১১৩ রানে পৌঁছে যায় পাকিস্তান৷ এর জন্য তাদের একটি উইকেটও হারাতে হয়নি৷ ওয়েস্ট ইন্ডিজ যে এভাবে হারবে সেটা বোধহয় কেউই ভাবতে পারেনি, সুতরাং এটা অপ্রত্যাশিতই৷ বিশেষ করে কোয়ার্টার ফাইনালের মত ম্যাচে৷

বিশ্বকাপে ১০ উইকেটের দশম জয় এটি৷ আর পাকিস্তানের জন্য প্রথম৷ অন্যদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের জন্য এটি একটি বড় পরাজয়৷ কেননা, এই প্রথম বিশ্বকাপে ১০ উইকেটে হার মানলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ৷ তবে মজার ব্যাপার হচ্ছে ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপে ঘটেছিল এর ঠিক উল্টোটা৷ সেইবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে ১০ উইকেটে হেরেছিল পাকিস্তান৷ এক হিসেবে এটি প্রতিশোধ বলা চলে৷ অন্যদিকে এবারের বিশ্বকাপের আর কোন খেলায় উদ্বোধণী জুটিতে এত রান তুলতে পারেনি পাকিস্তান৷

জয়ের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নেমেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বোলারদের ওপর চড়াও হন পাকিস্তানের দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হাফিজ ও কামরান আকমল৷ কেমার রোচ, রবি রামপল, দেবেন্দ্র বিশু ও অধিনায়ক ড্যারেন সামিকে কোন সুযোগই দেননি তারা৷ জয় শেষে হাফিজ যখন সাজঘরে ফেরেন তখন তার রান ছিল ৬১৷ হাফিজ তার ৬৪ বলের ইনিংসটি সাজান ১০টি চার দিয়ে৷ বিশ্বকাপে তার প্রথম অর্ধশতক এটি৷ অন্যপ্রান্তে ৪৭ রানে অপরাজিত ছিলেন কামরান৷ তার ৬১ বলের ইনিংসে ৪ রয়েছে ৭টি৷ এরআগে ব্যাট করতে নেমে ১৪ রানের মাথায় প্রথমেই সাজঘরের পথ ধরতে হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল৷ তারপরেই শুরু হয়ে যায় ব্যাটসম্যানদের আসা যাওয়া৷ ৭১ রানের মধ্যে ৮ উইকেট হারায়৷ তখন দলের রান ১০০ হবে কিনা তা নিয়েই শন্কা দেখা যায়৷ কিন্তু চন্দরপালে ৪৪ রানের কল্যানে একশ'র ঘর পার হয় ক্যারিবীয়রা৷

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: রিয়াজুল ইসলাম

সংশ্লিষ্ট বিষয়