1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

৮৪ বছর বয়সে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী মুইরার

শিক্ষার জন্য বয়স কখনো বাধা হতে পারে না৷ বুড়ো হয়েও শিক্ষার আলোয় আলোকিত হওয়ার পথ খোলা থাকে৷ এমন কথা শুধু নীতি বাক্যই নয়, বাস্তবেও তা ঘটতে পারে - এমন প্রমাণ দিলেন ৮৪ বছর বয়সি কেনীয় নাগরিক অ্যালান নিওরোগে মুইরা৷

default

শিখতে চাইলে বয়স কোন বাধা নয়, প্রমাণ করলেন মুইরা (ফাইল ফটো)

বয়স এখন ৮৪৷ আট সন্তানের জনক মুইরা৷ ৬০ বছর আগে ব্রিটিশ উপনিবেশ শাসনামলে তাঁকে বাধ্য করা হয়েছিল বিদ্যালয় ছাড়তে৷ ১৯৪৪ থেকে ১৯৫০ সাল পর্যন্ত মিশন স্কুলে পড়েছিলেন তিনি৷ কিন্তু তারপরেই আটক হন জরুরি আইন চলাকালে৷ দীর্ঘদিন কারাভোগের পর মুক্তি পেলেও শিক্ষা গ্রহণ আর ভাগ্যে জোটেনি মুইরার৷

৬০ বছর পর এখন তো আর উপনিবেশিকরা নেই৷ সুতরাং শিক্ষার সুযোগ গ্রহণে বাধা কিসের? আর বয়স হলেই কী হলো, শিক্ষার ক্ষেত্রে লজ্জার কিছু নেই৷ এমন উৎসাহমূলক চিন্তা-ভাবনার পর গত বছর নতুন করে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছিলেন মুইরা৷ শুধু ভর্তিই নয়, দুই বছর বেশ আগ্রহ নিয়ে লেখাপড়া করে এবার বসেছেন প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী সনদের জন্য নির্ধারিত পরীক্ষায়৷

কেবিসি টেলিভিশনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মুইরা বলেন, লেখাপড়া চালিয়ে যেতে চেয়েছিলেন তিনি৷ খুব শখ ছিল আইন বিষয়ে পড়ার৷ তিনি বলেন, সারাজীবনই তিনি বঞ্চনার শিকার হয়েছেন৷ তাঁর কাছ থেকে কেড়ে নেওয়া হয়েছে তাঁর জমিজমা৷ তাঁকে না জানিয়েই এসব জমি ভাগবাটোয়ারা করা হয়েছে৷ তাই তিনি লেখাপড়া শিখে তাঁর হারানো জমি উদ্ধার করতে চান মুইরা৷

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ