1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

৬৬ বছরে জানলেন ভুল, ভুল, ভুল...

১০ বছর বয়স থেকেই সমস্যা৷ বুঝতে পারেননি৷ সেটা বুঝলে ৬৬ বছর বয়সে এত অবাক হতে হতো না তাঁকে৷ তলপেট একটু ফুলে যাওয়ায় ডাক্তারের কাছে গেলেন, গিয়ে জানলেন পুরুষ হিসেবে জীবনের এতটা সময় পার করলেও তিনি আসলে মেয়ে!

হংকং মেডিক্যাল জার্নালে ছাপা হয়েছে এমন বিস্ময়কর এক প্রতিবেদন৷ দাড়ি-গোঁফ আছে, পুরুষাঙ্গও আছে – এমন একজন মেয়ে হন কী করে! চিকিৎসাশাস্ত্র বলছে, টার্নার সিন্ড্রোম বলে একটি ব্যাপার আছে, যা বড় সমস্যা হয়ে দেখা দেয় মেয়েদের জীবনে৷ আড়াই থেকে তিন হাজারের মধ্যে মাত্র একজন মেয়ের হতে পারে এমন সমস্যা৷ অথচ শুরুতে যা হয় তা কারো মনে সামান্য দুশ্চিন্তাও জাগাবে না৷ ক্রোমোজমে একটু গোলমালের কারণে সন্তান ধারণের ক্ষমতা হারানো, দেহের বৃদ্ধি স্বাভাবিক মাত্রায় না হওয়া – কম বয়সে এমন হলে তো কারো এ নিয়ে মাথাই ঘামানোর কথা নয়৷

Symbolbild Manneken Pis Brüssel

পুরুষাঙ্গও আছে, তবে সেটা খুবই ছোট (প্রতীকী ছবি)

ভিয়েতনামে জন্ম নেয়া হংকংয়ের এই নাগরিকও নাকি ১০ বছর বয়স থেকে আর লম্বা হচ্ছিলেন না৷ বাবা-মা নেই, অনাথ জীবনে এমন কেউ ছিলেন না যিনি এ সমস্যার কথা চিকিৎসককে গিয়ে বলবেন৷ মাঝে মাঝে আপনাআপনি প্রস্রাব হয়ে যেত৷ ওই অস্বাভাবিকতাকেও স্বাভাবিক ধরে নিয়ে নিশ্চিন্তে পার করে দিয়েছেন ৬৬টি বছর৷ অবশেষে একদিন চোখে পড়ে তলপেটটা যেন একটু ফোলা৷ সেটাও অন্য যে কাররই হতে পারে৷ এরপরেও তা নিয়ে চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে জানলেন, তিনি আসলে পুরুষ নন, মেয়ে৷

বয়স ৬৬ হলেও মাত্র সাড়ে চার ফুট লম্বা তিনি৷ দাড়ি-গোঁফ আছে৷ পুরুষাঙ্গও আছে, তবে সেটা খুবই ছোট৷ আর এসব আছে বলেই নিজেকে পুরুষ মনে করে করে কাটিয়ে দিয়েছেন এতগুলো বছর৷ তাই চিকিৎসাশাস্ত্র মতে ‘নারী' হলেও পুরুষ পরিচয়েই বাকি জীবন কাটাতে চান তিনি৷

এসিবি/ডিজি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন