1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

৬৪ বছরের তরুণী, এখনো যাঁর টান লাগেনি গাঁটে

‘‘হাঁটুতে আজ টান লেগেছে / টান লেগেছে গাঁটে গাঁটে'' – সে যুগে পড়ে থাকলে ডায়ানা নায়াড এখন আর সাহস আর শক্তির পরীক্ষায় সফল হয়ে তাক লাগাতে পারতেন না৷ ৬৪ বছর বয়সে ১৭৭ কিলোমিটার সাঁতার কেটেছেন তিনি! সবাই অবাক তো হবেই৷

কিন্তু অর্থোপেডিক সার্জন অ্যাঞ্জেলা স্মিথ খুব একটা অবাক নন৷ কবীর সুমন লিখতেই পারেন, ‘‘বয়স আমার মুখের রেখায়/শেখায় আজব ত্রিকোণমিতি/কমতে থাকা চুলের ফাঁকে/মাঝ বয়সের সংস্কৃতি...৷'' তাঁর জনপ্রিয় গানটিতেই আছে ‘‘হাঁটুতে আজ টান লেগেছে/টান লেগেছে গাঁটে গাঁটে/মধ্যবিত্ত শরীরে আজ/সময় শুধু ফন্দি আঁটে...৷'' ৬৪ বছর বয়সে ডায়ানা নায়াড যখন কিউবার রাজধানী হাভানা থেকে যুক্তরাষ্ট্রের কি ওয়েস্ট-এ হাঙরের আক্রমণ থেকে বাঁচার কোনো ব্যবস্থা না রেখেই সাঁতরে যাবার ঘোষণা দিলেন, সবাই অবাক হয়েছিলেন, ভয়ও পেয়েছিলেন খুব৷ বয়স হলে মানুষ বাংলাদেশ বা ভারতের হোক, কিংবা যুক্তরাষ্ট্রের, হাঁটুতে টানতো লাগেই, শরীরও কাহিল হয়ে পড়ে৷ এ অবস্থায় ডায়ানা পারবেন হাঙরের আক্রমণ থেকে নিজেকে রক্ষা করার খাঁচা ছাড়াই সাঁতরে সাঁতরে ১৭৭ কিলোমিটার (১১০ মাইল) পাড়ি দিতে? পেরেছেন৷ ৫৩ ঘণ্টা সাঁতরে ঠিক পৌঁছে গেছেন ফ্লোরিডার কি ওয়েস্টে৷

US swimmer Diana Nyad (C) plays a bugle preparing for her departure from the Ernest Hemingway Nautical Club in Havana on August 18, 2012 . Veteran US endurance swimmer Diana Nyad announced that she will try to swim the treacherous waters from Cuba to Florida without a shark cage. AFP PHOTO/ADALBERTO ROQUE (Photo credit should read ADALBERTO ROQUE/AFP/GettyImages)

ডায়ানা নায়াড

প্রশংসা হচ্ছে অনেক৷ যে বয়সে অনেকেই অবসর জীবন শুরুর কথা ভাবেন, তখন এমন অসাধ্য সাধন করলে অবাক হওয়াই স্বাভাবিক৷ কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের অর্থোপেডিক সার্জন অ্যাঞ্জেলা স্মিথ অবাক নন৷ তাঁর মতে, আধুনিক বিশ্বে অনেক কিছুই বদলে গেছে৷ বয়সের কাছে হার না মেনে জীবন উপভোগ করার ইচ্ছে পূরণ করতে মানুষ আগের চেয়ে অনেক বেশি স্বাস্থ্য সচেতন৷ সে কারণে আগের চেয়ে শুধু দীর্ঘায়ুই হচ্ছেনা,অনেকে অনেক বছর বেঁচে থাকছে সুস্থ-সবল শরীর নিয়ে৷ ক্রীড়াঙ্গনে এমন নজীর আছে ভূরি ভূরি৷

এ বছর ৪৮ বছর বয়সে আইবিএফ লাইট হেভিওয়েট বক্সিংয়ে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছেন বার্নার্ড হপকিন্স৷ ২০০৬ সালে মার্টিনা নাভ্রাতিলোভা টেনিসে ইউএস ওপেনের মিক্সড ডাবলস জিতেছিলেন বয়স ৫০ হওয়ার পর৷ ডায়ানা নায়াড অবশ্য তাঁদের সবাইকেই ম্লান করে দিয়েছেন৷ নিউ ইয়র্কের ‘চিরতরুণী' কিন্তু পঞ্চম চেষ্টায় হাভানা থেকে কি ওয়েস্টে গিয়েই থামছেন না৷ এবার নাকি ঘূর্ণিঝড় স্যান্ডির আঘাতে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় অর্থ সংগ্রহের জন্য টানা ৪৮ ঘণ্টা সাঁতরানোর জন্য আবার নামবেন পানিতে৷ ‘স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল৷' আর সাফল্যের মূল চাবিকাঠি কী বলুন তো? বয়সোপযোগী খাদ্যাভ্যাস, পরিমিত বিশ্রাম এবং নিয়মিত ,৷ এই নিয়ম মানলে বয়স বাড়লেএ হাঁটুতে, গাঁটে গাঁটে টান লাগবে না৷

এসিবি/এসবি (এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন