1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

উত্তর কোরিয়া

৫০ জন উত্তর কোরীয়কে ফেরত পাঠাবে মালয়েশিয়া

কূটনীতিকদের ফিরতে না দিলেও উত্তর কোরিয়ার ৫০ জন সাধারণ নাগরিককে ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে মালয়েশিয়া৷ মালয়েশিয়ার উপ প্রধানমন্ত্রী একথা জানান৷ কুয়ালালামপুরে কিম জং-নাম নিহত হওয়ার পর থেকে দু'দেশের মধ্যে উত্তেজনা চলছে৷ 

গত ১৩ ফেব্রুয়ারি উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতা কিম জং-উনের সৎভাই কিম জং-নাম মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে নিহত হন৷ কুয়ালা লামপুর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে৷ সিসিটিভি ফুটেজ অনুযায়ী, দুই নারীকে হত্যাকাণ্ডে সরাসরি জড়িত বলে সন্দেহ করা হয়৷ দু'জনকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ নারী দু'জনের একজন ইন্দোনেশীয় ও অন্যজন ভিয়েতনামি৷ 

দক্ষিণ কোরিয়ার গুপ্তচর সংস্থা হত্যাকাণ্ডের জন্য প্রাথমিকভাবে উত্তর কোরিয়ার দিকেই সন্দেহের আঙুল তুলেছিল৷ তবে মালয়েশিয়ার পুলিশ এখনো সরাসরি তেমন কোনো ইঙ্গিত দেয়নি৷ তবে কিম জং-নামের মুখ ও চোখ থেকে নেওয়া সোয়াবে ভিএক্স স্নায়ুর বিষের নমুনা পাওয়া যাওয়ার কথা জানিয়েছেন তারা৷ পুলিশ মনে করে, কিমকে হত্যার ব্যাপারে ওই দুই নারীর সঙ্গে এক উত্তর কোরীয় পুরুষও জড়িতে থাকতে পারেন৷ সে কারণে ওই উত্তর কোরীয়কেও আটক করা হয়েছে৷ এছাড়া আরো সাতজনের সঙ্গে কথা বলতে চেয়েছে মালয়েশিয়ার গোয়েন্দারা৷ তাদের মধ্যে চারজন হত্যাকাণ্ডের পরই পিয়ংইয়াংয়ে পালিয়ে গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছিল৷

তবে মালয়েশিয়ার পুলিশ বলছে, সন্দেহভাজনদের দু'জন অন্তত এখনো মালয়েশিয়াতেই আছেন৷ তারা এখনো কুয়ালালামপুরের উত্তর কোরীয় দূতাবাসে আত্মগোপন করে আছেন – এই সন্দেহে দূতাবাস ঘিরে রেখেছে পুলিশ৷ এক সময় আত্মগোপন করা ব্যক্তিরা বেরিয়ে আসতে বাধ্য হবে এবং তখন তাদের আটক করা হবে – এই পরিকল্পনা নিয়েই অপেক্ষা করছে পুলিশ৷

মূলত সেখান থেকেই দু' দেশের উত্তেজনার সূত্রপাত৷ মালয়েশিয়া যদিও হত্যাকাণ্ডে উত্তর কোরিয়ার জড়িত থাকার কথা এখনো বলেনি, তারপরও পিয়ংইয়ং মনে করছে, সে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করার চেষ্টা করছে মালয়েশিয়া৷ বিবদমান দেশ দু'টি ইতিমধ্যে পরস্পরের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করেছে৷ পিয়ংইয়ংয়ের মালয়েশিয়া দূতাবাসের তিন কর্মী এবং তাদের পরিবারের ছয় সদস্যকে দেশে ফিরতে দেয়নি উত্তর কোরিয়া৷ এর বাইরে সব মালয়েশীয় নাগরিকের ওপরও সীমান্ত অতিক্রমে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে দেশটি৷ পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে মালয়েশিয়াও কুয়ালালামপুর থেকে কোনো উত্তর কোরীয় কূটনীতিককে দেশে ফিরতে না দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ মঙ্গলবারের ঘোষণাটি অবশ্য অন্যরকম৷ এদিন মালয়েশিয়ার উপ প্রধানমন্ত্রী আহমাদ জাহিদ হামিদি জানান, বোর্নিও দ্বীপে কর্মরত ৫০ জন উত্তর কোরীয় কর্মীকে শিঘ্রই ফেরত পাঠানো হবে৷ তিনি জানান, ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও কাজ করছেন বলেই ফেরত পাঠানো হবে তাঁদের৷

এসিবি/ডিজি (রয়টার্স, এপি, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন