1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

২৪ ঘণ্টায় চার খুনে আতঙ্কিত ঢাকাবাসী

ঢাকায় ২৪ ঘণ্টায় দুটি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় নগরবাসীর মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে৷ সুপ্রিম কোর্ট জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা নুরুল ইসলাম ফারুকীকে বুধবার রাতে হত্যার পর বৃহস্পতিবার রাতে হত্যা করা হয় এক নারীসহ তিনজনকে৷

এই অবস্থায় আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত শুক্রবার বলেন, ‘‘এক দিনের ব্যবধানে সুপ্রিম কোর্ট জামে মসজিদের খতিব মাওলানা নুরুল ইসলাম ফারুকী এবং মগবাজারে তিন খুনের ঘটনায় মানুষ আতঙ্কিত৷ তাই এ বিষয়ে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে আরও সজাগ ও সচেতন থাকতে হবে৷''

সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, ‘‘ঘরের মধ্যে এসে মানুষ খুন করে যাবে, এ অরাজকতা চলতে পারে না৷ এ ব্যাপারে পুলিশ বাহিনী ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে আরও দৃঢ় পদক্ষেপ নিয়ে সাধারণ মানুষকে আশ্বস্ত করতে হবে৷''তবে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান কামাল তা মোটেও মনে করেন না৷ তিনি মনে করেন আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে৷ প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘‘এসব ঘটনায় মোটেও বলা যাবে না যে রাজধানীতে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে৷''

তিনি এই হত্যাকাণ্ডগুলোকে বিচ্ছিন্ন ঘটনা হিসেবে দাবি করে বলেন, ‘‘পরিস্থিতি আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে৷ আমরা দোষীদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা করছি৷ যে বা যারাই এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকুক না কেন এবং যে ইস্যুতেই এ খুনের ঘটনা ঘটুক না কেন দ্রুত খুনিদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে৷'' এ নিয়ে সাংবাদিকদের ‘অপপ্রচার' না চালাতেও অনুরোধ করেছেন প্রতিমন্ত্রী৷

সুপ্রিম কোর্ট জামে মসজিদের খতিব ও একাধিক বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের ধর্মীয় অনুষ্ঠানের উপস্থাপক মাওলানা নুরুল ইসলাম ফারুকীকে গত বুধবার রাত আটটার দিকে দুর্বৃত্তরা পূর্ব রাজাবাজারের দোতলার ভাড়া বাসায় ঢুকে স্ত্রী ও স্বজনদের আটকে রেখে গলা কেটে হত্যা করে৷ হত্যাকাণ্ডে এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি৷ ফারুকী আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াতের আন্তর্জাতিক সম্পাদক ছিলেন৷

বৃহস্পতিবার ভোরে ফারুকীর ছেলে ফয়সাল ফারুকী বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আট-নয়জনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন৷ ফারুকীকে খুন করে বাসা থেকে ছয় লাখ তিন হাজার টাকা লুট হওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে মামলায়৷ শেরেবাংলানগর থানার পাশাপাশি মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ ও র‌্যাব হত্যাকাণ্ডের কারণ খতিয়ে দেখছে৷ মহানগর পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি৷ তবে অনেককেই জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে৷ হত্যাকাণ্ডের উদ্দেশ্য উদঘাটনের চেষ্টা চলছে৷

Symbolbild Tatort

মগবাজারে তিন খুনের ঘটনায় মানুষ আতঙ্কিত

তবে তিনি দাবি করেন, ফারুকীর ধর্মীয় মতাদর্শ নিয়ে বিরোধিতা, পারিবারিক সমস্যা, ব্যবসায়িক দ্বন্দ্ব, হজে লোক পাঠানো নিয়ে বিরোধিতার জের ধরে হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে৷ এদিকে, ফরুকী হত্যার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মগবাজারে বৃহস্পতিবার রাতে তিনজনকে গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা৷ নিহত তিনজন হলেন রানু আক্তার, বিল্লাল ও মুন্না৷ নিহত রানুর স্বজনরা অভিযোগ করেছেন, চাঁদা না পেয়ে স্থানীয় একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে৷

পুলিশের উপকমিশনার ইকবাল হোসেন দাবি করেন, জমিসংক্রান্ত বিরোধ ও চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসী কালা বাবু গুলি করে তিনজনকে হত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছে পুলিশ৷ পুলিশ তিনজনকে হত্যার ঘটনায় শুক্রবার দুই নারীকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে৷ তারা হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহভাজন কালা বাবুর চাচী৷ পুলিশের আইজি হাসান মাহমুদ খন্দকার বলেছেন, ‘‘চারটি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িত অপরাধীদের গ্রেপ্তারে পুলিশ তৎপর রয়েছে৷ অপরাধীরা অচিরেই ধরা পড়বে৷'' তিনি বলেন নগরবাসীর আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই৷ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সতর্ক এবং তৎপর আছেন৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়