1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

২০১১ সালে যে প্রযুক্তি পণ্যগুলো নজর কাড়বে

গেল বছর অর্থাৎ ২০১০ সালের সেরা প্রযুক্তি পণ্যটি ছিল আইপ্যাড৷ অ্যাপলের তৈরি এই ট্যাবলেট কম্পিউটারটি বছরের একেবারে প্রথমে বাজারে আসলেও আলোচনায় থাকে সারা বছর৷

customer, Apple, iPad, store, ২০১১, প্রযুক্তি, পণ্য, নজর, Google, Chromium, Tablet-PC, আইপ্যাড, ভোক্তা, ট্যাবলেট, কম্পিউটার

আইপ্যাড ব্যবহার করছেন এক ভোক্তা

এমনকি নতুন বছর শুরু হয়ে গেলেও আইপ্যাডকে নিয়ে আলোচনা থেমে নেই৷ কারণ বিভিন্ন বিশ্বখ্যাত কোম্পানি আইপ্যাডের প্রতিদ্বন্দ্বী পণ্য বাজারে ছাড়তে যাচ্ছে৷ যেমন এইচপি, ব্ল্যাকবেরি ফোন নির্মাতা রিম, মটোরোলা, ডেল, আসুস, সিসকো, লেনোভো সবাই দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছে নতুন ট্যাবলেট কম্পিউটার বাজারে আনতে৷ তবে এসব কোম্পানির মধ্যে এগিয়ে আছে স্যামসাং৷ কারণ গত বছরের সেপ্টেম্বরেই তারা তাদের ট্যাবলেট কম্পিউটার বাজারে নিয়ে আসে৷

কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, আইপ্যাড যে জনপ্রিয়তা পেয়েছে তা কি অন্য ট্যাবলেট কম্পিউটারগুলো পাবে? প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা এ বিষয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন৷ কারণ প্রযুক্তি পণ্যের ক্ষেত্রে একটা কথা সত্য৷ সেটা হলো, নতুন প্রযুক্তি পণ্য সেটা যেমনই হোক মানুষের নজর কাড়ে৷ পরবর্তীতে ঐ পণ্যের চেয়েও বেশি সুবিধা নিয়ে আসা একই রকম আরেকটি পণ্য মানুষের কাছে সাধারণত জনপ্রিয়তা পায় না৷ এবারও সেরকমই আশা করছেন বিশেষজ্ঞরা৷ এদিকে অ্যাপলও বসে থাকবে না৷ তারা চাইবে আইপ্যাডে থাকা অসুবিধাগুলো দূর করতে৷ ফলে এবারও সারা বছর আলোচনায় থাকতে পারে আইপ্যাড৷

Google, Chromium, Tablet-PC

একটি ট্যাবলেট কম্পিউটার

এবার সামাজিক যোগাযোগ বিষয়ক ওয়েবসাইট প্রসঙ্গ৷ গত বছর ফেসবুক আর টুইটারে মেতে ছিল বিশ্ব৷ আর তাতেই মাথা গরম গুগলের৷ তাইতো ‘গুগল মি' নামের পণ্য বাজারে আসছে বলে গুজব শোনা যাচ্ছে৷ গুগল আশা করছে, এর মাধ্যমে তারা ফেসবুককে একটা শক্ত প্রতিযোগিতার মধ্যে ফেলে দিতে পারবে৷২০১১ সালে ‘ক্লাউড কম্পিউটিং' এর জনপ্রিয়তা বেশ বাড়বে বলে বিশেষজ্ঞরা বলছেন৷ কিন্তু কেন? চলুন তার আগে জেনে নিই ক্লাউড কম্পিউটিং বিষয়টা কী৷ ধরুণ, আপনার একটি কম্পিউটার আছে৷ সেটা একটি সার্ভারের সঙ্গে যুক্ত৷ ব্যস, তাহলে আপনি বিশ্বের যে প্রান্তেই থাকুন না কেন ইন্টারনেটের সাহায্যে সার্ভার কম্পিউটারে থাকা সফটওয়্যার, অ্যাপ্লিকেশন কিংবা ফাইল সব ব্যবহার করতে পারবেন৷প্রযুক্তিটা নতুন৷ তাই এখনো তেমন একটা জনপ্রিয়তা পায়নি৷ কিন্তু এ বছর ব্যক্তিগত ও প্রাতিষ্ঠানিকভাবে ক্লাউড কম্পিউটারের ব্যবহার বাড়বে৷ এর পেছনে মূল কারণ তিনটি৷ প্রথমত: সহজে প্রবেশ৷ মানে, ইন্টারনেট ব্যবহার করে আপনি সার্ভার থেকে সহজেই প্রয়োজনীয় তথ্যটি পেয়ে যাবেন৷ দ্বিতীয়ত: খরচ৷ আজকাল কম খরচের যুগ৷ সবাই চায়, যে কোনো জায়গা থেকে খরচ কমাতে৷ আর ক্লাউড কম্পিউটিং এক্ষেত্রে একটা উপায় হতে পারে৷ কারণ, এর ফলে এখন থেকে আর নিজস্ব তথ্য সংরক্ষণ ব্যবস্থা তৈরি করার দরকার নেই৷ প্রয়োজন নেই, সেটা রক্ষণাবেক্ষণেরও৷ কারণ কেন্দ্রীয় সার্ভারে আপনার জিনিস রেখে আপনি যখন খুশি ব্যবহার করতে পারেন৷ সাম্প্রতিক এক জরিপ বলছে, যে কোনো প্রতিষ্ঠান তার আইটি বাজেটের প্রায় ১৮ শতাংশ কমাতে পারবে ক্লাউড কম্পিউটিং এর মাধ্যমে৷

আর তিন নম্বর কারণটি হলো, ব্যাকআপ রাখার সুবিধা৷ অনেকেই আছেন যারা নিজের কম্পিউটারে কোনো কিছুর ব্যাক আপ রাখতে জানেন না৷ ক্লাউড কম্পিউটিং করলে তাদের সেই সমস্যাও দূর হয়ে যাবে৷

এবছর হার্ড ড্রাইভের ধারণক্ষমতা বেড়ে দাঁড়াবে ৩ টেরাবাইটে৷ এবং দাম থাকবে বাজেটের মধ্যেই৷ নোটবুকে ইন্টারনেট ব্যবহারও গতি পাবে ২০১১ সালে৷ এছাড়া রাউটার ব্যবস্থার এতো উন্নতি হবে যে, একই সঙ্গে গান শোনা ও ডাউনলোডের কাজ করা হলেও সেটা ইন্টারনেটকে ধীরগতির করে দেবে না৷ ইউএসবি ব্যবহারেও আসবে গতি৷ বাজারে ইতিমধ্যে চলে এসেছে ইউএসবি ৩.০৷ কিন্তু এখনো ততটা জনপ্রিয়তা পায়নি৷ তবে এবছর সেটা জনপ্রিয়তা পাবে বলে বিশেষজ্ঞদের আশা৷

সবশেষে মোবাইল ফোন সেটের খবর৷ ২০১১ সালে নতুন নতুন মডেলের মোবাইল সেট পাওয়া যাবে৷ এছাড়া স্মার্টফোন হিসেবে পরিচিত ব্ল্যাকবেরি ও আইফোনের সঙ্গে যোগ হবে আরও অন্যান্য মডেলের ফোন৷ আর গুগলের অ্যানরয়েড ও মাইক্রোসফটের উইন্ডোজ ফোন ৭ নিজেদের মধ্যে প্রতিযোগিতা করে আরও নতুন নতুন সেবা যোগ করবে৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: রিয়াজুল ইসলাম

ইন্টারনেট লিংক