1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

১১ বিলিয়ন ডলারের বরাত পেল ইউরোফাইটার

ব্রিটেন, জার্মানি, ইটালি ও স্পেনের যৌথ উদ্যোগে তৈরি ‘ইউরোফাইটার’ কিনতে চলেছে ভারত৷ ফলে কৌশলগত সহযোগী দেশ অ্যামেরিকা অসন্তুষ্ট – পদত্যাগ করলেন রাষ্ট্রদূত৷

default

ফাইল ছবি

গোটা বিশ্বে সংকটের শেষ নেই, যার মধ্যে অনেকগুলি সশস্ত্র সংঘর্ষের রূপ নিয়েছে৷ বাকি এলাকাগুলিতে এতটাই উত্তেজনা বিরাজ করছে, যে যে কোনো সময় যুদ্ধ বেঁধে যেতে পারে৷ মোটকথা, যেখানেই সংঘর্ষ বা সংঘর্ষের আশঙ্কা থাকুক না কেন অস্ত্র ব্যবসায়ীদের পোয়াবারো৷ তারা এমনকি অনেক সময় দুই প্রতিপক্ষের কাছেই অস্ত্রসহ বিভিন্ন সামরিক সরঞ্জাম বিক্রি করে৷ বিশ্বজুড়ে যতই মন্দা ও ব্যয় সংকোচ চলুক না কেন, অস্ত্র কেনার ব্যাপারে কোনো দেশেরই কার্পণ্য দেখা যাচ্ছে না৷

এমনই এক বড় অর্ডারের জন্য মুখিয়ে ছিল অ্যামেরিকা ও ইউরোপের কিছু কোম্পানি৷ ভারত প্রায় ১,১০০ কোটি ডলার মূল্যের বোমারু বিমান কেনার ইচ্ছা প্রকাশ করলে তারা নতুন দিল্লির মন জয় করতে কোমর বেঁধে আসরে নামে৷ শেষ পর্যন্ত ইউরোপেরই জয় হলো৷ ওয়াশিংটনের সঙ্গে নতুন দিল্লির কৌশলগত সম্পর্ক বেড়ে চললেও এই অর্ডারের ক্ষেত্রে সেই উদ্যোগ কিছুটা ধাক্কা খেল৷ খোদ প্রেসিডেন্ট ওবামা মার্কিন সংস্থার হয়ে ভারতের কাছে দরবার করা সত্ত্বেও এমনটা ঘটলো৷ নতুন দিল্লিতে মার্কিন রাষ্ট্রদূত কার্যকাল শেষ হওয়ার আগেই পদত্যাগ করলেন৷

মোট ৬টি সংস্থা অর্ডার পাওয়ার দৌড়ে অংশ নিয়েছিল৷ শেষ পর্যন্ত ব্রিটেন, জার্মানি, ইটালি ও স্পেনের যৌথ উদ্যোগে তৈরি ‘ইউরোফাইটার' এবং ফ্রান্সের ‘রাফায়েল'এর জয় হলো৷ ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রযুক্তিগত চাহিদা মেটাতে না পারায় বরাত হারালো অ্যামেরিকার লকহিড মার্টিন কোম্পানির ‘এফ-১৬' এবং বোয়িং-এর ‘এফএ ১৮ সুপার হর্নেট'৷ সুইডেনের ‘সাব জেএস ৩৯' ও রাশিয়ার ‘মিগ ৩৫'এর ভাগ্যও ভালো ছিল না৷

প্রতিবেদন: সঞ্জীব বর্মন

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই