1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

১১ ফেব্রুয়ারি ইরানি বিপ্লবের ৩১তম বর্ষপূর্তি

১৯৭৯ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি ইরানে শাহ সরকারের পতন ঘটে৷ তাই এই দিনটি ইরানের ইসলামি বিপ্লবের ৩১তম বর্ষপূর্তি৷ ইসলামি বিপ্লবের ইতিহাস টালমাটাল৷ দুটি সম্পূর্ণ ভিন্ন ধর্মী ছবি পাওয়া যায় এর-যার একটির সাথে আর একটির তেমন মিল নেই৷

default

ইসলামি বিপ্লবের জনক আয়াতুল্লাহ রোহুল্লা খোমেনি (মাঝে) এবং তাঁর সমর্থকরা

একটিতে আশাব্যঞ্জক মানুষের ছবি - যারা ইরানে আরো গণতন্ত্র, নাগরিক অধিকার ও মানুষের মর্যাদাকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেন, যারা একনায়ক শাহ এর বিরুদ্ধে সাহসিকতার সঙ্গে লড়াই করেছেন এবং তাঁর পতনে বিরাট অবদান রেখেছেন৷ তাঁরা রক্তাক্ত অতীত মোকাবেলা করে উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করছেন৷

দ্বিতীয় ছবিটি হল বর্তমানের ভাগ্যবিড়ম্বিত সমাজের৷ যাঁরা বর্তমান সরকারের দমনের শিকার৷ ইরানে ইসলামি শাসকরা ক্ষমতা কুক্ষিগত রাখতে যে কোন কিছু করতে প্রস্তুত৷ দেশটিতে প্রতিদিন মানবাধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে চরমভাবে৷ হুমকি, গ্রেপ্তার এবং এমনকি ফাঁসি দিয়ে তেহরানের ক্ষমতাসীনরা অসন্তুষ্ট সমাজকে দমন করতে সব ধরণের প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন৷

Massendemos zum Jahrestag der islamischen Revolution im Iran 2010

গণ বিক্ষোভ ঠেকাতে পারছেন না বিতর্কিত প্রেসিডেন্ট আহমাদিনেজাদ

ইসলামি বিপ্লবের ইতিহাস হল বাস্তবতা ও অবাস্তবতার মধ্যে লড়াই এর ইতিহাস, অতীতের আশা এবং বর্তমানের হতাশার ইতিহাস৷ তবে জনসাধারণ তাঁদের অতীতের স্লোগান ভুলে যান নি, তাঁরা সেগুলো এখনো স্মরণ করেন - যদিও তাঁদের লক্ষ্য অর্জিত হয় নি৷

এই পরিস্থিতিতে তরুণ সমাজ এগিয়ে এসেছে৷ বিশেষ করে বিতর্কিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর৷ ইরানের বিভিন্ন জেল ইতিমধ্যে ভরে গেছে প্রতিবাদ বিক্ষোভকারী দিয়ে৷ ৩১ বছর আগে ইসলামি বিপ্লবের সাথে ছিলেন অনেকে৷ আজ বিপ্লবের ৩১তম বর্ষপূর্তিতে বিরোধীরা নেমেছে প্রতিবাদ বিক্ষোভে৷

সংবাদভাষ্য : জামশেদ ফারুঘি ভাষান্তর : আবদুস সাত্তার

সম্পাদনা : আব্দুল্লাহ আল-ফারূক