1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

১১ই মার্চ স্মরণে জাপানে এক মিনিটের নীরবতা

গত ১১-ই মার্চ জাপানে আঘাত হেনেছিল ভয়াবহ ভূমিকম্প ও সুনামি৷ সোমবার দুপুর ২টা ৪৬ মিনিটে সমগ্র জাপান জুড়ে স্মরণ করা হয় সেই ভয়াবহ স্মৃতি৷ কারণ ঠিক ঐ সময়েই আঘাত হেনেছিল ৯ মাত্রার ভূমিকম্প ও সুনামি৷

default

ভয়াবহ ঐ প্রাকৃতিক দুর্যোগে প্রায় ১৩ হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন বলে নিশ্চিত করা হয়েছে৷ আর ১৫ হাজার মানুষ এখনও নিখোঁজ রয়েছেন৷ তাদের জীবিত থাকার আশা নেই বললেই চলে৷ ভূমিকম্প ও সুনামির কেন্দ্রবিন্দু ছিল অপূর্ব প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যমন্ডিত শহর কেসেননুমা৷ নিহতদের খোঁজে এখন তল্লাশি চলছে৷ সৈন্যরা ধ্বংসস্তুপের নীচে তল্লাশি চালিয়ে যাচ্ছে৷ দুপুর ঠিক ২টা ৪৬ মিনিটে সেই ভয়াবহ দিনটি এবং নিহতদের স্মরণে খনন কাজও বন্ধ রাখা হয়৷ সৈন্যরা তাদের হেলমেট, গ্লাভস খুলে ফেলেন৷ হাত থেকে নামিয়ে রাখেন উদ্ধার যন্ত্রপাতি৷ যে যেখানে ছিলেন, সেখানেই হাত জোড় করে প্রার্থনা শুরু করেন৷

জাপানের অধিকাংশ জায়গাতেই এখন বৃষ্টি হচ্ছে৷ আর এই বৃষ্টির পানি প্রচণ্ড ঠাণ্ডা৷ তার মধ্যেই ঠিক সময়ে দেশজুড়ে বেজে ওঠে সাইরেন৷ সবাইকে স্মরণ করিয়ে দেয় সেই ভয়াবহ মুহূর্ত৷ শুরু হয় প্রার্থনা৷ এক মিনিটের নীরবতার পরে আবার যেন সচল হয়ে উঠে পুরো দেশ৷ যথারীতি শুরু করেন যে যার কাজ৷ উত্তর পূর্বাঞ্চলের প্রায় সবজায়গার টেলিভিশন ফুটেজে দেখা গেছে, এক মিনিটের নীরবতা চলাকালে ভয়াবহ দুর্যোগে নিহত ও নিখোঁজদের সম্মানে সবাই মাথা নীচু করে সম্মান জানাচ্ছেন৷

Flash-Galerie Fukushima Atomkraftwerk Untersuchung des Bodens Radioaktivität

মাটিতে পরমাণু তেজস্ক্রিয়তা আছে কিনা সেটি পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে

এদিকে ভূমিকম্পে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত জাপানের পারমাণবিক প্রকল্প এলাকার কাছাকাছি এবং আশেপাশের কিছু অঞ্চল খালি করে ফেলা হয়েছিল তেজস্ক্রিয়তা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায়৷ সোমবার বলা হয়েছে, ঐসব অঞ্চলে তেজস্ক্রিয়তা পরিমাপের পরে যদি দেখা যায়, এখনও উচ্চ মাত্রার তেজস্ক্রিয়তা রয়েছে, তাহলে অঞ্চলগুলো খালি রাখার সময় বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে৷ চেরনোবিলে ভয়াবহ পারমাণবিক দুর্ঘটনার পরে জাপানের ফুকুশিমাতেই সবচেয়ে ভয়াবহ পারমাণবিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে৷

ফুকুশিমার ছয়টি পারমাণবিক চুল্লির কারণে আন্তর্জাতিক উদ্বেগ সত্ত্বেও, জাপান কুড়ি কিলোমিটারের বেশি এলাকাকে খালি এলাকা হিসেবে ঘোষণা করতে অস্বীকার করেছে৷ চুল্লিগুলো নিয়ন্ত্রণে আনতে প্রকৌশলীরা এখনও লড়াই করে চলেছেন৷

প্রতিবেদন: ফাহমিদা সুলতানা

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন