1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

‘হ্যালো রিচ’-এর মজায় মজাবে সকলকে : মাইক্রোসফট

‘হ্যালো রিচ’৷ কল্পবিজ্ঞানের নতুন ভিডিওগেম এবার নাকি খেলাপ্রিয় জনতাকে সারাক্ষণ ব্যস্ত রাখবে৷ দাবি, মাইক্রোসফট-এর৷ ইতিমধ্যেই একসঙ্গে পঁচিশটি দেশে বিক্রি শুরু হয়ে গেছে এই ভিডিওগেমটির৷

default

অ্যাপল তাদের আইফোন আইপ্যাড এবং যাবতীয় আপেলীয় ব্যাপারস্যাপার নিয়ে দুনিয়া জুড়ে ঝড় তুলে দিয়েছে৷ ফেসবুকের দাবি, নেট দুনিয়ায় তারাই সবার আগে৷ পিছিয়ে নেই গুগলের গুগলি৷ এই অবস্থায় মাইক্রোসফটও এখন ধামাকা বোমা ফাটাতে তৈরি৷ বোমাটি হল নতুন এবং আকর্ষক এবং দারুণ মনোমত এবং ভীষণ স্টাইলিশ মাইক্রোসফটের অভিনব ভিডিও গেম৷ নাম যার ‘হ্যালো রিচ'৷

‘হ্যালো রিচ' হল মাইক্রোসফটের ‘হ্যালো' সিরিজের নবীনতম সংযোজন৷ ভিডিও গেমের ভার্চুয়াল দুনিয়ায় তরুণ প্রজন্মের মনোযোগ তো সেই কবে থেকে জোরদার৷ কিন্তু সেই খেলুড়ে প্রজন্মকে আরও বেশি নেশাগ্রস্ত করতে এবার মাইক্রোসফটের দাবি, এই ‘হ্যালো রিচ'-এর খপ্পর এমনই যে তার হাত থেকে আর ছাড়ান কাটান নেই৷ সারাক্ষণ বসে থাকতে হবে এর সঙ্গেই৷ কারণ এই খেলাটা নাকি অসাধারণ৷

Microsoft Xbox360

কেমন করে এত আত্মবিশ্বাস? মাইক্রোসফটের মুখপাত্র হয়ে কথা বলেছেন ফিল স্পেন্সার৷ স্পেন্সারের আসল কাজটা অবশ্যি আলাদা৷ মাইক্রোসফট সংস্থার হয়ে তিনি স্টুডিও বিভাগের কর্পোরেট দুনিয়ার ভাইস প্রেসিডেন্ট৷ পদাধিকার টিকার বাদ দিন, মোদ্দা কথাটা হল ফিলের যুক্তি৷ সেই যুক্তিটা এরকম : ভিডিও খেলায় যাঁরা এক্স বক্স পাগল তাঁদের জন্য এই নতুন আবিষ্কার নাকি স্বপ্নের মত ব্যাপার৷ দাবি ফিলের৷ কেন বলুন তো? ফিল বলছেন, ভিডিওগেম উন্মাদরা আসলে ব্লকবাস্টারের জন্য মাথার চুল ছিঁড়তে থাকেন৷ আর এই ব্লকবাস্টার ব্যাপারটাই হল নতুন ‘হ্যালো রিচ'-এর মূল চাবিকাঠি৷

তো, চাবিকাঠি বা সোনার কাঠি যাই হোক, সেই স্পর্শ পেতে লম্বা লাইন পড়েছে লন্ডন, অসলো, নিউ ইয়র্ক, স্টকহোম আর সিয়াটেলের মাইক্রোসফটের দোকানের সামনে৷ লাইন পড়েছে বিশ্বের পঁচিশটি দেশে৷ কারণ, একসঙ্গে পঁচিশটি দেশে বিক্রি শুরু করে ইতিমধ্যেই রেকর্ড গড়েছে ‘হ্যালো রিচ'৷ এখন দেখা যাক, এই নতুন খেলার খেলুড়েরা কতটা মজে যান ভার্চুয়াল ভিডিও গেমের অশরীরী শরীরে৷

প্রতিবেদন: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

ইন্টারনেট লিংক