1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

হোটেল কক্ষে পাওয়া টাকা ঘুষের নয়- সালমান বাট

পাকিস্তান দলের সাবেক অধিনায়ক সালমান বাট দাবি করেছেন যে তাঁর হোটেল কক্ষে যে টাকা পাওয়া গিয়েছিল সেগুলো ঘুষ নয়, বরং দলের পক্ষ থেকে দেওয়া হাত খরচ৷ এদিকে আরেক সাবেক অধিনায়ক রমিজ রাজা চান অভিযুক্তদের দল থেকে বাদ দেওয়া হোক৷

default

সালমান বাট

গত আগস্টে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্টে বাজিকরদের কাছ থেকে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ এই মুহূর্তে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বহিষ্কৃত সালমান বাট৷ তাঁর সঙ্গে আরও দুই পেসার মোহাম্মদ আসিফ ও মোহাম্মদ আমিরও বহিষ্কৃত৷ আগামী মাসেই তাদের দাঁড়াতে হবে আইসিসির তদন্ত কমিশনের সামনে৷ তবে তার আগে নিজের পক্ষে সাফাই গাওয়ার চেষ্টা কম করছেন না সালমান বাট৷

উল্লেখ্য, বাজিকরদের কাছ থেকে টাকা খেয়েছেন এই অভিযোগ আসার পর সালমান বাটের হোটেল কক্ষে তল্লাশি চালিয়েছিল পুলিশ৷ ওই সময় তাঁর কক্ষ থেকে ১৫ হাজার পাউন্ড নগদ উদ্ধার করা হয়৷ একজন খেলোয়াড়ের কক্ষে এত নগদ টাকা কিভাবে আসলো তা নিয়ে সবার মনেই প্রশ্ন৷ তবে সালমান বাট স্কাই স্পোর্টস টিভিতে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে দাবি করেছেন যে এসব অর্থ দলের পক্ষ থেকেই হাত খরচ হিসেবে দেওয়া হয়েছিল৷ তিনি জানান, ১১ হাজার পাউন্ড দেওয়া হয়েছিল প্রতিদিনের হাত খরচ হিসেবে, আর অধিনায়ক হিসেবে তিনি আরও সাড়ে চার হাজার পাউন্ড অতিরিক্ত পেয়েছিলেন৷ তিনি দাবি করেন যে ইংল্যান্ড সফর অনেক দীর্ঘ হওয়ায় হাত খরচের পরিমাণও বেশি ছিল৷ বাটের এই সাক্ষাৎকার পুরো প্রকাশিত হবে আজ সোমবার৷

এদিকে পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের বিরুদ্ধে একের পর এক দুর্নীতির অভিযোগে রীতিমত বিরক্ত সাবেক অধিনায়ক রমিজ রাজা৷ এক সাক্ষাৎকারে তিনি স্পষ্টই বলে দিলেন, পাকিস্তান দলে অনেক প্রতিভাবান খেলোয়াড় রয়েছে৷ তাই এসব দুর্নীতিগ্রস্তদের বাদ দিয়েও দল গঠন করা সম্ভব৷ রমিজ রাজা বলেন, আমার কাছে বিশ্বস্ততা হচ্ছে আসল বিষয়৷ আমাদের এখন ঠিক করতে হবে আমরা কি প্রতিভাবান খেলোয়াড় চাই নাকি সন্দেহভাজন খেলোয়াড় চাই৷

প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম