1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

হৃৎপিণ্ডের অভিনব জৈবিক ভাল্ভ বিপ্লব আনতে পারে

চিকিৎসাশাস্ত্রের উন্নতি মানুষের জীবন আরও সহজ করে তুলছে৷ এবার জার্মান বিজ্ঞানীরা থ্রিডি প্রিন্টারে হৃৎপিণ্ডের ভাল্ভের এমন কাঠামো তৈরি করছেন, যা আজীবন সঙ্গ দেবে এবং শরীরের সঙ্গে সঙ্গে বেড়ে উঠবে৷

বার্লিনে জার্মান হার্ট সেন্টারে কম্পিউটার টোমোগ্রাফ হৃদযন্ত্রের কয়েক'শ স্তরের ছবি তোলে৷ সেগুলি দিয়ে ত্রিমাত্রিক মডেল সৃষ্টি হয়৷ তার ভিত্তিতে জীবন বাঁচানোর এক স্বপ্ন বাস্তবায়নের উদ্যোগ চলছে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ভবিষ্যতে ক্ষতিগ্রস্ত অঙ্গের বিকল্প থ্রিডি প্রিন্টারে ছাপা হবে৷ একেবারে আক্রান্ত ব্যক্তিরডি মাপ অনুযায়ী তা তৈরি হবে৷ শরীরের তা প্রত্যাখ্যান করার ঝুঁকিও নেই৷ যেমন অ্যাওর্টিক ভাল্ভ৷ হৎপিণ্ডের চারটি ভাল্ভের মধ্যে এটিকেই সবচেয়ে ঘনঘন বদলাতে হয়৷ থ্রিডি ল্যাবের গবেষকরা হার্ট সেন্টারের বায়োলজিস্টদের সঙ্গে মিলে একেবারে নতুন এক সমাধানসূত্রের সন্ধান করছেন৷ এই প্রকল্পের ইঞ্জিনিয়ার বেন ইয়াসট্রাম বলেন, ‘‘এই প্রকল্পের পেছনে আইডিয়া হলো এমন বায়োলজিকাল কার্ডিয়াক ভাল্ভ তৈরি করা, যা বসিয়ে দিলে কোনো জটিলতা ছাড়াই তা শরীরের অঙ্গের সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে পারবে৷ প্রচলিত কার্ডিয়াক ভাল্ভের মতো সমস্যা সৃষ্টি করবে না৷''

বিশেষ এক সফটওয়্যারের মাধ্যমে গবেষকরা কয়েক'শ দ্বিমাত্রিক এক্স-রে ছবির সমন্বয়ে থ্রিডি মডেল তৈরি করেন৷ সেই মডেল থেকে থ্রিডি প্রিন্টিং ফাইল সৃষ্টি হয়৷ পিএইচডি ছাত্র আডাম ব্রুশ বলেন, ‘‘সবার আগে হৃৎপিণ্ড সম্পূর্ণ স্ক্যান করতে হয়৷ তা থেকে শুধু অ্যাওর্টিক ভাল্ভ আলাদা করা হয়৷ তারপর শুধু সেটি প্রিন্ট করা হয়৷''

গবেষকদের আইডিয়া হলো, তাঁরা অ্যাওর্টিক ভাল্ভের নকলটিকে কাঠামো হিসেবে ব্যবহার করে ল্যাবে মানুষের কোষ বসাবেন৷ অবশ্য প্রিন্টিং-এর উপকরণের উপর গোটা প্রক্রিয়া নির্ভর করে৷ কারণ চূড়ান্ত লক্ষ্য হলো, প্রিন্ট করা কাঠামো ধীরে ধীরে ক্ষয়ে যাবে৷ তার জায়গায় স্বাভাবিক টিস্যু গজাবে৷ থ্রিডি মডেলের উপর যে কোষ বসানো হবে, তার যথেষ্ট উন্নতি হয়েছে৷ বায়োলজিস্ট ড. কোরা ল্যুডেন্স-টয়ারকাউফ বলেন, ‘‘একদিকে আদর্শ কোষ পাওয়া বড় চ্যালেঞ্জ৷ ভাল্ভ সৃষ্টির জন্য সব রকম কোষ উপযুক্ত নয়৷ আমরা আম্বিলিকাল কর্ডের ভাস্কুলার কোষ ব্যবহার করি৷ সেগুলি আলাদা করে থ্রিডি কাঠামোয় বসিয়ে দেই৷''

লোকচক্ষুর অন্তরালে এক তথাকথিত ‘বায়ো-রিয়্যাক্টর'-এ প্রিন্ট করা ভাল্ভের সঙ্গে আম্বিলিকাল কর্ডের কোষ জুড়ে একটি ইউনিট বা টিস্যু হয়ে উঠছে৷ ড. কোরা ল্যুডেন্স-টয়ারকাউফ বলেন, ‘‘তবে শরীরের মধ্যে যে স্বাভাবিক পরিবেশ থাকে, ল্যাবে তা নকল করা অত্যন্ত কঠিন৷ এটা একটা বড় চ্যালেঞ্জ, কারণ কোষগুলিকে এমনভাবে উদ্দীপিত করতে হবে, যাতে তারা টিস্যু তৈরি করে৷ কোষ নিজে থেকে এ কাজ করে না, তার চাহিদা মেটাতে হবে, নির্দিষ্ট পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে৷''

এখনো অনেক প্রশ্নের জবাব পাওয়া যায়নি, তবে প্রাথমিক পদক্ষেপ শুরু হয়েছে৷ শেষে নতুন ধরনের প্রস্থেসিস সৃষ্টি হতে পারে৷ তখন থ্রিডি প্রিন্টারে তৈরি কার্ডিয়াক ভাল্ভ আজীবন সঙ্গ দেবে৷ যান্ত্রিক বিকল্প অঙ্গের প্রয়োজন ফুরিয়ে যাবে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক