1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

হিন্দু জাতীয়তাবাদের কারণে জার্মান শিক্ষা বাতিল: স্পিগেল

ভারতের স্কুলে জার্মান ভাষা শেখানোর একটি কর্মসূচির মেয়াদ না বাড়ানোর সরকারি সিদ্ধান্তের ঘটনা জার্মানিতেও চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে৷ জার্মান কূটনীতিকরা এই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন৷

জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ভারত সফর সাধারণত জার্মান সংবাদ মাধ্যমে তেমন গুরুত্ব পায় না৷ কিন্তু ‘ডেয়ার স্পিগেল' পত্রিকার অনলাইন সংস্করণে একটি খবর এমনই একটি সফরকে নতুন মাত্রা দিয়েছে৷ না, কোনো রাজনৈতিক বিষয় নিয়ে হইচই পড়ে যায় নি, আগ্রহের কারণ ভারতের কিছু স্কুলে জার্মান ভাষা শিক্ষার একটি কর্মসূচিকে ঘিরে৷ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফ্রাংক ভাল্টার স্টাইনমায়ার-এর নতুন দিল্লি সফরের ঠিক পরেই ভারত সরকার এই কর্মসূচি বাতিল করেছে৷

জার্মানির ভাষা ও সংস্কৃতি প্রসারের ক্ষেত্রে সক্রিয় গ্যোটে ইনস্টিটিউট – ভারতে যার শাখাগুলি মাক্স ম্যুলার ভবন নামে পরিচিত৷ ২০১১ সালে জার্মান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আর্থিক সহায়তায় এই প্রতিষ্ঠান ভারতে এক প্রকল্প শুরু করেছিলো৷ লক্ষ্য, ভারতের ১,০০০টি ‘কেন্দ্রীয় বিদ্যালয়' স্কুলে প্রথম বিদেশি ভাষা হিসেবে জার্মান শেখানো৷ এর জন্য জার্মান সরকার বছরে প্রায় ৭ লক্ষ ইউরো ব্যয় করে এসেছে৷ এর আওতায় জার্মান ভাষা শিক্ষকদের প্রশিক্ষণেরও ব্যবস্থা রয়েছে৷ ২০১৩-২০১৪ সালের শিক্ষাবর্ষে ৭০০টি স্কুলে প্রায় ১ লক্ষ ছাত্রছাত্রী জার্মান ভাষা ক্লাসে যোগ দিয়েছে৷

স্টাইনমায়ার গত সেপ্টেম্বর মাসের শুরুতে তাঁর ভারত সফরে সরাসরি এই কর্মসূচির সাফল্যের স্বাদ পেয়েছেন৷ নতুন দিল্লির একটি স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে তিনি প্রায় দেড় ঘণ্টা কাটিয়ে তাদের জার্মান ভাষা জ্ঞান ও জার্মানি সম্পর্কে তাদের আগ্রহের পরিচয় পেয়েছেন৷

এমন সাফল্যের পর জার্মান সরকার এই কর্মসূচির মেয়াদ আরও ৩ বছর বাড়াতে চেয়েছিলো৷ কিন্তু ভারত সরকার এর বিরোধিতা করেছে বলে জানিয়েছে ‘স্পিগেল অনলাইন'-এর প্রতিবেদন৷

জার্মান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অবশ্য এখনো হাল ছাড়তে প্রস্তুত নয়৷ মন্ত্রণালয়ের এক সূত্র অনুযায়ী, এই সফল কর্মসূচি যাতে চালিয়ে যাওয়া হয়, সেই প্রচেষ্টা চালু থাকবে৷ ভারতের স্কুলগুলিতে জার্মান ভাষাকে ঘিরে বিপুল উৎসাহ দেখা গেছে৷ শুধু ভারত নয়, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে জার্মান ভাষার প্রসারে সহায়তা করতে জার্মান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নানা উদ্যোগ নিয়ে চলেছে৷ ভারতে এই কর্মসূচির ক্ষেত্রে জার্মানির শিল্প-বাণিজ্য জগতেরও বেশ উৎসাহ দেখা গেছে৷ কারণ ভবিষ্যতে দক্ষ কর্মীর অভাব পূরণ করতে ভারতও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে বলে তাদের আশা রয়েছে৷

‘স্পিগেল অনলাইন'-এর সূত্র অনুযায়ী ভারতে বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসার পর উগ্র হিন্দু জাতীয়তাবাদী মনোভাবই এই সিদ্ধান্তের মূল কারণ৷ ফলে বিদেশি ভাষার প্রসারের বিষয়টি ভালো চোখে দেখা হচ্ছে না৷ সংস্কৃত ভাষা প্রসারে আগ্রহী একটি সংগঠন সম্প্রতি ভারতের সুপ্রিম কোর্টে বিদেশি ভাষার বদলে ভারতের ভাষাগুলি প্রসারের পক্ষে সওয়াল করেছে৷ অনেকে মনে করছেন, এমন প্রেক্ষাপটেই জার্মান ভাষা কর্মসূচি বাতিল করেছে সরকার৷ তবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রশাসন অর্থনৈতিক উন্নতি ও বিদেশের সঙ্গে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বাড়ানোর যে উদ্যোগ নিচ্ছে, তার আওতায় বিদেশি ভাষা শিক্ষার বিষয়টি গুরুত্ব পাবে বলে আশা করেছিলেন জার্মান কূটনীতিকরা৷

এসবি / জেডএইচ (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন