1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ভাইরাল ভিডিও

হিজড়াদের যে ভিডিওটি ভাইরাল

রক্ষণশীল মুসলিম দেশ পাকিস্তানে চলতি বছরের জুনে হিজড়াদের বিয়ের বৈধতা দিয়ে একটি ফতোয়া জারি করেছে সে'দেশের আলেম সমাজ৷ এ সংক্রান্ত একটি ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গেছে৷

ভিডিওতে তুলে ধরা হয়েছে পাকিস্তানের হিজড়াদের দুঃখ-কষ্ট ও যন্ত্রণার কথা৷ পাশাপাশি তাদের মধ্যে বিয়ের বৈধতার বিষয়টি স্পষ্ট করে তুলে ধরা হয়েছে৷ লাহোরের তানজিম ইত্তেহাদ-ই-উম্মত নামের স্বল্পপরিচিত একটি ধর্মীয় সংগঠনের ৫০ জন আলেম গত জুন মাসে ফতোয়া জারি করেন৷ ফতোয়ায় বলা হয়, ইসলাম ধর্মানুযায়ী, যেসব হিজড়ার দেহে নারী বা পুরুষের শারীরিক বৈশিষ্ট্যের ‘দৃশ্যমান চিহ্ন' দেখা যাবে, তারা তাদের বিপরীত লিঙ্গের কাউকে বিয়ে করতে পারবে৷ কিন্তু যাদের শরীরে উভয় লিঙ্গের ‘দৃশ্যমান চিহ্ন' থাকবে তারা বিয়ে করতে পারবে না৷ তবে এ শারীরিক লক্ষণ বা চিহ্নগুলো কী, তা ফতোয়ায় সুনির্দিষ্ট করে বলা হয়নি৷

ফতোয়ায় আরও বলা হয়, ‘হিজড়াদের অপমান বা হেয় করার উদ্দেশে করা যে কোনো কাজ বা আচরণ ইসলামে অপরাধ হিসেবে গণ্য৷'

‘নাউ দিস নিউজ' তাদের ফেসবুক পাতায় ভিডিওটি শেয়ার করার পর ১৬ লাখ বার দেখা হয়েছে৷ শেয়ার হয়েছে অন্তত ১৩ হাজার বার৷

ফতোয়াটি মানার ব্যাপারে অবশ্য কোনো আইনি বাধ্যবাধ্যকতা নেই বলে জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম৷ পাকিস্তানের হিজড়া অধিকার আন্দোলন কর্মীরা এ ফতোয়াকে ‘ভালো পদক্ষেপ' হিসাবে সতর্কতার সঙ্গে স্বাগত জানিয়েছেন৷ কারণ, তাঁরা বলছেন, এ বিষয়ে মানুষের মনোভাব এখনও বদলায়নি৷

হিজড়াদের নিয়ে অজ্ঞতার কারণে অনেকেই হিজড়া বিয়েকে সমলিঙ্গের বিয়ে ভেবে এ নিয়ে অভিযোগ তোলে৷ 

বন্ধু, আপনি ভিডিওটা দেখেছেন? কেমন লাগলো জানান আমাদের, লিখুন নীচের ঘরে৷

এপিবি/ডিজি

নির্বাচিত প্রতিবেদন