1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘হাসিনাকে বিচারের মুখোমুখি হতে হবে’

সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণে জাতীয়তাবাদী আইনজীবীদের সমাবেশে পুলিশ বাধা দেয়ায় জাতীয় প্রেসক্লাবে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছেন তারা৷ সেখানে খালেদা জিয়া বলেছেন, ‘‘এই দিন দিন নয়, আরো দিন আসবে৷ হাসিনাকেও একদিন বিচারের মুখোমুখি হতে হবে৷’’

Bangladesch Opposition Demonstration Begum Khaleda Zia

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া (ফাইল ফটো)

সারা দেশে গুম-খুন-অপহরণের প্রতিবাদে সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণে শনিবার সকালে সমাবেশ ডাকে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম৷ সেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকার কথা ছিল বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার৷

তবে সমাবেশকে কেন্দ্র করে সকাল থেকে সুপ্রিম কোর্টের সব প্রবেশ পথে অবস্থান নেয় পুলিশ৷ সমাবেশে অংশ নিতে সুপ্রিম কোর্টের ভেতরে প্রবেশ করতে চাইলে সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত অন্তত ১৬ জন আইনজীবীকে আটক করে পুলিশ৷ এ পরিস্থিতিতে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি খন্দকার মাহবুব হোসেনের নেতৃত্বে জাতীয়তাবাদী আইনজীবীদের একটি দল হাইকোর্ট মাজারের দিকের ফটকের সামনে অবস্থান নেয়৷ বেলা ১২টা পর্যন্ত আইনজীবীরা সেখানে অবস্থানের পর জাতীয় প্রেসক্লাবে প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করেন৷ আর সেখানেই শেষ পর্যন্ত বক্তৃতা দেন খালেদা জিয়া৷

সুপ্রিম কোর্টের রেজিষ্ট্রার এ কে এম শামসুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, শনিবারে সমাবেশের জন্য কোনো অনুমতি নেওয়া হয়নি৷ পুলিশের রমনা অঞ্চলের সহকারী কমিশনার শিবলী নোমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, সমাবেশের অনুমতি না থাকায় পুলিশ ব্যবস্থা নিয়েছে৷

তবে জবাবে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, ‘‘সুপ্রিম কোর্টে কোনো সমাবেশ করতে হলে ‘বার' থেকে অনুমতি নিতে হয়৷ বারের সভাপতি হিসেবে আমি এর মালিক৷ আমি তাদের সমাবেশ করার অনুমতি দিয়েছি৷ ইতোপূর্বেও এখানে বহু সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে৷''

তিনি বলেন, ‘‘বাংলাদেশে যে আইনের শাসন নেই তার প্রমাণ হচ্ছে আইনজীবী সমিতির সমাবেশে বাধা দেয়া৷ আমি বিশ্ব বিবেকের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি - দেখুন, বাংলাদেশে আইনের শাসন কোথায়? এদেশে গুম, খুন চলছে৷ আইনের শাসন নেই৷ এর থেকে রক্ষা করুন৷''

প্রতিবাদ সমাবেশে খালেদা

বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া প্রেসক্লাবের প্রতিবাদ সমাবেশে সরকারকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, ‘‘এত বাড়াবাড়ি ভালো না৷ বেশি বাড়লে আল্লাহরও একটা বিচার আছে৷ এই দিন দিন নয়, আরো দিন আসবে৷ হাসিনাকেও একদিন বিচারের মুখোমুখি হতে হবে৷''

তিনি বলেন, ‘‘এই অবৈধ সরকারের পায়ের নিচে মাটি নেই৷ এজন্য তারা শান্তিপূর্ণ সমাবেশও করতে দেয় না, তারা সমাবেশকে ভয় পায়৷ এই সরকার অবৈধভাবে বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়েছে৷ কিন্তু সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভোটে নির্বাচিত৷''

সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা বলেন, ‘‘আওয়ামী লীগ বেশি বাড়ার কারণে এখন নিজেরাই নিজেদের মারছে৷ তারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না৷ অবৈধ সরকারের অবৈধ মন্ত্রীরা যেসব কথা বলছে তা গণতন্ত্রের ভাষা নয়৷''

খালেদা জিয়া বলেন, ‘‘বাংলাদেশের সুনাম-সুখ্যাতি বলতে আজ আর কিছু নেই৷ সারা দেশে গুম আর খুন৷ চার দিকে কান্নার রোল৷ মা-বোনদের এই কান্না বৃথা যাবে না৷''

তিনি আবারো ব়্যাব বিলুপ্তির দাবি জানিয়ে গুম হওয়া ব্যক্তিদের তাদের পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিতে আহ্বান জানান৷

উল্লেখ্য সুপ্রিম কোর্ট এলাকায় ঢুকতে পুলিশের বাধার কারণে খালেদা জিয়া সেদিকে না গিয়ে দুপুর পৌনে ১২টার দিকে প্রেসক্লাবে এসে অবস্থান নেন৷ আর তারপরই প্রেসক্লাবে প্রতিবাদ সমাবেশের সিদ্ধান্ত নেন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী নেতারা৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়