1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

হারানো স্বজনের খোঁজে ইন্টারনেটে জাপানিদের ভিড়

দুর্যোগের মুহূর্তে ইন্টানেটের ইতিবাচক ভূমিকা আবারও প্রমাণিত হলো৷ প্রযুক্তির দিক থেকে অগ্রগামী দেশ জাপানে ভয়াবহ ভূমিকম্প এবং সুনামির পর হারানো স্বজনদের খুঁজে পেতে দারুণভাবে সহায়ক হয়েছে ইন্টারনেট৷

smokes, rise, Facebook, YouTube, houses, Soma, Fukushima, Japan, earthquake. tsunami, cars, buildings, সুনামি, স্বজন, সহায়ক, ইন্টারনেট, ইউটিউব, ফেসবুক, টুইটার

সুনামির পর হারানো স্বজনদের খুঁজতে সহায়ক হয়েছে ইন্টারনেট

শুক্রবার জাপানের উপকূলীয় অঞ্চলে ৮ দশমিক ৯ মাত্রার ভূমিকম্প এবং পরবর্তী সুনামির আঘাতে জর্জরিত এলাকার ছবিগুলো তাৎক্ষণিকভাবে ইন্টারেনেটে ভিড় জমাতে থাকে৷ এমনকি এসব ছবি হলিউডের যে কোন দুর্যোগ বিষয়ক ছবিকেও হার মানিয়েছে৷ এগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ভিজিট পেয়েছে সেন্ডাই বিমানবন্দরে বিশালাকারের পানির তোড়ের শক্তিশালী অনুপ্রবেশ৷ সেখানে দাঁড়িয়ে থাকা ছোট ছোট বিমান, গাড়ি এবং ট্রাকগুলোকে বিধ্বস্ত ঘর-বাড়ি ও আবর্জনার স্তূপের সাথে এমনভাবে ভাসিয়ে নিয়ে যাচ্ছিল সুনামির ঢল যে সেগুলোকে শিশুদের খেলনা ছাড়া আর কিছুই মনে হয়নি৷

এই ভয়াবহ দুর্যোগের নানা ছবি ও ঘটনার তথ্য পেতে শুধুমাত্র শনিবারই ইউটিউবে ভিড় করেছে প্রায় ৫০ লাখ মানুষ৷ এসব ছবি ও ভিডিও বার্তা দেখার পাশাপাশি সেগুলোর নিচে নিজেদের মতামত, খবর এবং স্বজনদের খোঁজে প্রয়োজনীয় তথ্য যোগ করে দিয়েছে দুর্যোগের কবলে পড়া শোকাহত জাপানিরা৷ এছাড়া বাবা, মা, ভাই, বোনসহ নিখোঁজ আত্মীয় স্বজনের খোঁজে ইন্টারনেট ভিত্তিক সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুক ও টুইটারসহ স্থানীয় ভাষার সাইটগুলোর আশ্রয় নিয়েছে তারা৷

এমনকি গুগল এর পিপল ফাইন্ডার পরিষেবা পরিণত হয়েছে দুর্যোগ মুহূর্তের একমাত্র ভার্চুয়াল তথ্য কেন্দ্রে৷ রবিবার পর্যন্ত ৮১ হাজার মানুষ তাদের স্বজনদের খোঁজে তথ্য অনুসন্ধান করেছে গুগলের এই পরিষেবায়৷ সাইটটিতে প্রতি মিনিটে শত শত মানুষ ইংরেজি এবং জাপানি উভয় ভাষায় তাদের স্বজনদের খোঁজ নিচ্ছে৷ আন্তর্জাতিক ত্রাণ সংস্থা রেড ক্রসও এসব দুর্যোগ পীড়িত মানুষের অনুসন্ধানে ও তথ্য প্রদানে একটি নতুন সাইট চালু করেছে৷ প্রতি সেকেন্ডে টুইটারে যোগ হচ্ছে নতুন সন্ধান, শুভ কামনা, সমবেদনা কিংবা উদ্ধার ও ত্রাণ তৎপরতার খবর৷

টুইটার চালু করেছে বার্তা পাঠানোর মাধ্যমে রেড ক্রসের ত্রাণ তহবিলে অর্থ প্রদানের ব্যবস্থা৷ এছাড়া সংগীত তারকা লেডি গাগা জাপানের দুর্যোগ পীড়িত মানুষের সাহায্যের জন্য একটি ব্রেসলেট ছেড়েছেন ইন্টারনেটে৷ এটি কেনার মাধ্যমে যে কেউ অর্থ সাহায্য পাঠাতে পারেন জাপানের ত্রাণ হতবিলে৷ জাস্টিন বিবার এবং অ্যালিসিয়া কিজ এর মতো তারকারাও টুইট করেছেন জাপানিদের জন্য শুভ কামনা করে৷

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: সাগর সরওয়ার