1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি ইউরোপ

হামবুর্গের অভিনব জার্মান শুল্ক মিউজিয়াম

গ্রীষ্মের ছুটিতে জার্মানির লাখ লাখ মানুষ বেড়াতে বের হন দেশ-বিদেশে৷ দেশে ফেরার সময় সীমান্তে দেখা হয় শুল্ক কর্মীদের সঙ্গে৷ তবে এই সব কর্মী শুধু ভ্রমণকারীদের মালপত্র নিয়ন্ত্রণই করেন না, তাঁদের আরো অনেক কাজকর্ম করতে হয়৷

শুল্ক বিভাগের অনেক দায়িত্ব

অন্যরা যখন ছুটির আনন্দে ভরপুর, তখন কাজ শুরু হয় শুল্ক কর্মীদের৷ বিদেশ থেকে আসা মানুষরা শুল্কযোগ্য বা অবৈধ কোনো সামগ্রী এনেছেন কিনা, সেটা তাঁরা পরীক্ষা করে দেখেন৷ ‘‘আপনার কাছে কি শুল্কযোগ্য কোনো কিছু আছে?'' এই প্রশ্নটা অনেক পর্যটকের কাছেই পরিচিত৷

তবে জার্মান শুল্ক বিভাগকে আরো অনেক দায়িত্ব পালন করতে হয়৷ এগিয়ে আসতে হয় অবৈধ কাজ প্রতিরোধে৷ যেমন কোনো প্রতিষ্ঠান আয়কর প্রদর্শন না করে কর্মী নিয়োগ দিলে৷ এছাড়া মাদক ও অস্ত্র চোরাচালান এবং সংঘবদ্ধ অপরাধ দমনেও সক্রিয় হতে হয় এই প্রতিষ্ঠানকে৷

Deutsches Zollmuseum Hamburg

প্রদর্শনীতে তুলে ধরা হয়েছে শুল্ক সংক্রান্ত কয়েক হাজার বছরের ইতিহাস

হামবুর্গ শহরে জার্মান শুল্ক মিউজিয়াম শুল্ক কর্মীদের কাজকর্ম কাছে থেকে দেখার একটা সুযোগ করে দিয়েছে৷ প্রদর্শনীতে তুলে ধরা হয়েছে শুল্ক সংক্রান্ত কয়েক হাজার বছরের ইতিহাস৷ এখানে এসে দর্শকরা প্রয়োজনীয় কিছু পরামর্শ পেতে পারেন৷ অস্বস্তিকর অবস্থার হাত থেকে রক্ষাও পেতে পারেন৷

সুটকেসে সুন্দর সুন্দর ‘স্যুভেনি'-র ভরে বিদেশ থেকে আসেন অনেকে, যেমন ব্রেসলেট, প্রবাল বা নতুন বেল্ট৷ কিন্তু অনেক সময় এই খুশিটা এক মুহূর্তে নিভে যায় শুল্ককর্মীদের কাছে এলে৷

হুমকির মুখে পড়া জীবজন্তু ও উদ্ভিদ রক্ষা

জার্মান শুল্ক বিভাগ হুমকির মুখে পড়া জীবজন্তু ও উদ্ভিদ রক্ষার ব্যাপারে চুক্তিবদ্ধ৷ তাই সাধারণ একটি বেল্টও হঠাৎ চড়ামূল্যের হয়ে যেতে পারে, যদি সেটি কোনো সংরক্ষিত জাতের কুমিরের চামড়ার হয়ে থাকে৷ সেটা বাজেয়াপ্ত তো করা হবেই, জরিমানাও হতে পারে৷ জানান শুল্ক মিউজিয়ামের লুটৎস হানেমান৷ তাই পর্যটকদের চর্ম বা উদ্ভিদজাত কোনো কিছু কিনতে হলে এ ব্যাপারে ভালো করে লক্ষ্য রাখা উচিত৷

শুধু তাই নয়, বিদেশ থেকে দামি কোম্পানির নকল করা জিনিস কেনার প্রবণতাও দেখা যায় অনেক ভ্রমণকারীর মধ্যে৷ অবশ্য না জেনেও প্রতারণার ফাঁদে পা দেন অনেকে৷ হামবুর্গের শুল্ক জাদুঘরে এই রকম বহু দৃষ্টান্ত প্রদর্শিত হয়েছে৷ যেমন আকাশছোঁয়া মূল্যের স্পোর্টস-এর জুতা অনেক দেশে পাওয়া যায় পানির দরে৷ নকল ধরা পড়লে আবার যেন আকাশ থেকেই পড়েন অনেকে৷ মুহূর্তেই আনন্দ হয়ে যায় মাটি৷

এইরকমভাবে বহু দামি কোম্পানির হাত ব্যাগ, খেলনা ও আরো অনেক কিছু নকল করে সস্তায় বিক্রি করা হয় বহু দেশে৷ ‘‘এত কম দাম দেখে মাথা গুলিয়ে যায় অনেকের৷ কিন্তু এই খোশ মেজাজ বেশিক্ষণ টিকে থাকে না৷ শুল্ককর্মীরা ধরে ফেলতে পারেন নকলটা'', জানান হানেমান৷ জিনিসটি বাজেয়াপ্ত করে ফেলেন তাঁরা৷ সেই সাথে জরিমানার ধাক্কাও সামলাতে হয় পর্যটকদের৷ বেআইনিভাবে কোনো জীবজন্তু নিয়ে এলেও ক্ষতিপূরণের হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যায় না৷

Deutsches Zollmuseum Hamburg

শুল্ককর ফাঁকি দেওয়ার জন্য এরকম গাড়ি ব্যবহার করা হয়ে থাকে

অর্থনীতি ও ক্রেতাদের স্বার্থেই

শেষ পর্যন্ত অর্থনীতি ও ক্রেতাদের স্বার্থেই কাজে লাগে এই ধরনের পদক্ষেপ৷ শুল্ক বিভাগের অনুমান, বিশ্ব বাণিজ্যের আট শতাংশই দখল করে আছে নকল পণ্যের বাজার৷ যা আসল প্রস্তুককারীদের জন্য বিশাল ক্ষতির কারণ৷ এইসব জিনিস সস্তায় তৈরি হয়, স্বাস্থ্যের জন্যও মারাত্মক ক্ষতিকর৷ বিশেষ করে ওষুধপত্র ও খাদ্যদ্রব্যের বেলায় সাবধানতা অবলম্বন করা উচিত৷ নকল ব্রান্ডি থেকে তো বিষক্রিয়াও হতে পারে৷ সতর্ক করে বলেন হানেমান৷

শুল্ক জাদুঘরটি ঘুরে ফিরে দেখে সাধারণ মানুষ হাল্কা বোধ করতে পারে৷ দেখেশুনে জিনিস কিনলে শুল্ক নিয়ন্ত্রণের ঝামেলায় পড়তে হয় না৷ অবশ্য অপরাধ প্রবণতা থাকলে বিষয়টি অন্যরকম৷ যেমন অস্ত্রশস্ত্র, মাদক দ্রব্য ও সিগারেট চোরাচালান করলে৷ গাড়ির একটি খোলস রেখে দেখানো হয়েছে চোরাচালানকারীদের অভিনব সব আইডিয়া৷ গাড়ির বিভিন্ন জায়গায় যেমন সিটের নীচে বা ইঞ্জিনের পেছনে সিগারেট, টাকা-পয়সা, মাদক দ্রব্য ইত্যাদি লুকিয়ে রেখে সীমান্ত পার হওয়ার চেষ্টা করে তারা৷ এক্ষেত্রে খেলাধুলার সাজ সরঞ্জামও বাদ যায় না৷ গলফ খেলার বলে কোকেন লুকিয়ে রাখার ঘটনাও ঘটেছে৷ এদিক দিয়ে মাথা খাটাতে ওস্তাদ এই সব অপরাধীরা৷ এই ধরনের দৃষ্টান্ত দেখা যাবে হামবুর্গের শুল্ক মিউজিয়ামটিতে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়