1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

হাজির ওবামা, গিফোর্ডস, এনডিয়েভরকে বিদায় জানাতে

আজ শেষ যাত্রা এনডিয়েভরের৷ তার জন্য সাজ সাজ রব৷ মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাও সেখানে যাচ্ছেন৷ আসছেন বহু হোমরাচোমরা৷

default

মহাশূণ্যের স্পেস স্টেশনে ডকিং করার পরের মুহূর্তে এনডিয়েভর

কম কথা নয়৷ মহাশূণ্যের শেষবার পাড়ি দেবে আজই সেই বিশ্বখ্যাত মহাকাশযান এনডিয়েভর৷ কেপ ক্যানাভেরাল থেকে তার এই শেষবার পৃথিবীর মায়া কাটিয়ে উড়ে যাওয়ার ঐতিহাসিক ঘটনার সাক্ষী থাকতে তাই সেই উৎক্ষেপণ কেন্দ্রে হাজির থাকতে চান অনেকেই৷

অনেকের মধ্যে এক নম্বর নামটা যদি বারাক ওবামা হয় তাহলে দু'নম্বরে বলতে হবে এই মহাকাশযানের শাটল কমান্ডার মার্ক কেলির নামটা৷ এমনিতেই তো তিনি একজন নামজাদা অ্যাডভেঞ্চারাস তরিত্র৷ যিনি বারবার মহাশূণ্যে যান৷ মহাকাশচারী যাকে বলে৷ এমনকি এবারের এনডিয়েভরের শেষ যাত্রারও ক্যাপ্টেন তিনিই৷

এই কেলির স্ত্রীও কিছু কম নন৷ তিনি হলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নামজাদা কংগ্রেস ওম্যানদের একজন গাব্রিয়েল গিফোর্ডস৷ ইনিই সেই ব্যক্তিত্ব যিনি পররাষ্ট্র বিষয়ে মার্কিন স্তম্ভদের একজন৷ তো, গিফোর্ডস-এর দপ্তর হল হাউস্টনে৷ সেখান থেকে তিনি স্বামী মার্ক কেলির সঙ্গে দেখা করতে বৃহস্পতিবারেই বিমানে রওনা দিয়েছেন৷ তাঁর দপ্তর সূত্রেই জানানো হয়েছে খবরটা৷

এবারে এনডিয়েভর তার শেষ যাত্রায় মহাশূণ্যে যে স্রেফ বেড়াতেই যাচ্ছে, তা কিন্তু নয়৷ আমাদের এই গ্রহের যেদিকটাকে মহাশূণ্য থেকে ঠিকমত দেখা যায়না, তাকে বলা হয় ডার্ক সাইড৷ এবারে সেই দিকটার ছবি তুলতে চান বিজ্ঞানীরা৷ তারই জন্য তাকে এবারে প্রস্তুত করা হয়েছে৷

ভালোয় ভালোয় ফিরে আসুক এনডিয়েভর৷ নাসার ত্রিশ বছরের মহাকাশযানের চলতি পদ্ধতি এ বছরেই শেষ হচ্ছে৷ এরপর মহাশূণ্যে যাওয়ার জন্য আসবে নতুন ধরণের মহাকাশযান৷ তারা হবে নতুন প্রজাতির৷ আর এই ডিসকভারি বা এনডিয়েভররা চলে যাবে জাদুঘরে৷ সেইসঙ্গে ইতিহাসের পাতাতেও৷

প্রতিবেদন : সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা: সাগর সরওয়ার

সংশ্লিষ্ট বিষয়