1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘হলোকস্টকে স্মরণে রাখতেই হবে’ আউশভিৎসে বললেন ভুল্ফ

নাৎসি আমলের ইহুদি নিধনযজ্ঞ বা হলোকস্ট-এর কথা ভোলার নয়৷ ২৭ জানুয়ারি, অর্থাৎ আজই জাতিসংঘ ঘোষিত আন্তর্জাতিক হলোকস্ট স্মরণ দিবস৷ তাই নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে জার্মান প্রেসিডেন্ট ক্রিশ্চিয়ান ভুল্ফ সকালেই গেছেন পোল্যান্ডে৷

default

হলোকস্টকে স্মরণে রাখতে পোল্যান্ডে জার্মান প্রেসিডেন্ট

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়ে ১৯৪৩ সালে জার্মানির কয়েকটি নাৎসি কনসেন্ট্রেশন ক্যাম্পসহ পোল্যান্ডের আউশভিৎস এবং বির্কেনাউ কনসেন্ট্রেশন ক্যাম্পে লাখ লাখ ইহুদিকে হত্যা করেছিল নাৎসিরা৷ নাৎসি আমলের ইহুদি নিধনযজ্ঞ বা হলোকস্ট-এর দীর্ঘ ছয় দশকেরও বেশি সময় পার হয়ে গেছে৷ কিন্তু ভয়াবহ সেই ঘটনার কালো ছায়া আজও জীবন্ত৷ আজ হলোকস্টের ৬৬ তম বার্ষিকী৷

নিহত ইহুদিদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে জার্মান প্রেসিডেন্ট ক্রিশ্চিয়ান ভুল্ফ বৃহস্পতিবার সকালেই গেছেন পোল্যান্ডে৷ পোল্যান্ডের আউশভিৎস-বির্কেনাউ কনসেন্ট্রেশন ক্যাম্প প্রাঙ্গনে হলোকস্ট থেকে বেঁচে যাওয়া জীবিতদের সঙ্গে মিলিত হন জার্মান প্রেসিডেন্ট ক্রিশ্চিয়ান ভুল্ফ এবং পোলিশ প্রেসিডেন্ট ব্রনিস্লাভ কমোরোভস্কি৷ বৃহস্পতিবার দিনের শুরুতেই জার্মান প্রেসিডেন্ট তরুণদের উদ্দেশ্যে বলেন, হলোকস্টকে স্মরণ রাখা সবার দায়িত্ব৷ তিনি বলেন, প্রতিটি প্রজন্মকে জানতে হবে, নাৎসি যুগে সভ্যতা কীভাবে ভেঙে পড়েছিল এবং এই অপরাধের পুনরাবৃত্তি প্রতিরোধে তাদেরকে কাজ করতে হবে৷

Holocaust Mahnmal in Berlin Deutschland Flash-Galerie

বার্লিনে অবস্থিত হলোকস্ট মেমোরিয়াল

প্রেসিডেন্ট ক্রিশ্চিয়ান ভুল্ফ বলেন, ‘‘এই অমানবিক ঘটনা অনেক আগেই একটি প্রামাণ্য চিত্রের মাধ্যমে আমার কাছে পরিষ্কার হয়ে যায়৷ এই নিয়ে জার্মানিতে বিতর্কেরও সৃষ্টি হয়েছিল যেখানে আমি লক্ষ্য করি পুরো ঘটনাটিকে এড়িয়ে যাবার একটা চেষ্টাও ছিল৷''

আউশভিৎস-এর সাবেক বন্দি এবং তরুণদের সঙ্গে মিলিত হবেন জার্মান প্রেসিডেন্ট৷ এর পরে নিহতদের স্মরণে ‘ডেথ ওয়াল'-এ পুস্প স্তবক অর্পণ করা ছাড়াও দিনটি উপলক্ষে আনুষ্ঠানিক বক্তব্য রাখেন নেতারা৷ পোলিশ প্রেসিডেন্ট ব্রনিস্লাভ কমোরোভস্কি বলেন, পোলিশরা প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে যুদ্ধের এই দীর্ঘ ক্ষত বহন করবে৷ এমন কী তিনি নিজেও৷ পোলিশ প্রেসিডেন্ট বলেন. তাঁর পুরো শৈশব জুড়ে রয়েছে যুদ্ধের যন্ত্রণাময় স্মৃতি৷

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়ে নাৎসি জার্মানি শুধু আউশভিৎস কনসেন্ট্রেশন ক্যাম্পেই হত্যা করেছে প্রায় ১১ লাখ মানুষকে৷ ঐ ক্যাম্পে পোলিশ, রোমা, সোভিয়েত যুদ্ধবন্দি ছাড়াও আরো বহু দেশের যুদ্ধবন্দি ছিলেন, যাদের সবাইকে হত্যা করা হয়৷

হলোকস্ট-এ নিহতদের স্মরণে জার্মান পার্লামেন্টে বৃহস্পতিবার শোক প্রকাশ করা হয়েছে৷ স্পিকার নর্বার্ট লামার্ট বলেন, নাৎসি জার্মানির সেই ভয়াবহতার কথ ভুলে যাবার নয়৷ প্রতি বছরে এই দিনে জার্মান পার্লামেন্টে বক্তব্য রেখে থাকেন সেই গণহত্যা থেকে বেঁচে যাওয়া কোনো ব্যক্তি৷ এই বছরই প্রথম স্পিকার বক্তব্য রাখলেন৷

প্রতিবেদন: ফাহমিদা সুলতানা

সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়