1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

হলিউড, বলিউড : দুই প্রবীণ অভিনেতা

‘‘স্পার্টাকাস’’ খ্যাত কার্ক ডগলাস, আজ ৯৩ বছর বয়স, বাস নিউ ইয়র্কে৷ আর ‘‘জংলি’’, ‘‘কাশ্মীর কি কলি’’, ‘‘তিসরি মঞ্জিল’’ খ্যাত শাম্মি কাপুর, বয়স ৭৮, বাস মুম্বই’তে৷ জীবনসায়াহ্নে তাঁদের দু’টি সম্পূর্ণ পৃথক ছবি৷

default

কার্ক ডগলাস (ফাইল ফটো)

কার্ক ডগলাসের যোগ্য সন্তান মাইকেল ডগলাস, যিনি ক্যাথেরিন জেটা-জোন্স'কে বিবাহ করেছেন৷ সেই মাইকেলের সুযোগ্য কিংবা অযোগ্য সন্তান হলেন ক্যামেরন ডগলাস, যিনি আপাতত মাদক বেচার দায়ে অন্তত দশ বছরের কারাদণ্ড পাবার মুখে৷ আগামী সপ্তাহে নিউ ইয়র্কে ক্যামেরনের বিচার৷ গতবছরের জুলাই মাসে ক্যামেরনকে ঐ নিউ ইয়র্কেরই একটি অভিজাত হোটেল থেকে গ্রেপ্তার করা হয়, ক্রিস্টাল মেথ বা মেথ্যাম্ফিটামাইন নামধারী মাদকটি বিক্রি করার দায়ে৷ ক্যামেরন সে অভিযোগ স্বীকারও করেছেন৷

তাই এখন পিতামহ কার্ক, পিতা মাইকেল এবং সৎমা ক্যাথেরিন চিঠি লিখতে বসেছেন মাননীয় বিচারককে৷ মাইকেলের চিঠির উপজীব্য প্রকাশ করা হয়নি৷ কার্ক ডগলাস বিচারক রিচার্ড বের্মান'কে লিখিত পত্রে বলেছেন, মরণের আগে তাঁর শেষ ইচ্ছা হল, ক্যামেরনকে অভিনেতা হিসেবে সাফল্য পেতে দেখে যাওয়া৷ সৎমা ক্যাথেরিন লিখেছেন, ক্যামেরন তার সৎ ভাইবোনদের প্রতি খুবই স্নেহশীল এবং মাদকাসক্তির ‘‘রোগের'' বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছে৷ বিচারক এই সব চিঠি থেকে কতোটা প্রভাবিত হবেন, তা' বলা শক্ত৷

টুইটার শাম্মি

Shammi Kapoor

শাম্মি কাপুর (ফাইল ফটো)

শাম্মি কাপুর ছিলেন, তাঁর যুগে, একটি বিপ্লব বিশেষ৷ তিনি যে কতোটা ক্লাউন আর কতোটা হিরো, সেটা তাঁর সবচেয়ে বড় ভক্তরাও কোনোদিন বুঝে উঠতে পারেননি৷ তবে

Indien Bollywood Schauspielerin Deepika Padukone

দীপিকা পাড়ুকোন

শাম্মির ছবি মানেই ছিল চমক৷ আর আশি ছুঁই-ছুঁই করেও শাম্মি এখনও চমক দিতে পারেন৷ কে জানে কোন খেয়ালে বলিউড তারকা দীপিকা পাড়ুকোন'কে টুইট করেছিলেন শাম্মি: ‘‘হাই দীপিকা, যোগাযোগ করতে চাও? হয়তো আমার এখানে এক কাপ কফি নিয়ে বসা যেতে পারে - ভালোবাসা নিও, আঙ্কল শাম্মি৷'' ওদিকে দীপিকা আবার বলিউডের অন্যান্য কমবয়সি তারকাদের মতোই টুইটার পাগল৷ তিনি নাকি ভাবতেই পারেননি যে, শাম্মি টুইট করতে পারেন৷ যাই হোক, এই মঙ্গলবার সেই ‘কফি ডেট'-এর পরে দীপিকা তাঁর টুইটার পেজ-এ লিখেছেন: ‘‘এটা ছিল আমার জীবনের সেরা এবং মনে রাখার মতো দিনগুলির মধ্যে একটি৷''

প্রতিবেদক : অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সম্পাদনা : হোসাইন আব্দুল হাই

সংশ্লিষ্ট বিষয়