1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

স্যাটেলাইট অনেক কিছু, কিন্তু বোঝা যায় না

আমাদের দৈনন্দিন জীবনের সঙ্গে স্যাটেলাইট প্রযুক্তি বেশ ভালোভাবেই জড়িয়ে আছে৷ শুধু যে মোবাইল ফোন আর কেবল টিভি তা নয়, স্যাটেলাইট ছাড়া সম্ভব হত না আরো অনেক কাজ৷

মূল্যবান খনিজ সম্পদের খোঁজ, দুর্যোগকালীন সময়ে উদ্ধার তৎপরতা চালানো, জ্বালানি, মৎস্যসম্পদ, কৃষিকাজ, পরিবেশ সংরক্ষণ – এমন কাজগুলো সম্পাদনের জন্য স্যাটেলাইটের কাছে ধরনা দেন সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে বিভিন্ন সংস্থা ও দেশের সরকার৷

যেমন একটা হিসেবে জানা যায়, ইউরোপের স্যাটেলাইট ইন্ডাস্ট্রি থেকে ইইউ দেশগুলো প্রতিবছর গড়ে প্রায় ৩০ বিলিয়ন ইউরো মূল্যের সামাজিক ও আর্থিক সুবিধা পেয়ে থাকে৷

এভাবে স্যাটেলাইট থেকে সবাই সুবিধা নিলেও এর প্রসারে সাড়া দিতে সংস্থা ও সরকারগুলোকে খুব একটা আগ্রহী মনে হয় না৷

Konferenz Globale Risken Arti Holla

ইউরোপীয় স্যাটেলাইট অপারেটরস এসোসিয়েশন-এর মহাসচিব আরতি হোলা

অর্থনীতি বিষয়ক অ্যাডভোকেসি গ্রুপ ‘ওয়ার্ল্ড ইকনমিক ফোরাম' এর এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ব্রুস উইনহেল্ট বলেন, ‘‘আসলে ব্যাপারটা অনেকটা ‘আউট অফ সাইট, আউট অফ মাইন্ড' এর মতো৷ কারণ স্যাটেলাইটকে তো আপনি আর স্মার্টফোন এর মতো হাতে ধরতে পারেন না৷''

ইউরোপীয় স্যাটেলাইট অপারেটরস এসোসিয়েশন-এর মহাসচিব আরতি হোলাও অনেকটা একইরকম মন্তব্য করেছেন৷ তিনি বলেন, ‘‘আজকালকার দিনে সবাই স্মার্টফোন, ট্যাবলেট ব্যবহার করে৷ অন্যদিকে মহাকাশ হচ্ছে অনেক দূরের ব্যাপার৷ তাই আমাদের প্রযুক্তিটাকে মানুষ মনে করে ‘টেকন ফর গ্র্যান্টেড'৷ অর্ধেকটা সময় মানুষের মনেই থাকে না যে তারা এটা ব্যবহার করছে৷''

এসব কারণে মহাকাশ থেকে মেয়াদোত্তীর্ণ স্যাটেলাইট নামিয়ে আনার প্রয়োজনীয়তা থাকলেও সে ব্যাপারে কারো খুব একটা আগ্রহ দেখা যাচ্ছে না৷ কেননা ব্যাপারটা অনেক ব্যয়বহুল৷

ইউরোপীয় স্পেস এজেন্সির এ সংক্রান্ত কার্যালয় ‘স্পেস ডেবরিস অফিস' এর প্রধান হাইনার ক্লিনকার্ড বলেন, এ মুহূর্তে অর্বিট বা কক্ষপথে প্রায় ৬,৮০০ টন আবর্জনা জমে আছে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন