1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

স্মার্টফোন যখন চলচ্চিত্র-নির্মাতাদের হাতিয়ার

আজ প্রায় সবার হাতে৷ ইন্টারনেট সংযোগের গতি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তার ব্যবহারও বেড়ে চলেছে৷ চলচ্চিত্র নির্মাতারাও এই প্রবণতা উপেক্ষা করতে পারছেন না৷ ছোট ছোট ভিডিওর মাধ্যমে তাঁরাও মনোযোগ আকর্ষণ করার চেষ্টা করছেন৷

DW euromaxx Sebastian Linda Webvideo

ওয়েব ভিডিও তৈরি করছেন সেবাস্টিয়ান লিন্ডা

শুধু একটা স্মার্টফোন আর ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স৷ ছবি তুলতে সেবাস্টিয়ান লিন্ডা-র আর কিছু লাগে না৷ এমনকি স্মার্টফোনেই ভিডিও এডিটিং-এর কাজ সেরে ফেলেন তিনি৷ সামান্য কিছু রদবদল ও বাড়তি এফেক্ট জুড়তে হয়৷ তারপর ড্রেসডেন শহরের এই চলচ্চিত্র নির্মাতা ছোট ভিডিও-গুলি ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেন৷ এভাবে তিনি তাঁর অনুরাগীদের পরবর্তী প্রকল্পের আভাস দেন৷ সেবাস্টিয়ান লিন্ডা বলেন, ‘‘এটা অবশ্যই এক দারুণ সুযোগ৷ তবে একই সঙ্গে আমি বড় আকারের কাজও করে যাবো৷ ছোট ভিডিও ভাইরাল হয়ে উঠতে পারে, লাখ লাখ ভিউ পেতে পারে৷ প্রত্যেকটি ক্লিপের মাধ্যমে গল্প বলতে, সেই কাজে আরও সময় দিতে আমার আরও ভালো লাগে৷ তার রেষ থেকে গেলেই হলো৷''

‘দ্য জার্নি অফ বিস্টস' নামের আধ ঘণ্টার এক তথ্যচিত্রে সেবাস্টিয়ান লিন্ডা ১০ জন পেশাদারি স্কেটার-এর ইন্দোনেশিয়া ভ্রমণের সঙ্গী হয়েছেন৷ এর জন্য তিনি ২০১৫ সালে ‘সেরা ক্যামেরা' বিভাগে জার্মান ওয়েব ভিডিও পুরস্কার পেয়েছেন৷ সেবাস্টিয়ান তাঁর ভিডিওটি ‘ভিমিও' ওয়েবসাইটে আপলোড করেন, যা চলচ্চিত্র নির্মাতাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এক প্ল্যাটফর্ম৷ কারণ এর ব্যবহারকারীরা তাঁদের খুশিমতো ভিডিও দেখতে পারেন৷ এমনকি দ্রুত ইন্টারনেট সংযোগ থাকলে উন্নত মানের হাই ডেফিনিশন ফিল্মও দেখা যায়৷

ইন্টারনেটে ভিডিও দেখার সুযোগ বেড়েই চলেছে৷ অ্যামাজন প্রাইম ইনস্ট্যান্ট ভিডিও অথবা নেটফ্লিক্স-এর মতো পরিষেবায় নির্দিষ্ট মাশুলের বিনিময়ে চলচ্চিত্র ও টিভি সিরিজ দেখা যায়৷ ব্যবহারকারীদের চাহিদা মেটাতে ইউটিউব-ও নড়েচড়ে বসেছে৷ কোম্পানির কনটেন্ট ম্যানেজার বেন ম্যাকওয়েন উইলসন-এর সূত্র অনুযায়ী তাঁরাও আরও দীর্ঘ ভিডিও-কে গুরুত্ব দিচ্ছেন৷ ইউটিউব-এর বেন ম্যাকওয়েন উইলসন বলেন, ‘‘ইউটিউব আত্মপ্রকাশ করার সময়ে অনেকে ভেবেছিলেন, তাতে শুধু ছোট ভিডিও দেখা যাবে৷ মানুষ কিন্তু ভাইস-এর মতো অনুষ্ঠান দেখতে পছন্দ করেন৷ অর্থাৎ ৩০ বা ৪৫ মিনিট দীর্ঘ উচ্চ মানের ভিডিও অনেক মানুষকে আকৃষ্ট করে৷''

ভবিষ্যতে ব্যবহারকারীরা মূলত মোবাইল ফোনেই ভিডিও দেখবেন এবং তৈরিও করবেন৷ ইন্টেরনেট বিশেষজ্ঞ রিশার্ড গুটইয়ার এর কারণ ব্যাখ্যা করলেন৷ ইন্টেরনেট বিশেষজ্ঞ রিশার্ড গুটইয়ার বলেন, ‘‘এতকাল মোবাইল নেটওয়ার্ক ভিডিও আদানপ্রদানের জন্য বড় দুর্বল ছিল৷ তখন পর্দায় ধীরে ধীরে অগ্রগতি দেখা যেত৷ পরবর্তী প্রজন্মের প্রযুক্তি ‘জি-ফাইভ' মোবাইল ফোনে প্রচলিত যে কোনো অপটিকাল ফাইবার কেবেল-এর থেকেও দ্রুতগতির ইন্টেরনেট সংযোগ আনতে চলেছে৷''

প্রায় পাঁচ বছর পর এই নতুন মোবাইল প্রযুক্তি চালু হবার কথা৷ সেকেন্ডে ৬ গিগাবাইট গতিতে হাই ডেফিনিশন ভিডিও ডাউনলোড করতে মাত্র কয়েক সেকেন্ড সময় লাগবে৷ মোবাইল ফোনের বেড়ে চলা ব্যবহারের কারণে নতুন ধরনের সৃজনশীল পদ্ধতিও চালু হচ্ছে৷ যেমন ‘ভাইন' নামের অ্যাপ ৬ সেকেন্ডের লুপ-এর মতো নানা কৌশল হাতে এনে দিচ্ছে৷ ‘স্ন্যাপচ্যাট' মেসেঞ্জার ভার্টিকাল ভিডিও-র সুবিধা দিচ্ছে৷ সেবাস্টিয়ান লিন্ডা এই প্ল্যাটফর্ম-এর বৈচিত্র পছন্দ করেন৷ সেবাস্টিয়ান লিন্ডা বলেন, ‘‘বেশি সংখ্যক মানুষ ইন্টেরনেটে বিচরণ করায় তার প্রাসঙ্গিকতাও বেড়ে যাচ্ছে৷ সবারই কম্পিউটার আছে, স্মার্টফোন আছে, যা দিয়ে ভিডিও স্ট্রিম করা যায়৷ অ্যাপ-গুলির ক্ষমতাও বাড়ছে৷ ধারাবাহিক উন্নতি ঘটে চলেছে৷''

সেবাস্টিয়ান লিন্ডা ইনস্টাগ্রাম-এর জন্য নিজের ভিডিও প্রস্তুত করছেন এবং দীর্ঘ ভিডিও নিয়েও ব্যস্ত রয়েছেন৷ আগামী প্রিমিয়ার অনুষ্ঠানও অনলাইন জগতে হবে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

সংশ্লিষ্ট বিষয়