1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

স্মার্টফোন অ্যাপে ঘুরে আসুন বার্লিন

বার্লিন বেড়াতে যাচ্ছেন? কী দেখবেন, কীভাবে যাবেন, কোথায় খাবেন – জানেন না? কোনো সমস্যা নেই৷ কারণ জার্মানির রাজধানীতে আপনি কি কি করতে পারেন – তার সব কিছু বলে দেবে আপনার স্মার্টফোন অ্যাপটি৷

default

বার্লিনের জন্য অন্তত ১৩০টি অ্যাপ রয়েছে

পৃথিবীর প্রায় সব বড় শহরের ম্যাপ আর তথ্য নিয়ে পর্যটকদের জন্য রয়েছে এ রকম অসংখ্য অ্যাপ৷ কেবল জার্মানির রাজধানী বার্লিনের জন্যই অন্তত ১৩০টি অ্যাপ রয়েছে৷ আর এই সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে৷

ট্যুর এজেন্সি ভিজিট বার্লিন-এর কর্মকর্তা ক্যাথারিনা ড্রেগার জানান, এ সব অ্যাপে বেশ কয়েকটি ভাষায় পর্যটকদের জন্য ভ্রমণ সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ ও দিক নির্দেশনা দেয়া থাকে৷ পর্যটকদের মধ্যে এ ধরনের স্মার্টফোন অ্যাপের জনপ্রিয়তা দিন দিন বাড়ছে৷

কিছু অ্যাপে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে বার্লিনের ঘটনাবহুল ইতিহাসকে৷ বার্লিন প্রাচীরের মতো ঐতিহাসিক স্থাপনা, নাৎসি আমলের বিভিন্ন স্মৃতিচিহ্ন এবং গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে কীভাবে যাওয়া যাবে – সে বিষয়ে গাইড পাওয়া যাবে এ সব অ্যাপে৷

আবার বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, অনুষ্ঠান, কেনাকাটা, রেস্তোরাঁ, এমনকি বার্লিনের সমকামীদের জীবন নিয়েও রয়েছে অ্যাপ৷ বার্লিনের প্রাণকেন্দ্র ও এর আশেপাশের এলাকা ঘুরে দেখার জন্য রয়েছে ‘৩৬০ ডিগ্রিস বার্লিন', ‘নয়ক্যোলন কিৎসএক্সপ্লোরার' কিংবা ‘পটসডামার প্লাৎস'-এর মতো অ্যাপ৷

আরো আছে ‘পার্কভিউ' অ্যাপ, যার সাহায্য নিয়ে ট্যুরিস্টরা বার্লিনের বিভিন্ন পার্ক, উদ্যান, চত্বর ও স্মারকগুলো ঘুরে দেখতে পারেন৷ ‘বুকসঅ্যারাউন্ড' অ্যাপ তাঁদের জানিয়ে দেবে, বার্লিনের বিখ্যাত সব লেখকরা কোথায় থাকতেন, কোন জায়গার প্রেক্ষাপটে, কোন উপন্যাসটি তাঁরা লিখেছিলেন৷

বার্লিন শহরের বিভিন্ন এলাকায় ছড়িয়ে থাকা গ্রাফিতি আর স্ট্রিট আর্টগুলো খুঁজে বের করার জন্য রয়েছে ‘অ্যাডিডাস আর্বান আর্ট গাইড'৷

আর যাঁরা বাইক ভালবাসেন, তাঁদের প্রয়োজন হবে ‘কমুট বাইক বার্লিন' অথবা ‘বাইক সিটি গাইড বার্লিন'-এর মতো অ্যাপ৷

বার্লিনের বাস, ট্রাম, এস-বান ও ইউ-বান ট্রেন কখন কোন গন্তব্যে ছেড়ে যায়, তা জানতে স্মার্টফোনে থাকতে হবে আইফারইনফো অথবা বিভিজি ফারইনফো প্লাস৷

‘ব্লুস্পট বার্লিন' অ্যাপ শহরের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানের খোঁজ দেয়ার পাশাপাশি ট্যাক্সি বা বাইক ভাড়া করার সুবিধা দিচ্ছে৷ একজন স্মার্টফোনধারী পর্যটকের অবস্থান জিপিএসে জেনে নিয়ে ‘ট্যাক্সি বার্লিন' অ্যাপ বলে দেবে, সেখান থেকে গন্তব্য পৌঁছাতে কত টাকা ও কতটা সময় লাগবে৷ এই অ্যাপের সাহায্যে সরাসরি ট্যাক্স কন্ট্রোল রুমের সঙ্গেও যোগাযোগ করা যাবে৷

শারীরিক প্রতিবন্ধী পর্যটকদের নিরাপদ ভ্রমণে সহযোগিতা দিতে রয়েছে ‘হুইলম্যাপ' অ্যাপ৷ ‘বার্লিন মিউজিয়াম গাইড' অ্যাপে রয়েছে প্রায় ২০০ জাদুঘর এবং কোথায় কোন প্রদর্শনী হচ্ছে তার তালিকা৷ আর ‘হোয়াটওয়াজহিয়ার' অ্যাপ দিচ্ছে ইন্টারঅ্যাকটিভ হিস্ট্রি ট্যুরের সুবিধা৷

কেবল বার্লিন প্রাচীর নিয়েই রয়েছে বেশ কিছু অ্যাপ৷ এর মধ্যে ‘জিডিআর ডিক্টেটরশিপ ইন বার্লিন' অ্যাপটি কমিউনিস্ট শাসনামলের পূর্ব জার্মানির ঐতিহাসিক স্থানগুলো পর্যটকদের চিনিয়ে দেবে৷

জেকে/ডিজি (ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়