1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘স্বাধীনতার চেতনা আ. লীগের কাছে ব্যাবসামাত্র’

পরপর পাঁচটি সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থীদের পরাজয়ের পর, ব্লগার ও ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মধ্যে নানারকম আলোচনা শুরু হয়েছে৷ কেউ এর কারণ খোঁজার চেষ্টা করছেন৷ কেউ প্রকাশ করছেন আনন্দ৷ আবার কেউ বা হতাশা৷

নিঝুম মজুমদার ফেসবুকে লিখেছেন, তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতির একজন ঘোর সমালোচক৷ কিন্তু তারপরও নাকি তাঁর কিছু করার নেই৷ কেননা তাঁর মতে, তাঁর অবস্থা এখন অনেকটা ‘লাইফ অফ পাই' মুভির মতো৷ ‘‘বিএনপি-জামাতকে আমরা হয়ত স্বপ্নে কিংবা কল্পনাতেও সমর্থন করতে পারব না৷ সুতরাং আমাদের শেষ পর্যন্ত আশা রাখতে হয় আওয়ামী লীগকে ঘিরেই৷ কিছু করবার নেই৷ শেষ পর্যন্ত এই দেশে স্বাধীনতার চেতনাটুকু আওয়ামী লীগের হাত ধরেই বেঁচে রয়েছে, যদিও তাদের কাছে এটি লাভজনক একটা ব্যাবসামাত্র৷''

স্ট্যাটাসটি দেয়ার ১৩ ঘণ্টার মাথায় এটি ‘লাইক' করেছেন ৩৯৪ জন, আর শেয়ার করেছেন ১৯ জন৷ এছাড়া মন্তব্যও করেছেন অনেকে৷

সৈয়দ মিরাজ লিখেছেন, ‘‘শেষ পর্যন্ত এই দেশে স্বাধীনতার চেতনাটুকু আওয়ামী লীগের হাত ধরেই বেঁচে রয়েছে!! লাইনটা পড়ে অনেকক্ষণ ধরে হাসলাম৷'' অবশ্য মিরাজ কেন হাসছেন তা জানতে চেয়েছেন কেউ কেউ৷ উত্তরে তিনি বলেছেন, ‘‘চেতনা যে কোনো দলের প্যাটেন্ট করা – এই ধরনের কথা শুনলে গড়াগড়ি না খেয়ে উপায় আছে৷''

‘স্বপ্নবাজ দীপন' লিখেছেন, ‘‘নির্বাচনে হারার জন্যে আওয়ামী পন্থী অনেকেই দায়ী করেছে বাম-পন্থীদের....আমি বুঝলাম না, নির্বাচনে হারার পেছনে বামপন্থীরা কেমনে দায়ী হয়? আওয়ামী লীগ কখনো চারটি বড় দুর্নীতির দায় এড়াতে পারে না....পদ্মা সেতু, শেয়ারবাজার, হলমার্ক, ডেস্টিনি...এ যেনো শাক দিয়ে মাছ ঢাকা..৷''

কামরুল আহসান লিখেছেন, ‘‘গণজাগরণ মঞ্চ হবার পর, কত তর্ক-বিতর্ক, ঝগড়া করেছি বন্ধুদের সাথে, সহকর্মী এমনকি আত্মীয়দের সাথেও৷ অনেকের সাথেই সম্পর্কচ্ছেদ করেছি৷ ভাই হত্যা, বোনের ধর্ষণকারীর বিচার চাইতে যে ‘কিন্তু' বলেছিল, তার জন্ম নিয়ে প্রশ্ন তুলেছি৷ এখন মনে হচ্ছে আমার চারপাশে স্বাধীনতার আদর্শের যে দূর্গ গড়েছিলাম, তার দেয়াল ভেঙে পড়ছে একটা একটা করে৷ সামান্য কয়টা লম্পটকে বাঁচাতে গিয়ে আওয়ামী লীগ তার হাজার হাজার বন্ধু হারাল৷’’

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়