1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

স্প্যানিশ লিগের তারকা ফুটবলাররা

স্প্যানিশ লিগের আসল উত্তেজনা আর চাঞ্চল্য কয়েকজন অসাধারণ প্লেয়ারকে ঘিরে, যাদের ফর্ম ভালো থাক আর খারাপ থাক, তা' নিয়ে যুক্তি-তর্ক-গল্পের কোনো অভাব ঘটবে না৷ নায়ক ছাড়া যেমন সিনেমা হয় না, তেমন ফুটবলও হয় না৷

গত বুধবার আয়াক্স অ্যামস্টারডাম'এর বিরুদ্ধে চ্যাম্পিয়নস লিগের খেলায় বার্সেলোনা'র লিওনেল মেসি এই লিগে তাঁর সত্তর ও একাত্তর নম্বর গোল দু'টি করে রাউল গনজালেস'এর আগের রেকর্ডটিকে ধরে ফেলেন৷ আর যদি স্প্যানিশ লিগের কথা ওঠে, তাহলে মনে করতে হবে, ১৯৫৫ সালে অ্যাথলেটিক বিলবাও'এর টেলমো জারা ২৫১টি গোলের রেকর্ড করেছিলেন৷ মেসি'র সে রেকর্ড ধরতে আর মাত্র একটি গোল বাকি৷

ওদিকে রেয়াল'এর ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো পর পর আটটি খেলায় গোল করে ইতিমধ্যেই ক্লাব রেকর্ড করেছেন এবং এই সপ্তাহান্তে সে রেকর্ড বাড়াতেও পারেন৷ কিন্তু যাদের এ'সব রেকর্ড হচ্ছে-হবে বলে ক্রীড়া সাংবাদিকরা উচ্ছ্বাস-আদিখ্যেতা করছেন, সেই খেলোয়াড়রা স্বভাবতই আদিম কিংবা আগামী কোনো রেকর্ড বা পরিসংখ্যান নিয়ে চিন্তিত নন৷ তাদের নজর পরের লিগ গেম কিংবা চ্যাম্পিয়নস লিগের গেম'এর দিকে৷ কেননা তারা জানেন, পর পর কয়েকটা গেমে গোল না করতে পারলেই আবার হাহুতাশ শুরু হয়ে যাবে, স্টেডিয়ামে সমবেত ফ্যানদের তরফ থেকে সিটি দেওয়া শুরু হয়ে যাবে৷

বিশ্বাস না হয় তো রেয়াল মাদ্রিদ'এর করিম বেনজেমা'কে প্রশ্ন করে দেখতে পারেন৷ মাত্র মাস খানেক আগেও এই বেনজেমা'ই চাপে পড়েছিলেন পর পর ন'টি খেলায় মাত্র দু'টি গোল করে৷

Fußballer Cristiano Ronaldo

ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো পর পর আটটি খেলায় গোল করে ইতিমধ্যেই ক্লাব রেকর্ড করেছেন

সেই বেনজেমা'ই গত মঙ্গলবারের চ্যাম্পিয়নস লিগ খেলায় লিভারপুলের বিরুদ্ধে একমাত্র গোলটি করে এখন বের্নাবেউ'এর হিরো৷ ঠিক সেই হিরো থেকে জিরো হওয়ার মুখে পড়তে চলেছিলেন - ট্রান্সফার ফি'র হিসেবে - বিশ্বের সবচেয়ে মূল্যবান খেলোয়াড় গ্যারেথ বেল৷ বেল'এর পেশির চোট সত্ত্বেও পর পর পাঁচটি খেলায় জিতেছে মাদ্রিদ, তার মধ্যে বার্সেলোনা'কে হারিয়েছে ৩-১ গোলে৷ তার পর পরই দাবি ওঠে: বেল'কে বেঞ্চে বসিয়ে রাখলে কেমন হয়? সান্টিয়াগো বের্নাবেউ স্টেডিয়ামের জনতা মিডফিল্ডার ফ্রান্সিসকো ‘‘ইস্কো'' আলার্কন এবং ফরোয়ার্ড খামেস রদ্রিগেজ'এর নাম জপ করতে শুরু করে: এরা থাকতে বেল'কে মাঠে নামানো কেন?

কোচ কার্লো অ্যানসেলত্তি অবশ্য বেল'কে সপ্তাহান্তেই নামাবেন, বলে জানিয়েছেন৷ রেয়াল থেকে আবার বার্সেলোনা'য় ফিরলে দেখা যাবে, মেসি যখন অ্যামস্টারডামে গোল করছেন, তখন লুইজ সুয়ারেজ যে চার মাস নিষেধাজ্ঞার পর মাঠে ফেরা যাবৎ পর পর তিনটি গেমে কোনো গোল করতে পারেননি, সেটাও কারো নজর এড়ায়নি৷ যে কারণে স্বয়ং মেসি'কে বলতে হয়েছে: ‘‘লুইজ যে আমাদের সাথে আছে এবং আমাদের খেলার ধরনের সঙ্গে মানিয়ে নিচ্ছে, তা'তে আমরা খুব খুশি৷ এ'টা ওর তৃতীয় খেলা এবং ও' যে ধরনের স্ট্রাইকার, তা'তে আমরা ওর কাছ থেকে আরো অনেক কিছু আশা করতে পারি৷''

এসি/জেডএইচ (রয়টার্স, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন