1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

স্টেডিয়াম নিয়ে বিপাকে ব্রাজিল

২০১৪ বিশ্বকাপ ফুটবলে ব্রাজিলের ১২টি ভেন্যুর মধ্যে অন্যতম কুরিতিবা, যেটার কাজ এখনো শেষ হয়নি৷ তাই ঐ স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপ আয়োজন নিয়ে বিপাকে পড়েছে ব্রাজিল কর্তৃপক্ষ এবং ফিফা৷

বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব থাকা ফিফার শীর্ষ কর্মকর্তা জেরোম ভালকে এ মাসের তৃতীয় সপ্তাহে কুরিতিবা স্টেডিয়ামটি ঘুরে এসে বলেন, এই স্টেডিয়ামটি ছাড়া সব খেলা আয়োজন সম্ভব না৷ কেননা সেখানে চারটি খেলা হওয়ার কথা৷ ১৮ ফেব্রুয়ারি স্টেডিয়ামটির কাজ দেখে যদি মনে হয় এর নির্মাণ কাজ বিশ্বকাপের আগে শেষ হবে না, তবে বিকল্প ভাববেন তাঁরা৷

সাবেক ব্রাজিল ফুটবল তারকা কাফু এবং বেবেতো জানিয়েছেন, সময়মতো স্টেডিয়ামের কাজ শেষ না হওয়াটা তাঁদের দেশের জন্য ভীষণ বিব্রতকর৷ বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে কাফু জানান, কুরিতিবা স্টেডিয়ামটি যদি খেলায় যুক্ত করা না হয়, তবে তা কেবল ফিফার জন্য নয়, কুরিতিবা এবং ব্রাজিলের জন্য বিপর্যয় বয়ে আনবে৷ বেবেতোও একই হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন৷ বলেছেন, তিনি আশা করছেন বিশ্বকাপ শুরুর আগেই এর কাজ শেষ হবে৷

Stadien Fußball WM 2014 Brasilien Estádio Mineirão

ফিফার ডেডলাইন অনুযায়ী, সবগুলো স্টেডিয়ামের কাজ ডিসেম্বরের শেষ নাগাদ সম্পূর্ণ হওয়ার কথা

ইতিবাচক দিক হলো, এরপরও জেরোম ভালকে জানিয়েছেন, ফুটবল ভক্তরা কুরিতিবায় আসার জন্য বিমানের টিকিট বুক করতে পারেন৷ সেইসাথে জানান, এটি একটি চ্যালেঞ্জ, কিন্তু চারটি খেলা অন্যত্র সরিয়ে নেয়াটা আরো বড় চ্যালেঞ্জ৷ তাই এটির নির্মাণ কাজ শেষ করা ছাড়া সহজ কোনো উপায় নেই বলে জানান তিনি৷

ব্রাজিলের ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী লুইস ফার্নান্দেজ বলেছেন, নতুন ব্যবস্থাপনা কমিটি স্টেডিয়ামের কাজ তদারকির ভার নিয়েছে৷ তবে এর জন্য কত অর্থ বেশি খরচ হবে সেটাও চিন্তার বিষয় বলে জানিয়েছেন তিনি৷

ভালকে জানান, এপ্রিল বা মে মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে এটির কাজ শেষ হওয়া উচিত৷ স্টেডিয়াম সংস্কার এবং নির্মাণের জন্য ব্রাজিল ৩.৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ করছে৷ আর এর ৮০ ভাগ অর্থই আসবে জনগণের তহবিল থেকে৷ এ খরচের প্রতিবাদে গত বছরের জুনে ব্যাপক বিক্ষোভ করে ব্রাজিলের সাধারণ মানুষ৷ বিক্ষোভের মুখে কর্তৃপক্ষ অবশ্য প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল জনগণের অর্থ থেকে নয়, প্রাইভেট অর্থ থেকে ব্যয় বহন করা হবে৷

ফিফার ডেডলাইন অনুযায়ী, সবগুলো স্টেডিয়ামের কাজ ডিসেম্বরের শেষ নাগাদ সম্পূর্ণ হওয়ার কথা৷ ১২ জুন ব্রাজিল ও ক্রোয়েশিয়ার মধ্যে ম্যাচ দিয়েই উদ্বোধন হবে ২০১৪ বিশ্বকাপ ফুটবলের আসর

এপিবি/ডিজি (এপি, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন