1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

স্টাইলিশ ঈদের পোশাকে এক নম্বরে ইন্দোনেশিয়া

এইতো আর ক’দিন পরেই ঈদ৷ মুসলিমদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব৷ উৎসব মানেই নতুন জামাকাপড়, চলতি ফ্যাশন৷ ঈদকে ঘিরে রমজান মাসেই জমে ওঠে মুসলিম দেশগুলোসহ বিভিন্ন দেশের ঈদের বাজার৷ আর এবার ঈদের এ ফ্যাশনে এগিয়ে আছে ইন্দোনেশিয়া৷

default

ইন্দোনেশিয়ার মেয়েরা এগিয়ে ঈদ স্টাইলে

পঁয়ত্রিশ বছর বয়সী সরকারি চাকরিজীবী মালয়েশিয়ার শরীফা৷ তিনি এরইমধ্যে ঠিক করে ফেলেছেন তার ঈদের পোশাক৷ গলার কাছে নকশি করা কালো শিফনের লম্বা গাউন, তার সঙ্গে ম্যাচিং করা ক্রিস্টাল বসানো মাথার স্কার্ফ৷ আর পোশাকটি অবশ্যই ইন্দোনেশিয়ার তৈরি৷ বার্তাসংস্থা এএফপি'র কাছে শরীফার মন্তব্য, পোশাকটা যেন ঈদের জন্যই উপযোগী- একদিকে মার্জিত অন্যদিকে অভিজাত৷

আহমেদ৷ এই অঞ্চলের উঠতি মুসলিম ডিজাইনারদের মধ্যে একজন৷ তিনি ইন্দোনেশিয়ায় এসেছেন ঈদের পোশাক তৈরির জন্য কাপড় কিনতে৷ তাঁরই মতো রমজান মাসে আশপাশের দেশ মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুর থেকে মুসলিম ফ্যাশন ডিজাইনার ও ব্যবসায়ীদের অনেকেই এ দেশটিতে এসেছেন৷

ইসলামিক ফ্যাশনের দিক দিয়ে ইন্দোনেশিয়া হঠাৎ করেই যেন অনেকটা এগিয়ে গেছে৷ কাপড় বিক্রেতা আজিজা বললেন, জাকার্তা ও যোগজাকার্তাতে টুরিস্ট বাসে চড়ে দলে দলে মেয়েরা আসছে কাপড় কিনতে৷ পছন্দ মতো দশ, বিশটি করে কাপড় কিনে আবার ফিরে যাচ্ছে যে যার দেশে৷ অনেকে আবার দেশে পৌঁছানোর পর আরও বেশি করে অর্ডার দিচ্ছেন৷

এ বছরে ফ্যাশন তালিকায় শীর্ষে আছে গলায় বিভিন্ন নকশা করা হালকা রঙের শিফন, সিল্ক এবং ক্রেপ কাপড়ের তৈরি পোশাক৷ গত বছরের ফ্যাশন ভারি নকশা করা পাগড়ির পরিবর্তে এবার চলছে হালকা কাপড়ের ওপরে ক্রিস্টাল বসানো মাথার স্কার্ফ৷

ইসলামিক ফ্যাশন ডিজাইনার ডিয়ান পেলাঙ্গি বলছেন, ইন্দোনেশিয়ায় কম দামে বিভিন্ন ধরণের কাপড় পাওয়া যায়৷ মানের দিক থেকে এগুলো যেমন ভালো, তেমনি নকশার দিক দিয়েও বৈচিত্র্য রয়েছে৷

সিঙ্গাপুরের একটি কাপড় কোম্পানির পরিচালক হাসান ম্যারিক্যান৷ তিনি তাঁর কোম্পানির উৎসবের পোশাকের বিশ ভাগই আমদানি করেছেন ইন্দোনেশিয়া থেকে৷ আর যে দামে তিনি কিনেছেন বিক্রি করছেন তার দ্বিগুন দামে৷ এএফপি' কে বললেন, আমরা যারা ব্যবসায়ী, দাম তাদের কাছে একটা বড় বিষয়৷ তাছাড়া ইন্দোনেশিয়ার তৈরি কাপড়ে আমরা যেমন নকশা পাই, চীন মালয়েশিয়ার কাছ থেকে সেটা আবার পাই না৷ ইসলামিক ফ্যাশনে মালয়েশিয়া বা সিঙ্গাপুর সবসময় ইন্দোনেশিয়াকে অনুসরণ করে থাকে৷ বিশেষ করে মাথার স্কার্ফের নকশাগুলো ওদের অসাধারণ৷

দেশটির শ্রমমন্ত্রী মিজ হিদায়েত বলছেন, পোশাক ও কাপড় রপ্তানি করে ইন্দোনেশিয়া এ বছর দশ বিলিয়ন ডলার আয় করতে পারবে বলে আশা করা হচ্ছে , গত বছরে যা ছিলো ৯ দশমিক ২৬ ডলার৷ যা মোট রপ্তানি আয়ের শতকরা আট ভাগ৷

ইন্দোনেশিয়ার ফ্যাশন ডিজাইনার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি কুসমাইদি আশা করছেন, ইন্দোনেশিয়ার পোশাক বিশ্বে ইসলামী পোশাকের ফ্যাশন সম্পর্কে যে নেতিবাচক ধারণা আছে তাতে পরিবর্তন আনবে৷ বললেন, ইসলামি পোশাক একইসঙ্গে মার্জিত ও স্টাইলিশ হতে পারে এবং এই পোশাক কেবল ধর্মীয় উৎসবের দিনগুলোর জন্যই নয়, সবসময়েই এই পোশাক পরা যেতে পারে৷

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়