1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

স্কুলে শিশুদের যৌন অপব্যবহার নিয়ে গোলটেবিলের প্রস্তাব

জার্মানির পর এবার অস্ট্রিয়া এবং নেদারল্যান্ডসও তোলপাড়৷ ভালো ভালো ক্যাথলিক এবং অপরাপর স্কুলে যাজক এবং শিক্ষকরা ছাত্রদের, অবস্থাবিশেষে ছাত্রীদের যৌন অপব্যবহার করেছে, এ’ খবর সমাজকে সচকিত করেছে৷

default

হেপেনহাইমের ওডেনভাল্ড স্কুল

জার্মানির হেসে রাজ্যের হেপেনহাইমে ওডেনভাল্ড স্কুল৷ একটি নাম-করা, অভিজাত বোর্ডিং স্কুল৷ দৃশ্যত এ-ধরণের বহু উঁচুদরের বোর্ডিং স্কুলে বিগত কয়েক দশক ধরে শিশুদের উপর শিক্ষকদের যৌন অপব্যবহারের ঘটনা ঘটে আসছে৷ সে সব ঘটনা হয় ফাঁস হয়নি, নয়তো ধামাচাপা দেওয়া হয়েছে৷ সদ্য কিছু প্রাক্তন ছাত্র মুখ খুলতে শুরু করায় যেন কেলেঙ্কারির ধস নেমেছে৷ সোমবার ওডেনভাল্ড স্কুলের অধ্যক্ষা মার্গারিটা কাউফমান'কে সাংবাদিকদের সামনে বলতে শোনা যায়: ‘‘আমাদের ১৯৭০ থেকে ১৯৮৫-র ব্যাচের প্রাক্তন পড়ুয়াদের কাছে আজ একটি চিঠি গেছে৷ চিঠিতে আমি ওডেনভাল্ড স্কুলের নামে ভুক্তভোগীদের কাছে ক্ষমা চেয়েছি৷ এবং এখানে সেই ক্ষমাপ্রার্থনার পুনারাবৃত্তি করছি৷''

Kloster Ettal Bayern Missbrauch Kinder

বাভারিয়ার এট্টাল খ্রিষ্টীয় মঠ: এখানেও শিশুদের যৌন অপব্যবহার ঘটেছে

ছ'বছর ধরে যৌন অপব্যবহার

মঙ্গলবার অস্ট্রিয়ায় এক ৫৩ বছর বয়সি পুরুষ রাষ্ট্রীয় বেতার ওই-ওয়ান'কে বলেছেন যে, তাঁকে ১১ বছর বয়স থেকে ছ'বছর ধরে যৌন অপব্যবহার করা হয়েছিল৷ যে তিনজন পাদ্রী তা' করেছিল, তাদের মধ্যে একজন পরে সাল্জবুর্গের সাংক্ট পেটার খ্রিষ্টীয় মঠের এ্যাবট বা অধ্যক্ষ হন৷ ঐ এ্যাবটের সঙ্গে নাকি তাঁর শিকারের দেখা হয় গত নভেম্বরে, এবং এ্যাবট তাকে ‘‘ক্ষতিপূরণ'' হিসেবে ৫,০০০ ইউরো দেবার প্রস্তাব দেন৷ - অস্ট্রিয়ার অন্যত্র একটি ক্যাথলিক বোর্ডিং স্কুল আরো একজন ভুক্তভোগীর কথা জানায়৷ বার্তামাধ্যমে বেরোয় আরো এক পাদ্রীর খবর, যে নাকি ২০ জন শিশুর যৌন অপব্যবহার করেছে৷

শুধু গির্জার দিকে আঙুল তুলে লাভ নেই: গোলটেবিল

নেদারল্যান্ডসে বিভিন্ন ক্যাথলিক প্রতিষ্ঠানে শিশুদের যৌন অপব্যবহার নিয়ে ইতিমধ্যেই একটি তদন্ত চলেছে৷ ‘ডে টেলেগ্রাফ' পত্রিকা এবার নান, অর্থাৎ যাজিকাদের বিরুদ্ধেও অনুরূপ অভিযোগের খবর দিয়েছে৷ ভ্যাটিকান থেকে পোপ ষোড়শ বেনেডিক্টের মুখপাত্র ফেদেরিকো লম্বার্ডি নৈতিক দায়িত্বের কথা স্বীকার করলেও, বলেছেন শুধু গির্জার দিকে আঙুল তুলে লাভ নেই৷ অপরদিকে গির্জার পূর্ণ সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি৷ জার্মান পরিবারমন্ত্রী ক্রিস্টিনা শ্রোয়েডার আগামী ২৩শে এপ্রিল স্কুলে শিশুদের যৌন অপব্যবহারের বিষয়টি নিয়ে একটি গোলটেবিল বৈঠকের ডাক দিয়েছেন: ‘‘এ-ধরণের ঘটনা ঘটলে কি করা উচিৎ, কি কি কারণে শিশুদের উপর যৌন হস্তক্ষেপের ঘটনা ঘটে এবং সেগুলি রোধ করার জন্য কি করা যায় - গোলটেবিলে এই সব প্রশ্নই আলোচিত হবে,'' বলেছেন শ্রোয়েডার৷

প্রতিবেদক: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

সংশ্লিষ্ট বিষয়