1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

সৌর বিমানে চড়ে পৃথিবী প্রদক্ষিণ

সৌরবিদ্যুতের প্রয়োগ বাড়ছে বটে, কিন্তু এখনও তাকে ‘বিকল্প জ্বালানি’ হিসেবেই ধরা হয়৷ তবে ভবিষ্যতে এই প্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে যে আকাশপথে গোটা পৃথিবী প্রদক্ষিণ করা সম্ভব, সেটাও এবার দেখিয়ে দিচ্ছে সুইজারল্যান্ডের তৈরি এক বিমান৷

Solar Impulse II Solarflugzeug Präsentation in Payerne

‘সোলার ইমপাল্স ২'

ডানার ব্যাপ্তি বোয়িং-৭৪৭ জাম্বো জেটের থেকেও বেশি৷ এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্ত প্রায় ৭২ মিটার৷ কিন্তু ওজন বড় একটা গাড়ির মতো৷ ২.৩ মেট্রিক টন৷ নাম ‘সোলার ইমপাল্স ২'৷ তবে গতি বেশি নয়৷ ঘণ্টায় মাত্র ১৪০ কিলোমিটার৷ গোটা পৃথিবী প্রদক্ষিণ করতে কমপক্ষে ৫ দিন, ৫ রাত লাগার কথা৷

কাগজে-কলমে এই বিমান অনন্তকাল আকাশে থাকতে পারে, এক মাস তো বটেই৷ নেহাত আরোহীদের বেশি দিন বিমানের ছোট পরিসরে রাখা চলে না বলেই সে রকম কিছু ভাবা হচ্ছে না৷ অবশ্য পাইলটদের সর্বক্ষণ ককপিটে বসে না থাকলেও চলে৷ কারণ তাতে অটোপাইলট-এরও ব্যবস্থা রয়েছে৷

আছে একটি টয়লেট, বিজনেস ক্লাসের মতো বসার সিট, যা হেলিয়ে দিয়ে ঘুমিয়ে দেওয়া চলে৷ শরীর চাঙ্গা রাখতে একটু-আধটু ব্যায়াম করাও যেতে পারে৷ ফ্লাইট সিমুলেটারে বসে দীর্ঘ সময় ধরে একই জায়গায় বসে থাকার অনুশীলন করতে পারলে তবেই পাইলটের পক্ষে এমন সাহস দেখানো সম্ভব৷ দিনে সব মিলিয়ে দু'ঘণ্টা ঘুম, এক-একবারে ২০ মিনিট করে ঘুমানোর সুযোগ পাওয়া যাবে৷

কোথা থেকে এত শক্তি পায় ‘সোলার ইমপাল্স ২'? প্রথমত, এর ব্যাটারি বেশ শক্তিশালী৷ বিমানের বিশাল শরীর জুড়ে প্রায় ১৭,২০০ সোলার সেল লাগানো আছে৷ সেখান থেকে পাওয়া সৌরশক্তি জমিয়ে রাখতে হয়৷ ইলেকট্রিক মোটর বা ইঞ্জিনও বেশ কর্মক্ষম৷

আগামী বছরই এই বিমান নিয়ে পৃথিবী পরিক্রমার প্রচেষ্টা চালানো হবে৷ হিসাব অনুযায়ী শুধু আকাশেই কাটাতে হবে প্রায় ২০ দিন৷ সব মিলিয়ে তিন মাস লাগবে অভিযান শেষ করতে৷ চলতি বছরের মে-জুন মাসেই পরীক্ষামূলকভাবে আকাশে উড়বে ‘সোলার ইমপাল্স ২'৷

এই প্রকল্পের উদ্যোক্তা ব্যার্ত্রঁ পাকার ও আন্দ্রে বর্শব্যার্গ৷ তাঁরা এর আগে ‘সোলার ইমপাল্স ১' তৈরি করে হাত পাকিয়েছিলেন৷ দ্বিতীয় সংস্করণে প্রথমটির অনেক দুর্বলতা কাটিয়ে তোলা সম্ভব হয়েছে৷ গত সপ্তাহে সুইজারল্যান্ডে তাঁরা তাঁদের পরিকল্পনা তুলে ধরেছেন৷

এসবি/ডিজি (এপি, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন