সৌদি আরবে প্রথম আন্তর্জাতিক কমেডি উৎসব | সমাজ সংস্কৃতি | DW | 27.07.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

সৌদি আরবে প্রথম আন্তর্জাতিক কমেডি উৎসব

রক্ষণশীল দেশ সৌদি আরবে শুরু হলো প্রথম আন্তর্জাতিক কমেডি উৎসব৷ চলবে এক সপ্তাহ৷ তবে কমেডি উৎসবের সবক্ষেত্রেই নারী এবং পুরুষের জন্য পৃথক আয়োজন৷

default

সৌদির উৎসবে অংশ নিচ্ছেন মিশরীয় শিল্পীরাও (ফাইল ছবি)

সৌদি আরবের দক্ষিণ-পশ্চিমের শহর আভায় অনুষ্ঠিত হলো দু'টি পৃথক উদ্বোধনী অনুষ্ঠান৷ একটিতে শুধুমাত্র অভিনেত্রী এবং নারী ভক্তদের সমাবেশ৷ অপরটি শুধুমাত্র পুরুষদের জন্য৷ রয়েছে ‘হারিমকো' তথা ‘তোমাদের নারীরা' শিরোনামের থিয়েটার শো৷ আর এখানে প্রবেশাধিকার শুধুই নারীদের৷

এছাড়া শিশুদের জন্য থাকছে বিশেষ আয়োজন৷ থাকছে কার্টুন ছবি, কৌতুক অভিনয়, প্রতিযোগিতা এবং ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনী৷ উৎসবে নিজেদের হাস্য-রসাত্মক আর মজাদার সব অভিনয় নিয়ে হাজির থাকছেন মিশর, সিরিয়া, কুয়েত এবং সৌদি আরবের প্রখ্যাত অভিনয় শিল্পীরা৷ তাঁদের মধ্যে রয়েছেন মিশরের হাসান হোসনি, সিরিয়ার আয়মান জিদান, কুয়েতের সাদ আল ফারাজ এবং সৌদি আরবের জনপ্রিয় অভিনয় শিল্পী নাসের আল-কাসবি৷

মূলত আসির অঞ্চলের আমির প্রিন্স ফয়সাল বিন খালেদের পৃষ্ঠপোষকতায় প্রথমবারের মতো এই কমেডি উৎসবের আয়োজন৷ রাওয়াদ মিডিয়া প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে চলছে এই উৎসব৷ সৌদি ছবি নির্মাতা এবং উৎসবের আয়োজক মামদোহ সালেম বলেন, আসির অঞ্চলের গ্রীষ্মকালীন ১৮টি ইভেন্টের অংশ হিসেবেই এই উৎসব৷ আগামীতে এই উৎসবকে বার্ষিক অনুষ্ঠানে রূপ দিতে চাই আমরা৷

তিনি আরো বলেন, তরুণ কৌতুক অভিনেতাদের মেধা বিকাশ এবং সৌদি আরব ও অন্যান্য দেশের মধ্যে সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ঐতিহ্যগত সেতু বন্ধন তৈরি করা আমাদের লক্ষ্য৷ মূলত যেসব গুরুত্বপূর্ণ বার্তা মানুষের কাছে খোলাখুলি তুলে ধরা যায় না, তা হাস্য-রসের মধ্য দিয়ে জনগণকে অবহিত করা হবে এই আয়োজনের মাধ্যমে, বলেন সালেম৷

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: ফাহমিদা সুলতানা