1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সোয়াতের শরণার্থীদের জন্য পাওয়া অর্থ শেষ হবার পথে

পাকিস্তানের গৃহহীনদের জন্যে ২০১০ সালে ৫৩ কোটি ৭০ লাখ ডলার সহায়তার অনুরোধ জানিয়েছে জাতিসংঘ এবং সাহায্য সংস্থাগুলো৷ পিএইচএফ-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক দাতব্য সংস্থাগুলো মাত্র ১৭ কোটি ডলার সহায়তা নিয়ে এগিয়ে এসেছে৷

default

সোয়াত উপত্যকার গৃহহীন এক পাকিস্তানি বালিকা পরবর্তীতে পেশওয়ারের উদ্বাস্তু শিবিরে আশ্রিত (ফাইল ফটো)

তালেবান নিয়ন্ত্রিত পাকিস্তানের উত্তরপশ্চিমাঞ্চলের প্রদেশ ছেড়ে প্রতিদিনই হাজার হাজার পাকিস্তানির পালিয়ে যাওয়া অব্যাহত রয়েছে৷ এদিকে লড়াইয়ের কারণে গৃহহীন ১৩ লাখ মানুষের সহায়তায় দাতব্য সংস্থাগুলোর বরাদ্দ অর্থও শেষ হতে বসেছে বলে সাহায্য সংস্থাগুলো বুধবার হুঁশিয়ার করে দিয়েছে৷

দেশটির উত্তরপশ্চিমাঞ্চলের সোয়াত উপত্যকা থেকে তালেবান জঙ্গিদের উৎখাতে গত বছরের সামরিক অভিযানের সময় কয়েক দশকের মধ্যে পাকিস্তানে সবচেয়ে বড় মানবিক সঙ্কট দেখা দেয়৷ আর তখনই প্রয়োজন হয় আন্তর্জাতিক সহায়তার৷

কিন্তু একবছরের মধ্যেই দাতব্য সংস্থাগুলোর দেয়া এই অর্থ শেষ হতে শুরু করেছে৷ এই কারণে সাহায্য সংস্থাগুলো তাদের প্রকল্প কাটছাঁট করতে বাধ্য হচ্ছে৷ উত্তরপশ্চিমাঞ্চলে সামরিক অভিযানের সময় বাড়ানো সত্ত্বেও, সাধারন মানুষ তাদের ঘরে ফিরতে ভয় পাচ্ছে৷ একই সঙ্গে সাধারন মানুষের নুন্যতম চাহিদাগুলোও পুরন করা সম্ভব হচ্ছে না৷

BIldergalerie Flüchtlingskrise im Swattal Essensausgabe

শরণার্থী শিবিরে খাবারের অপেক্ষায় (ফাইল ফটো)

পাকিস্তান মানবাধিকার ফোরাম (পিএইচএফ)-এর প্রধান কাইটলিন ব্রাডি বলেছেন, সঙ্কট সমাধান থেকে অনেক দুরে রয়েছি আমরা এবং লাখ লাখ মানুষের প্রয়োজনীয় চাহিদা রয়েই গেছে৷ ব্রাডি একই সঙ্গে আন্তর্জাতিক উদ্ধার কিমিটির ভারপ্রাপ্ত পাকিস্তানি পরিচালক৷ পাকিস্তানের গৃহহীনদের জন্যে ২০১০ সালে ৫৩ কোটি ৭০ লাখ ডলার সহায়তার অনুরোধ জানিয়েছে জাতিসংঘ এবং সাহায্য সংস্থাগুলো৷ পিএইচএফ-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক দাতব্য সংস্থাগুলো এইপর্যন্ত মাত্র ১৭ কোটি ডলার সহায়তা নিয়ে এগিয়ে এসেছে৷

সামরিক অভিযানে সোয়াত উপত্যকা থেকে বাস্তুচ্যুত ৩০ লাখ মানুষের অনেকেই গত গ্রীষ্মে ঘরে ফিরে গেছে, কিন্তু আফগান সীমান্ত সংলগ্ন উপজাতিয় অঞ্চলে সেনাবাহিনীর নতুন করে চালানো অভিযানের পরিপ্রেক্ষিতে অনেকেই আবার এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে৷

২০০১ সালে মার্কিন নেতৃত্বাধিন অভিযানের পর, আফগানিস্তান থেকে পালানো আল কায়দা, তালেবান এবং অন্যান্য ইসলামি জঙ্গিদের নিরাপদ জায়গায় পরিণত হয়েছে, পাকিস্তানের আধা সায়ত্বশাসিত উপজাতিয় অঞ্চল৷

পিএইচএফ বলছে, গৃহহীন ১৩ লাখেরও বেশি মানুষ বেঁচে থাকার জন্যে এখন জরুরি সাহায্যের ওপর নির্ভরশীল৷ কিন্তু জরুরি সাহায্যই শেষ হতে বসেছে৷

প্রতিবেদক: ফাহমিদা সুলতানা

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারুক

সংশ্লিষ্ট বিষয়