1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সোমালিয়ায় বোমা হামলায় নিহত ২৫

সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিশুর একটি মসজিদের কাছে পরপর দু’টি বোমা বিস্ফোরণ ঘটেছে শনিবার৷ স্থানীয় সময় দুপুর দু’টোর দিকে নামাজ শেষ হওয়ার ঠিক পরেই এই বোমা হামলার ঘটনা ঘটে৷

default

ফাইল ছবি

শনিবারের বোমা হামলায় কমপক্ষে ২৫ জন নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি৷ অবশ্য, প্রত্যক্ষদর্শী এবং হাসপাতাল সূত্রে নিহতের সংখ্যা ৩০ থেকে ৩৯ জন বলে জানিয়েছে কয়েকটি বার্তা মাধ্যম৷ এতে ৭০ জনেরও বেশি মুসল্লি আহত হয়েছে৷ বোমা হামলার কেন্দ্রস্থল বাকারা বাজার সংলগ্ন আব্দাল্লা শিদায়া মসজিদ৷ বাকারা বাজার এলাকায় দেশটির প্রধান দুই চরমপন্থি গোষ্ঠী আল শাবাব এবং হিজবুল ইসলামের বেশ প্রভাব রয়েছে৷ তবে আব্দাল্লা শিদায়া মসজিদটি মূলত আল শাবাব গোষ্ঠীর সদস্যরা নিয়ন্ত্রণ করে থাকে৷

শনিবারের বোমা হামলায় হতাহতদের অধিকাংশই আল কায়েদার অঙ্গ সংগঠন বলে পরিচিত আল শাবাব গোষ্ঠীর নেতা-কর্মী৷ এছাড়া আল শাবাব গোষ্ঠীর ভাষ্য মতে, শনিবার তাদের অন্যতম শীর্ষ নেতা ফুয়াদ মোহাম্মদ খালাফ ওরফে ফুয়াদ শঙ্গলে ঐ মসজিদে নামাজ পড়ছিলেন এবং তাঁকে লক্ষ্য করেই এই হামলা চালানো হয়েছে৷ জানা গেছে, ফুয়াদ শঙ্গলের ডান বাহুতে আঘাত লেগেছে৷

আল শাবাব নেতা শেখ আলি মোহাম্মদ রাগে এই বোমা হামলার জন্য সরকারকেই দায়ী করেছেন৷ তিনি বলেন, ‘‘সোমালিয়ার তথাকথিত সরকারের ভাড়া করা গুন্ডা বাহিনীই এই হামলা চালিয়েছে৷ আমরা এই হামলার ব্যাপারে তদন্ত শুরু করেছি৷ এই ধরণের হামলার প্রতিশোধ অবশ্যই নেওয়া হবে৷'' তবে দেশটির তথ্য মন্ত্রী দাহির মোহামুদ গেলে এই হামলার সাথে সরকারের জড়িত থাকার অভিযোগ নাকচ করে দিয়েছেন৷ তিনি বলেন, সাধারণ মানুষ যেখানে রয়েছে এমন স্থানে বিদ্রোহীদের উপর সরকার হামলা চালাবে না৷

এই বোমা হামলার নিন্দা জানিয়েছে আফ্রিকান ইউনিয়ন৷ সোমালিয়ায় ইউনিয়নের শীর্ষ কর্মকর্তা বুবাকার গাউসু দিয়ারা বলেন, ‘‘আজকের হামলার মতো সাধারণ মানুষের কাজ-কর্মের জায়গায় বেপরোয়া হামলা কোনভাবেই মেনে নেওয়া যায় না৷ আফ্রিকান ইউনিয়নের পক্ষ থেকে আমি সোমালিয়ার সংঘাতে জড়িত সকল গোষ্ঠীকেই বেসামরিক মানুষের উপর এমন নারকীয় হামলা বন্ধ করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি৷''

উল্লেখ্য, ১৯৯১ সালে তৎকালীন স্বৈরশাসকের পতনের পর থেকেই সোমালিয়ায় দ্বন্দ্ব-সংঘাত আর রক্তক্ষয়ী সহিংসতা বিরাজ করছে৷ গত ডিসেম্বরে রাজধানী মোগাদিশুর একটি হোটেলে ভয়াবহ বোমা হামলায় সরকারের কয়েকজন মন্ত্রীসহ ৫৭ জন নিহত হয়৷ এছাড়া সেখানে নিয়োজিত আফ্রিকান ইউনিয়নের শান্তিরক্ষী বাহিনীর ঘাঁটিতেও গত সপ্তাহে সন্ত্রাসী হামলা চালানোর পরিকল্পনা করেছিল আল শাবাব বাহিনী৷ তবে শান্তিরক্ষী বাহিনীর সদস্যরা তাদের সেই পরিকল্পনা নস্যাৎ করে দিতে সক্ষম হয়৷

প্রতিবেদক: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: রিয়াজুল ইসলাম

সংশ্লিষ্ট বিষয়