1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

সোমালিয়ায় আল-শাবাবের হুমকি, সংঘর্ষে নিহত এগারো

সোমালিয়ায় ক্রমশ প্রতিপত্তি বৃদ্ধি পাচ্ছে আল-শাবাবের৷ জঙ্গি সংগঠনটির দাবি, পাকিস্তান আফগানিস্তান নয়, তারা সোমালিয়ায় গড়ে তুলবে জঙ্গি প্রশিক্ষণকেন্দ্র৷ এদিকে, একদিনে ১১ সাধারণ নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে সহিংসায়৷

default

সোমালিয়াকেই জঙ্গি প্রশিক্ষণের ঘাঁটি করবে বলেও শাসিয়েছে আল-শাবাব

শুক্রবার সন্ধ্যা থেকেই শুরু হয়ে যায় সশস্ত্র সংঘর্ষ৷ ঘটনাস্থল সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিশুর দক্ষিণাঞ্চল৷ শনিবার মোগাদিশুতে পুলিশের সদরদপ্তরে বসে সরকারি নিরাপত্তা দপ্তরের মুখপাত্র মোহামেদ আদেন জানিয়েছেন, আডেন বন্দরের দখল নিতে দক্ষিণাঞ্চলে গতকাল সন্ধ্যা থেকে পথে নেমেছিল আল-শাবাবের শাখা সংগঠন সুফি জঙ্গিদের একটা বাহিনী৷ সেনাবাহিনীর সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে এগারোজন সাধারণ নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে৷ পরে ব্যাপক হারে সেনা নামিয়ে এলাকার দখল কায়েম রেখেছে সরকার৷ দাবি করেছেন নিরাপত্তা মুখপাত্র৷

Soldaten der Al-Shabab-Miliz vor Mogadischu

আল-শাবাব এখন জঙ্গি সংগঠনের ‘এলিট দল'-এর তালিকায় নিজেদের নাম লেখাতে চায়

এলাকার দখল কায়েম করা নিয়ে নিরাপত্তা দপ্তরের বড়াই কিন্তু রাজধানী মোগাদিশু পর্যন্ত৷ যেকোন সময় যে রাজধানীর দখল নেওয়ার হুমকি দিয়ে রেখেছে আল-শাবাব৷ আল-শাবাব এখন জঙ্গি সংগঠনের ‘এলিট দল'-এর তালিকায় নিজেদের নাম লেখাতে চায়৷ সুতরাং, সোমালিয়াকেই তারা জঙ্গি প্রশিক্ষণের ঘাঁটি করবে বলেও শাসিয়েছে৷ তেমন কিছু হলে আল-কায়েদা কিংবা তালেবান-এর মত জঙ্গি মহলে হেভিওয়েট নামের সঙ্গে জুড়ে যাবে আল-শাবাবের নামটাও৷ পাশাপাশি, আফগানিস্তান বা পাকিস্তানের দিকে যে পরিমাণ মনোযোগ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের, তাতে সেখান থেকে জঙ্গি সংগঠন সরিয়ে নিতে পারলে কার্যক্ষেত্রে সুবিধাই হবে আল-কায়েদার বা তালেবানের৷

বস্তুতপক্ষে সোমালিয়ার নিয়ন্ত্রণ ক্রমশই হারাচ্ছে সেদেশের সরকার৷ দেশের উত্তর আর দক্ষিণাঞ্চলের বিস্তীর্ণ এলাকায় কোনরকম সরকারি কার্যকলাপ বা অস্তিত্ব কোনটাই নেই৷ জলপথে আডেন উপসাগরের দখলও চলে গেছে সোমালি জলদস্যুদের হাতে৷ রাজধানী মোগাদিশুর কিছু এলাকায় সরকারি হুকুমনামা বজায় থাকার কারণ বিদেশি এবং জাতিসংঘ বাহিনীর সমর্থন৷ যেকোন সময় এই সরকারকে তাই ফেলে দিতে নিজেদের শক্তি বাড়িয়ে নিয়েছে আল-শাবাব৷ আল-কায়েদার সঙ্গে সম্পর্কিত এই আল-শাবাব আফ্রিকার সবচেয়ে বড়মাপের জঙ্গি সংগঠন৷ এদের বেড়ে ওঠা ইউরোপেরও মাথাব্যথার কারণ হয়ে উঠবে অচিরেই৷

প্রতিবেদন:সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম

নির্বাচিত প্রতিবেদন